শুক্রবার, ২২ অক্টোবর 2021 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   শিক্ষা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে আন্দোলন শিথিলের ঘোষণা রবি’র শিক্ষার্থীদের

মোঃ মিলন শেখ সিরাজগঞ্জ :
অবশেষে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নমনীয়তা এবং শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিল রবি’র আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। টানা পাঁচ দিন অবস্থান ধর্মঘট এবং দুইদিন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে দায়িত্বপ্রাপ্ত ভিসিসহ শিক্ষক, কর্মকর্তাদের অবরুদ্ধ করে রাখার পর শনিবার দুপুর ১২টার দিকে ভবনের তালা খুলে দিয়ে অবরোধ কর্মসূচি তুলে নেয়া হয়। সেইসাথে অবস্থান কর্মসূচির কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। শনিবার সাড়ে ১১টার দিকে প্রেস ব্রিফিং করে এ ঘোষণা দেন রবি’র আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র একেএম নাজমুল হোসাইন।

এদিকে অবরোধ তুলে নিলেও দুই দিন (৪৮ ঘন্টা) অর্থাৎ সোমবার পর্যন্ত আল্টিমেটাম দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। এই আটচল্লিশ ঘন্টার মধ্যে তাদের একমাত্র দাবি বাস্তবায়ন না হলে পুনরায় কঠোর আন্দোলনে যাবার হুঁশিয়ারী দিয়েছে তারা।
 
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৪ ছাত্রের মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে ইতোমধ্যেই সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে একেএম নাজমুল হোসাইন জানান, বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায় অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬তম সিন্ডিকেট সভায় অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সেই সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে ছাত্রদের আন্দোলনের মুখে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম চালু রেখে শুধু পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করেন কর্তৃপক্ষ। সেইসাথে তদন্ত প্রতিবেদন সোমবারের মধ্যে দেওয়ার কথা বলেছেন। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। এরপরেই মূলত অবরোধ কর্মসূচি তুলে নিয়ে অন্যান্য কর্মসূচিতে শিথিলতা আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস সংস্কৃতি ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের ১৪ জন শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় রাতে বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র নাজমুল হোসেন তুহিন (২৫) ঘুমের ওষুধ সেবন করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন দায়িত্বে থাকা ৩টি পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে আন্দোলন শিথিলের ঘোষণা রবি’র শিক্ষার্থীদের
                                  

মোঃ মিলন শেখ সিরাজগঞ্জ :
অবশেষে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নমনীয়তা এবং শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিল রবি’র আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। টানা পাঁচ দিন অবস্থান ধর্মঘট এবং দুইদিন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে দায়িত্বপ্রাপ্ত ভিসিসহ শিক্ষক, কর্মকর্তাদের অবরুদ্ধ করে রাখার পর শনিবার দুপুর ১২টার দিকে ভবনের তালা খুলে দিয়ে অবরোধ কর্মসূচি তুলে নেয়া হয়। সেইসাথে অবস্থান কর্মসূচির কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। শনিবার সাড়ে ১১টার দিকে প্রেস ব্রিফিং করে এ ঘোষণা দেন রবি’র আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র একেএম নাজমুল হোসাইন।

এদিকে অবরোধ তুলে নিলেও দুই দিন (৪৮ ঘন্টা) অর্থাৎ সোমবার পর্যন্ত আল্টিমেটাম দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। এই আটচল্লিশ ঘন্টার মধ্যে তাদের একমাত্র দাবি বাস্তবায়ন না হলে পুনরায় কঠোর আন্দোলনে যাবার হুঁশিয়ারী দিয়েছে তারা।
 
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৪ ছাত্রের মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনকে ইতোমধ্যেই সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে একেএম নাজমুল হোসাইন জানান, বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায় অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬তম সিন্ডিকেট সভায় অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সেই সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে ছাত্রদের আন্দোলনের মুখে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম চালু রেখে শুধু পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করেন কর্তৃপক্ষ। সেইসাথে তদন্ত প্রতিবেদন সোমবারের মধ্যে দেওয়ার কথা বলেছেন। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। এরপরেই মূলত অবরোধ কর্মসূচি তুলে নিয়ে অন্যান্য কর্মসূচিতে শিথিলতা আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস সংস্কৃতি ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের ১৪ জন শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় রাতে বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র নাজমুল হোসেন তুহিন (২৫) ঘুমের ওষুধ সেবন করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন দায়িত্বে থাকা ৩টি পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

জাবির আবাসিক হল খুলবে ২১ অক্টোবর
                                  

জাবি প্রতিনিধি :
আগামী ২১ অক্টোবর থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খুলে দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল। বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শুরু হওয়া একাডেমিক সভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে ২ নভেম্বরের সিন্ডিকেটের সভায় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য জাবির প্রাণ রসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সোহেল আহমেদ গণমাধ্যমকে জানান, দুর্গাপূজার ছুটি শেষে ২১ অক্টোবর থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে। তবে হলে ওঠার জন্য শিক্ষার্থীদের অন্তত করোনা টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করতে হবে। গণরুম সংকট নিরসনের জন্য প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের আপাতত হলে উঠতে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে একাডেমিক কাউন্সিল।

একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যরা আরও জানান, প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা তাদের সমাপনী পরীক্ষা শেষ করে হলে উঠবে। এছাড়া ইতোমধ্যে যাদের স্নাতকোত্তর পরীক্ষা শেষ হয়েছে তাদের কেউই আবাসিক হলে উঠতে পারবেন না।

ইবিতে ৬ বিভাগে নতুন সভাপতি
                                  

ইবি প্রতিনিধি:
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ছয় বিভাগে নতুন সভাপতি নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মু. আতাউর রহমান স্বাক্ষরিত পৃথক ছয়টি প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়। পরবর্তী ৩ বছর তারা এই দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানানো হয়েছে।

নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তরা হলেন, ল’ এন্ড ল্যান্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগে সাহিদা আখতার, ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগে রফিকুল ইসলাম, হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগে শিমুল রায়, ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগে এ এইচ এম নাহিদ, সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার বিভাগে শ্যাম সুন্দর সরকার এবং এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড জিওগ্রাফী বিভাগে ইনজামুল হক।

উল্লেখ্য, নবগঠিত বিভাগগুলোতে কোনো সহকারী অধ্যাপক না থাকায় এতদিন অনুষদীয় ডিন ও অন্য বিভাগের সিনিয়র শিক্ষকরা সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বশেষ সিন্ডিকেট সভায় নতুন সভাপতিরা সহকারী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি পাওয়ায় জ্যৈষ্ঠতার ভিত্তিতে তাদের এসব দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

জবিতে বসছে আরও ২২টি সিসিটিভি ক্যামেরা
                                  

জবি প্রতিনিধি :
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ক্যাম্পাসে নতুন করে আরও ২২টি ক্লোজ সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) ক্যামেরা বসানো পরিকল্পনা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। প্রকল্পটির প্রস্তাবনাও ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। উপাচার্যের অনুমোদন পেলেই অতিদ্রুত কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হবে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল ও নেটওয়ার্ক এন্ড আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য এসব তথ্য জানিয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার ইউজিসি ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের এক ভার্চুয়াল বৈঠকে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সিসিটিভি ক্যামেরা বসানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খোলার পর সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলোতে সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হবে। তাছাড়া ক্যাম্পাসের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে নিরাপত্তা সংশ্লিষ্টদের নজরদারি থাকবে। তবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বিঘœ হয় এমন কিছুই হবেনা বলে জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে বিশেষ নজরদারি রাখা হবে। ক্যাম্পাসগুলোতে `নৈরাজ্য` ও `জঙ্গিবাদ প্রচার` হওয়ার আশঙ্কা সংক্রান্ত কোনো তথ্য আছি কি-না জানতে গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ রাখবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এরই প্রেক্ষিতেই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন করে আরও ২২ টি সিসিটিভি বসানোর কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। আগে থেকেই ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলোতে ৪০টিরও বেশি সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো থাকলেও এর এর মধ্যে সচল রয়েছে ৪০টির মতো। আরো বেশি নিরাপত্তা নিশ্চিতে নতুন করে আরো ২২টি সিসিটিভি ক্যামেরা বসাবো হবে। পর্যায়ক্রমে এর সংখ্যা আরও বাড়বে বলেও জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইটি দপ্তর। সিসিটিভি লাগানো থেকে শুরু করে এর সার্বিক তত্বাবধানে থাকবে আইটি দপ্তর।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল বলেন, আমাদের আগে থেকেই অনেকগুলো সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো আছে। তবে কিছু কিছু জায়গায় আরো লাগাতে হবে। সেজন্য ইতোমধ্যেই প্রস্তাবনা রেডি হয়ে গেছে। বাকিটা আইটি দপ্তর বলতে পারবে।

আইটি দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার আচার্য্য জানান, আমাদের অলরেডি ২২ টি ক্যামেরা কেনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ভিসি স্যার অনুমোদন দিলেই এটার বাস্তবায়ন হবে। আমরা এখন ২২ টা লাগাচ্ছি, এরপর পর্যায়ক্রমে আরো লাগানো হবে। এখন তোর আমরা একসাথেই অনেকগুলো লাগাতে পারবোনা। সেজন্য প্রাথমিকভাবে ২২ টি ক্যামেরা লাগানো হবে। এই কার্যক্রমের সার্বিক তত্বাবধানে আইটি দপ্তর থাকবে।

উল্লেখ্য, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে ৪০ টির মতো সিসি ক্যামেরা রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে শুরু করে ভিসি ভবন, নিউ একাডেমিক ভবনের নিচতলায়, কলা ভবন, ক্যাফেটেরিয়ার ভেতরে ও বাহিরে, অবকাশ ভবনের কোনায়, শান্ত চত্বরে রয়েছে একের অধিক সিসিটিভি ক্যামেরা। এসব ক্লোজ সার্টিক ক্যামেরা গুলোর দেখাশুনার দায়িত্বেও রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের নেটওয়ার্ক এন্ড আইটি দপ্তর।

টিকা: এনআইডিবিহীন শিক্ষার্থীদের জন্মনিবন্ধন চেয়েছে জবি
                                  

জবি প্রতিনিধি :
বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকা প্রদান সাপেক্ষে খুব দ্রুতই বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সরকার। এরই পরিপ্রেক্ষিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নেই, এমন শিক্ষার্থীদের করোনা টিকা দিতে জন্মনিবন্ধন নম্বর চেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এজন্য ২১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নিজেদের স্টুডেন্ট পোর্টালে লগইন করে নির্ধারিত ফিল্ডে তথ্য ইনপুট দিতে হবে।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তর থেকে এসব তথ্য জানা যায়। এর আগে এ ব্যাপারে শনিবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশিত হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বা গবেষণারত ১৮ বা ১৮ বছরের বেশি বয়সের শিক্ষার্থীদের যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই এমন শিক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদানের লক্ষ্যে শিক্ষার্থীরা তাদের জন্মনিবন্ধন নম্বর নিজ নিজ স্টুডেন্ট পোর্টালে লগইন করে নির্ধারিত ফিল্ডে আগামী ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ তারিখের মধ্যে তথ্যাদি ইনপুট দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হলো। পরবর্তীতে তাদের জন্মনিবন্ধনের তথ্যাদি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মাধ্যমে www.surokkha.gov.bd ওয়েব সাইটে সংযুক্ত করার পর তাদেরকেও একই ওয়েব সাইটের(www.surokkha.gov.bd) মাধ্যমে টিকা গ্রহণের নিমিত্তে নিবন্ধন করতে হবে।’

এছাড়াও যেসব শিক্ষার্থীর জাতীয় পরিচয় পত্র আছে তাদের সরাসরি www.surokkha.gov.bd ওয়েব সাইটের মাধ্যমে জরুরি ভিত্তিতে টিকা গ্রহণের জন্য নিবন্ধন করে কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণ করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে।

এর আগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা গ্রহণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

উল্লেখ্য, গত ৩ জুন প্রথম ধাপে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থী এবং এমফিল ও পিএইচডি গবেষকদের করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকার আওতায় আনতে প্রজ্ঞাপন জারি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ১০ জুন পর্যন্ত চলা এ রেজিস্ট্রেশনে মোট ৯৪৫৪ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। পরে দ্রুত টিকা প্রাপ্তির লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের এ তালিকা ইউজিসি ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। এরপর দ্বিতীয় ধাপে ১৮ আগস্ট থেকে ২৩ আগস্টের মধ্যে শিক্ষার্থীদের এনআইডির তথ্য চায় বিশ্ববিদ্যালয়। তবে তখন সুরক্ষা ওয়েবসাইটে ১৮ বা তদূর্ধ্ব শিক্ষার্থীদের টিকার আবেদন শুরু হওয়ায় এ রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়ার আর প্রয়োজন পড়েনি।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে বিভিন্ন অনুষদ, ইনস্টিটিউট, এম. ফিল. ও পিএইচডি শিক্ষার্থীর সংখ্যা সর্বমোট ১৪৫৬৫ জন।

জাককানইবিতে নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা হল চালুর দাবি
                                  

মোছাঃ জান্নাতী বেগম, জাককানইবি প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাককানইবি) নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা দুটি হলের কাজ সম্পন্ন হলেও চালু করার আশ্বাসে কেটে গেছে প্রায় ৪ বছর। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে হল দুটি চালু করার আশ্বাস দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ। তবে ৪২ মাস অতিবাহিত হলেও বাস্তবে দেখা যায়নি কোনো অগ্রগতি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৭ হাজার। বিপরীতে হল রয়েছে ২টি (অগ্নি-বীণা, দোলন-চাঁপা) যেখানে আসন সংখ্যার পরিমাণ ৪ শত ২৮ টি। নির্মাণকাজ সম্পন্ন হওয়া নতুন হলের আসন সংখ্যা প্রায় ৫০০০।

হল দুটি চালু হলে শতকরা ৮০ভাগ শিক্ষার্থীর আবাসন সমস্যার সমাধান হবে বলেও জানা গেছে৷ তবে হল চালুর বিষয়ে বারবার আশ্বাস দেওয়া হলেও কথা রাখতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে। বিগত বছরগুলোর বিভিন্ন সময়ে আবাসন সংকট নিরসন চেয়ে আন্দোলন করেছে শিক্ষার্থীরা। প্রতিবারই উপাচার্যের আশ্বাস পেয়ে আন্দোলন থেকে শিক্ষার্থীরা সরে আসে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের শিক্ষার্থী তাসলিমা জিনিয়া বলেন, আমরা নতুন কোন ক্যালেন্ডারক্যালেন্ডারে যেতে চাই না। ১ নভেম্বরের মধ্যেই আমরা আমাদের নবনির্মিত দুটি হল চালু চাই।  

উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক ফিল্ম এন্ড মিডিয়া বিভাগের শিক্ষার্থী ফাহাদ বিন সাঈদ বলেন, প্রায় ৪ বছর ধরে হল চালুর আশ্বাস দিয়ে আসলেও বস্তুত তা বায়বীয় আলাপ মনে হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা বাইরের বিভিন্ন মেসে থাকছে এবং অনেক শিক্ষার্থী ময়মনসিংহ শহরে অবস্থান করছে যা শিক্ষার্থীদের জন্য নিরাপদ নয়। যার বাস্তব প্রমাণ হলো গত বছর আমাদের বন্ধু তৌহিদের নির্মমভাবে খুন হওয়া। আমরা অনতিবিলম্বে আমাদের নতুন হল দুটি চালু দেখতে চাই নয়তো কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবো।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিব জানান, চলতি বছরে নভেম্বরের আগেই  হল দুটো চালু করে দেওয়া হবে।

হল চালুর বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) ড. হুমায়ুন কবীর বলেন, করোনা মহামারীর কারনে সবকিছুই বন্ধ আছে। হল গুলোর বিভিন্ন সেক্টরে জনবল নিয়োগের চেষ্টা চলছে। সরকারি ছুটি শেষে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পরপরই নতুন হল দুটি খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

স্বাস্থ্যবীমার আওতায় আসতে চায় জবি শিক্ষার্থীরা
                                  

জবি প্রতিনিধি :
প্রতিষ্ঠার প্রায় ১৬ বছর হতে চললেও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের জন্য এখনও স্বাস্থ্যবিমা চালু হয়নি। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবীমার দাবি উঠলেও টনক নড়েনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের। করোনায় অনেক শিক্ষার্থী আক্রান্ত এবং সম্প্রতি কিছু শিক্ষার্থী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলে আবারও প্রশ্ন উঠে ‘স্বাস্থ্যবিমা কবে হবে?’

সম্প্রতি ৯ সেপ্টেম্বর বাংলা বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আল-আমিন লেবু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। কিন্তু টাকার অভাবে চিকিৎসা শুরু করতে পারেনি লেবু। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, লেবুর দুই ভাই ভ্যান চালায়। লেবু অসুস্থ অবস্থায় বাড়িতে টাকা চাইলে তার বাবা পরের দিন ঘুটা (গোবর শুকিয়ে তৈরি জ্বালানি) বিক্রি করে টাকা পাঠাবে এবং তারপর ডাক্তার দেখাবে। কিন্তু সেই সময় আর পায়নি লেবু।

শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী রাহাত আরা রিমি মারা গেছেন ১১ জুলাই। তিনি জ্বর ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত ছিলেন। তার সহপাঠী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রিমি প্রায় এক বছর আগে থেকেই শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন এবং মৃত্যুর কিছুদিন আগে থেকে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট থাকায় কিছুই খেতে পারছিলেন না।

ব্যবস্থাপনা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের (১৩ ব্যাচ) শিক্ষার্থী ইমরান পাভেল নামে এক শিক্ষার্থীর টাইফয়েড জ্বরে মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর। তার বন্ধুদের সূত্রে জানা যায়, টানা ৭ দিন ধরে টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত ছিলো সে। এছাড়াও আগে থেকেই হার্টের সমস্যা ছিলো তার। টিউশনি করার জন্য করোনাকালীন সময়ে ঢাকায় চলে আসে। আর এখান থেকেই টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত হয়।

শিক্ষার্থীদের মতে, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন ব্যবস্থা না থাকায় এবং বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের হওয়ায় যেখানে আবাসন খরচ মেটানো কষ্টকর সেখানে স্বাস্থ্যসেবা অনিশ্চিত। কোনো শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়লে চিন্তায় পড়ে তাদের অভিভাবকরা। কিন্তু স্বাস্থ্যবিমা থাকলে সহজেই তারা তাদের চিকিৎসা করাতে পারবে।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিববর্ষে ৮৫ টাকা বার্ষিক প্রিমিয়ামে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিমার ঘোষণা দেন। এ সুযোগটি এখনও নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয়।

এ বিষয়ে বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী রিপা বলেন, বৃহস্পতিবার আমার বিভাগের আল আমিন ভাই জ্বরে মারা গেলো, টাকার অভাবে চিকিৎসা শুরু করতে পারে নাই। অথচ আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যদি কোনো আর্থিক সহায়তার ব্যবস্থা থাকতো বা স্বাস্থ্যবীমা চালু থাকতো তাহলে আল আমিন ভাইয়ের মতো সকল মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবারের শিক্ষার্থীদের কষ্ট অনেকটাই লাঘব হতো।

ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী রতন জানায়, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে এমনিতেও হল নেই। যার কারণে অধিক খরচ হয়। আর বিশুদ্ধ পানির অভাবে টাইফয়েড, জন্ডিস এসব হওয়ার চান্স অনেক বেশি তারউপর এখন ডেঙ্গুর প্রকোপ। কোনো শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসা খরচ যোগান দেওয়া আমাদের অধিকাংশ পরিবারের সম্ভব হয়ে উঠে না। এসব দিক বিবেচনা করে স্বাস্থ্যবীমা চালু থাকা সবার জন্যই লাভজনক।

স্বাস্থ্যবীমার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মোঃ আইনুল ইসলাম বলেন, আমরা একবার আমাদের শিক্ষকদের সাথে এই বিষয়ে আলোচনা করেছিলাম। কিন্তু ইন্সুইরেন্স যারা করে, তারা নানা প্রতিবন্ধকতা দেখিয়েছিলো। তাই সেই সময়ে কাজটা এগোতে পারে নাই। এটি তো একটি ব্যাপক বিষয়, কতজন বীমায় থাকবে না থাকবে সবকিছু স্টাডি করে এটা করা যেতে পারে।

করোনায় কতজন শিক্ষার্থী আক্রান্ত বা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাহায্য পেয়েছিলেন এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমি তো নতুন দায়িত্ব পেয়েছি। এতদিন ছাত্রকল্যাণ ডিঅর্গানাইজড ছিলো, তাই এটা বলা যাচ্ছে না। এখন আমি এসে এই পরিসংখ্যানটা তৈরি করতেছি।

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের তো শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীদেরই স্বাস্থ্যবীমা নেই। এগুলো চালু থাকা দরকার, এগুলো থাকলে বিপদের সময় কাজে লাগে। কিন্তু অনেকে আবার এসব বিষয়ে ইন্টারেস্টও দেখায় না। কবে ডাক্তার দেখাবো, চিকিৎসা করাবো টাকা দেবো মাসে মাসে? তবে ইন্সুরেন্স তো এভাবেই হয়। বিপদ তো আর বলে আসে না। আমরা চিন্তাভাবনা করতেছি। আমাদের সাধারণ বীমা কর্মসূচি, প্রগতি এদের সাথে কথা বলতেছি। দেখবো কাদের টা নিলে ভালো হয়, তবে চেষ্টা করবো সবার জন্যই নেওয়ার।

উল্লেখ্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সব শিক্ষার্থীকে স্বাস্থ্য বীমার আওতায় আনতে ডিনস কিমিটির এক সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রগতি লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানির সাথে স্বাস্থ্যবীমা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
                                  

জবি প্রতিনিধি :
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের বাংলা বিভাগের মেধাবী শিক্ষার্থী আল আমিন লেবুর মৃত্যুতে বাংলা বিভাগের পক্ষ হতে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। তার রুহের মাগফিরাত কামনায় এই বিশেষ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুম্মার নামাজ শেষে লেবুর রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ এই দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া মাহফিলে বাংলা বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ, সহকারী প্রক্টর ড. মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ মাহফুজ, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। দোয়া মাহফিলে উপস্থিত সকলেই আল-আমিন লেবুর জন্য দুহাত তুলে দোয়া করেন এবং তার রুহের মাগফেরাত কামনা করেন। সেই সাথে তার পরিবারের শোক কাটিয়ে উঠার জন্যও সবাই দোয়া করেন।

উল্লেখ্য, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের মেধাবী শিক্ষার্থী আল আমিন লেবু গত বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) ভোরে মিরপুর ১০ নাম্বারের মেসবাড়িতে প্রচণ্ড অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে পার্শ্ববর্তী আজমল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর আগে তিনি ভীষণ জ্বর, ঠান্ডা ও কাশিতে ভুগছিলেন। পরে লাশ তাঁর গ্রামের বাড়ি বগুড়ার নান্দাইল উপজেলায় দাফন করা হয়।

৭ অক্টোবর থেকে জবিতে সশরীরে সেমিস্টার পরীক্ষা
                                  

জবি প্রতিনিধি :
চলতি বছরের ৭ অক্টোবর থেকে সশরীরে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) প্রশাসন। তবে করোনা সংক্রমণ বেড়ে গেলে পরীক্ষা হবে অনলাইনে। শ্রেণিকক্ষে শুধুমাত্র পরীক্ষা হলেও ক্লাস চলবে অনলাইনে। এ সময় পরিবহন ব্যবস্থা চালু থাকবে।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২ টায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হকের সভাপতিত্বে সকল ডিন, ইনস্টিটিউট এর পরিচালক ও বিভাগের চেয়ারম্যানদের সমন্বয়ে উপাচার্যের কনফারেন্স কক্ষে অনুষ্ঠিত এক বিশেষ সভা এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ৭ অক্টোবর, ২০২১ হতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগ ও ইনস্টিটিউটে সশরীরে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। তবে যদি সার্বিক পরিস্থিতির কারণে সশরীরে পরীক্ষা গ্রহণ করা সম্ভব না হয়, তবে অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। অনুষদের ডিন ও বিভাগের চেয়ারম্যান ও ইনস্টিটিউটের পরিচালকগণ আলোচনাক্রমে পরীক্ষার রুটিন প্রদান করবেন এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক পরীক্ষা গ্রহণ সংক্রান্ত ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের সশরীরে পরীক্ষা গ্রহণের জন্য পরিবহন সুবিধা প্রদান করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. চঞ্চল কুমার বোস বলেন, ‘বৈঠকে আলোচনার বিষয় ছিল পরীক্ষা অনলাইনে না সশরীরে হবে। ৭ অক্টোবর সশরীরে পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদি এর মধ্যে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যায় তাহলে ওই তারিখে অনলাইনে পরীক্ষা হবে।’

দুর্গাপূজার ছুটির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘পূজার ছুটি বাদ রেখে সেভাবে রুটিন করা হবে।’

বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রবীন্দ্রনাথ মন্ডল বলেন, ‘বলা হয়েছিল পরীক্ষা শুরুর চার সপ্তাহ আগে তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে। সে অনুযায়ী আগামী ৭ অক্টোবর আমরা পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করেছি। অর্থাৎ চার সপ্তাহ পর থেকে সবাই পরীক্ষা নিতে পারবে, তার আগে না। বিভাগগুলো সেভাবে রুটিন সাজাবে। ডিনরা তাদের অনুষদের বিভাগগুলোকে সেভাবে রুটিন তৈরির নির্দেশনা দেবেন। শুধুমাত্র যাদের পরীক্ষা তারাই ক্যাম্পাসে আসবেন। তবে ক্যাম্পাসে ক্লাস হবে না, কোনও বিভাগের ক্লাস বাকি থাকলে অনলাইনে নেওয়া হবে।’

পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক বলেন, ‘অফিশিয়ালি আগামী ৭ অক্টোবর থেকে পরীক্ষা নেওয়া শুরু করতে পারবে। স্বাভাবিকভাবে পূজায় পরীক্ষা নেওয়া বন্ধ থাকবে। আর পরীক্ষার সময়সূচি ডিনরা চেয়ারম্যানদের সঙ্গে আলোচনা করে তৈরি করবেন।’

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ, সকল অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউট-এর পরিচালক, রেজিস্ট্রার, বিভাগীয় চেয়ারম্যানবৃন্দ, পরিচালক (ছাত্র-কল্যাণ), প্রক্টর, এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এর আগে সোমবার ৮৫তম সিন্ডিকেট সভায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের নীতিমালা অনুমোদিত হয়।

জবিতে ১৪৮ কোটি ৮৭ লাখ টাকার বাজেট পাস
                                  

জবি প্রতিনিধি :
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০২০-২১ অর্থ বছরের সংশোধিত বাজেট এবং ২০২১-২২ অর্থ বছরের মূল রাজস্ব (অনুন্নয়ন) বাজেট ও অনলাইন পরীক্ষার নীতিমালা পাস হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ ও হিসাব দপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা যায়। এর আগে সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৩:০০ ঘটিকায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক-এর সভাপতিত্বে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮৫তম সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত সিন্ডিকেট সভায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যায়ের ২০২০-২১ অর্থ বছরের সংশোধিত বাজেট ১২৮ কোটি ৬ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা এবং ২০২১-২২ অর্থ বছরের ১৪৮ কোটি ৮৭ লক্ষ টাকার মূল রাজস্ব (অনুন্নয়ন) বাজেট পাস হয়।

উল্লেখযোগ্য খাতের মধ্যে গবেষণা খাতে গত অর্থ বছরের (২০২০-২১ ) বাজেট ২ কোটি টাকা হতে বৃদ্ধি করে ২০২১-২২ অর্থ বছরে ৫ কোটি টাকায় উন্নীত করা হয়েছে।

এছাড়াও মূলধন অনুদান (যন্ত্রপাতি, যানবাহন, তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি, অন্যান্য অনুদান) খাতে ৮ কোটি ৪৬ লক্ষ, আবর্তক অনুদান (শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীদের বেতন ও ভাতাদি) খাতে ৯৮ কোটি ৩৭ লক্ষ টাকা, পন্য ও সেবা সহায়তা খাতে ৩২ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা, পেনশন ও অবসর সুবিধা খাতে ২ কোটি ৩০ লক্ষ টাকা, অন্যান্য অনুদান খাতে ১ কোটি ৮৪ লক্ষ টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়া অদ্য ৮৫তম সিন্ডিকেট সভায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণ সংক্রান্ত নীতিমালা অনুমোদিত হয়। মঙ্গলবার অনুষদের ডিন ও বিভাগের চেয়ারম্যানদের সাথে আলোচনা সভার মাধ্যমে পরীক্ষার তারিখ ও অন্যান্য বিষয়াদি চূড়ান্ত করা হবে।

সিন্ডিকেট সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ, অন্যান্য সদস্যবৃন্দ ও সচিব রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও কয়েকজন সিন্ডিকেট সদস্য অনলাইন প্লাটফরমের মাধ্যমে সিন্ডিকেট সভায় সংযুক্ত ছিলেন।

উল্লেখ্য, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ অর্থ বছরে ১৫৭ কোটি ৮০ লাখ টাকার রাজস্ব বাজেট পাস করা হয়।

কুবি প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটি গঠন
                                  

কুবি প্রতিনিধি :

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের ২০২১-২২ বর্ষের জন্য ৯ সদস্যবিশিষ্ট কার্যনির্বাহী পরিষদের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে সভাপতি হিসেবে মনোনীত হয়েছেন আজকের পত্রিকার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সাজ্জাদ বাসার ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন দৈনিক আমাদের সময়ের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সাফায়িত সিফাত।

রোববার (০৫ সেপ্টেম্বর) রাতে সংগঠনটির বিদায়ী সভাপতি মাহফুজ কিশোর ও সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার খান নোবেল এই কমিটির অনুমোদন দেন। যৌথভাবে এই কমিটি ঘোষণা করেন সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাকালীন আহবায়ক শতাব্দী জুবায়ের ও সদস্য সচিব নাহিদ ইকবাল।

কমিটিতে অন্যান্যদের মধ্যে রয়েছেন- সহ সভাপতি ডেইলি এশিয়ান এইজের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি তানভীর আহমেদ রাসেল, যুগ্ম সম্পাদক সময় টিভির (ইন্টার্ণ) রিদওয়ান ইসলাম, অর্থ সম্পাদক বাংলা ভিশনের মাহমুদুল হাসান, দপ্তর সম্পাদক দৈনিক স্বাধীন বাংলা’র ইকবাল হাসান, তথ্য ও পাঠাগার সম্পাদক দৈনিক ঢাকা টাইমসের রাকিবুল হাসান।
 
এছাড়াও কার্যকরী সদস্যের দুটি পদে মনোনয়ন পেয়েছেন যথাক্রমে দৈনিক ভোরের দর্পণের কাতিব হাসান মুরাদ ও দৈনিক ভোরের ডাকের সুবর্ণা মোস্তফা।

উল্লেখ্য, নবগঠিত কার্যনির্বাহী পরিষদ আগামী এক বছর দায়িত্ব পালন করবে। এটি সংগঠনটির ৩য় কার্যনির্বাহী পরিষদ। ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল `সর্বদা সত্যের সন্ধানে` স্লোগান নিয়ে যাত্রা শুরু করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাব৷

জবিতে ‘বিজ্ঞান ও প্রকৌশলে গণিতের প্রয়োগ’ শীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত
                                  

জবি প্রতিনিধি :
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) গণিত বিভাগের উদ্যোগে ‘অ্যাপ্লিকেশনস অব ম্যাথমেটিকস ইন সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং’ শীর্ষক একটি ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর ৩ টায় অনলাইন প্লাটফর্ম জুম মিটিং এ ওয়েবিনারটি অনুষ্ঠিত হয়। ওয়েবিনারটি উপস্থাপনা করেন সহযোগী অধ্যাপক ড. মোস্তাক আহমেদ।

ওয়েবিনারে মূল গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. শরাবান তোহুরা। তার গবেষণার বিষয়বস্তু ছিল স্কিউড ক্যাভিটিতে নন-নিউটোনিয়ান ফ্লুইডের ফ্লো ও হিট ট্রান্সফারের প্রভাব।

উক্ত ওয়েবিনারে সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. শরিফুল আলম। চেয়ারম্যান তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে, এ ধরনের ওয়েবিনার আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিভাগের শিক্ষকবৃন্দের গবেষণা ফলাফল এবং অনার্স প্রথম বর্ষ থেকে শেষ বর্ষ পর্যন্ত বিভিন্ন কোর্সের বিষয় বস্তুগুলোর বাস্তব জীবনে প্রয়োগ সম্পর্কে সকলে অবহিত ও উচ্চতর গবেষণায় অনুপ্রাণিত করবে।

তিনি আরও বলেন, তার সময়কালে এ ধরনের সেমিনার আয়োজনে ভবিষ্যতে সব ধরনের প্রয়োজনীয় সহযোগীতা দিয়ে যাবেন।

অনুষ্ঠানের সেশন চেয়ার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উক্ত ওয়েবিনার কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. মোঃ সরোয়ার আলম। তিনি বলেন, বিজ্ঞান ও প্রকৌশলের প্রসারে গণিতই মূল উপকরণ। গবেষণাকে উৎসাহিত করার অংশ হিসেবে আজকের এই ওয়েবিনারের আয়োজন এবং ভবিষ্যতেও এ ধরনের সেমিনার অব্যাহত থাকবে।

এছাড়াও ওয়েবিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী উম্মে সালমা ও আশিক চন্দ্র দাস তাদের গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

ওয়েবিনারে গণিত বিভাগের সকল শিক্ষকবৃন্দ এবং বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও দেশী ও বিদেশী কয়েকজন গবেষক ওয়েবিনারটিতে যুক্ত ছিলেন।

বন্ধ ক্যাম্পাসে কুবি প্রশাসনের ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ, ক্ষোভ শিক্ষার্থীদের
                                  

কুবি প্রতিনিধি:
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের(কুবি) বিভিন্ন বিভাগ ও হলসমূহে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ এবং শিক্ষার্থীরা যেখানে বারবার পরীক্ষা দিতে এসেও করোনার জন্য ব্যর্থ হয়ে ফিরে যাচ্ছে সেখানে এসব ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণকে ভালো চোখে দেখছে না বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী তৌহিদ সানি এ বিষয়ে বলেন, ‘মেধা মননের বিকাশে খেলাধুলার বিকল্প নেই, পূর্বে সেই লক্ষ্যে সবার দাবী ছিল বিভাগ ও হলগুলোতে ক্রীড়া সামগ্রী প্রদানের। আজ দেখলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগ, হল গুলোকে ক্রীড়া সামগ্রী দিচ্ছে প্রশাসন। প্রশ্ন হচ্ছে ক্যাম্পাস বন্ধ, শিক্ষার্থী নেই এই ক্রীড়া সামগ্রী দিয়ে কি ভূত খেলবে? কার সার্থে এই সিদ্ধান্ত আমার বোধগম্য নয়। অথচ এই মুহুর্তে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন ছিল ক্যাম্পাস খুলে দিয়ে দ্রুত কিভাবে সব ব্যাচের পরীক্ষা নেয়া যায় সেদিকে চিন্তা করা। কিন্তু সেদিকে গা ছাড়া ভাব দেখিয়ে বন্ধ ক্যাম্পাসে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে! তাহলে কী বলা যায় প্রশাসনের নেয়া প্রত্যেকটি সিদ্ধান্ত শিক্ষার্থীদের স্বার্থ বিরোধী??’

২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের আরেক শিক্ষার্থী আল আমিন বলেন, করোনাকালীন বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ছিলো শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইনে ক্লাস-পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ইন্টারনেটের ব্যবস্থা করা। কিন্তু তা না করে প্রশাসন বন্ধ ক্যাম্পাসে দিচ্ছে ক্রীড়া সামগ্রী।

জানা যায়, মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফারেন্স কক্ষে ক্রীড়া পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো: শামিমুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা বিভাগের উপ-পরিচালক মনিরুল আলমের সঞ্চালনায় এসব ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী।

ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে  উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী বলেন, ‘প্রশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের বিনোদন ও খেলাধুলার প্রয়োজন রয়েছে। শিক্ষার্থীদের জন্য আগামীতে আরো ভাল কাজ হবে। ইতোমধ্যে নতুন প্রজেক্টের কাজ শুরু হয়েছে এবং কাজ শেষ হওয়ার পর অবশ্যই শিক্ষার্থীরা আরো বেশি সুযোগ সুবিধার আওতায় আসবে।’

প্রসঙ্গত, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়া পরিচালনা কমিটির উদ্যোগে শারীরিক শিক্ষা বিভাগের আওতায় দেওয়া এসব সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগের জন্য ফুটবল, ভলিবল, দাবা এবং ৪টি হলের জন্য ফুটবল, ভলিবল, দাবা, ব্যাডমিন্টন র‌্যাকেট, স্ট্যান্ডসহ ক্যারাম বোর্ড ও টেবিল টেনিস বোর্ড।

অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে জবি শিক্ষার্থীদের স্বারকলিপি
                                  

জবি প্রতিনিধি :
করোনা মহামারীতে আটকে থাকা সেমিস্টার পরীক্ষাগুলো সেপ্টেম্বরের মধ্যে অনলাইনে নেওয়ার দাবিতে স্বারকলিপি প্রদান করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীরা। দ্রুত অনলাইনে পরীক্ষার নেয়ার ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়ে এ স্মারকলিপি জমা দেয়া হয়।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. কামালউদ্দিন আহমদ বরাবর স্মারকলিপি পাঠানো হয়েছে। স্মারকলিপি জমা দেয়ার সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

স্বারকলিপিতে বলা হয়, গত বছর মার্চ মাস ২০২০ সাল থেকে এখন আগষ্ট মাস ২০২১ সাল অবধি দীর্ঘ ১৭ মাস করোনা মহামারী লকডাউনে বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্ধ রয়েছে। ইতিমধ্যে, আমরা অনলাইনে ২টি সেমিস্টার পরীক্ষার ক্লাস, মিডটার্ম পরীক্ষা, এসাইনমেন্ট, ভাইবাও সম্পন্ন করেছি। কিছুদিন আগে জবি শিক্ষার্থীদের একটি জরিপে দেখা যায়, প্রায় ৭৬ শতাংশ জবি শিক্ষার্থী অনলাইনে সেমিস্টার পরীক্ষা দিতে সম্মতি প্রকাশ করেছে।

আরো বলা হয়েছে, এমতাবস্থায় শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা ও সেশনজটের কথা বিবেচনা করে আমাদের অনলাইনে সেমিস্টার পরীক্ষা নেয়ার সুযোগ করে দেয়া হোক।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. কামালউদ্দিন আহমদ শিক্ষার্থীদের বলেন, আমি এ ব্যাপারে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিবো এবং পরীক্ষা নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ নেবো।

উল্লেখ্য, করোনা মহামারীতে গত বছরের মার্চ মাস থেকে ২০২১ সালের আগস্ট মাস পর্যন্ত দীর্ঘ ১৭ মাস  সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। সেই ধারাবাহিকতায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৪ তম একাডেমিক কাউন্সিলের মিটিংয়ে ১০ আগস্ট অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হলেও তা বাস্তবায়িত হয়নি। মঙ্গলবার ৫৫ তম একাডেমিক কাউন্সিলের মিটিংয়ে পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা রয়েছে।

ইবিতে ‘কর্পোরেট টক’ শীর্ষক ওয়েবিনার
                                  

ইবি প্রতিনিধি :
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ‘কর্পোরেট টক’ শীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার রাতে অনলাইনে এর আয়োজন করে ইবি ক্যারিয়ার ক্লাব। ক্লাবের উদ্যোক্তা বিষয়ক সম্পাদক আরোশি আঁখির সঞ্চালনায় ওয়েবিনারে উপস্থিত ছিলেন ইবির সাবেক শিক্ষার্থী ও  এএনএইচ এন্টারপ্রাইজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোকাদ্দেস হানিফ টলিন।

এ সময় তিনি বলেন, পৃথিবী প্রতিনিয়ত পরিবর্তিত হচ্ছে। এজন্য সকল পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। পরিশ্রম ও সুপরিকল্পনার মাধ্যমে অন্যদের থেকে এগিয়ে থাকতে হবে। কোন পরিস্থিতিতেই হাল ছেড়ে দেয়া যাবে না। লেগে থাকলে সফলতা অবশ্যই আসবে। জীবন সংগ্রামে এগিয়ে থাকতে হলে সময় নষ্ট করলে হবে না। নিজেকে সর্বদা প্রস্তুত করতে হবে। আপনার আগ্রহের জায়গাটি খুঁজে বের করে সেই অনুযায়ী কাজ করতে হবে।

উল্লেখ্য, ‘ফার্স্ট ডিজার্ভ দেন ডিজায়্যার’ স্লোগানকে সামনে রেখে ২০২০ সালের ১৭ অক্টোবর প্রতিষ্ঠিত হয় ইবি ক্যারিয়ার ক্লাব। প্রতিষ্ঠার পর থেকে শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার বিষয়ক সচেতনতা ও সার্বিক সহযোগিতার লক্ষ্যে নিয়মিত নানা ইভেন্টেন আয়োজন করছে ক্লাবটি।

কুবিতে ৯ সেপ্টেম্বর থেকে স্নাতকোত্তরের পরীক্ষা শুরু
                                  

কুবি প্রতিনিধি:
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) আগামী ৯ সেপ্টেম্বর (বৃহষ্পতিবার) থেকে সশরীরে পরীক্ষা নেওয়া শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় পরীক্ষা কমিটি। রোববার (২৯ আগস্ট) বিকালে পরীক্ষা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নুরুল করীম চৌধুরী বলেন, ৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুধুমাত্র স্নাতকোত্তরের পরীক্ষা শুরু হবে প্রতিটি ফ্যাকাল্টিতে। পরীক্ষাগুলো প্রতিটি ফ্যাকাল্টিতে সকালে একটা, বিকেলে একটা করে নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, অন্যান্য ব্যাচের পরিক্ষার্থীদের জন্য একাডেমিক কাউন্সিলরদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি রয়েছে। আর স্নাতকোত্তরের যে সিদ্ধান্ত হয়েছে সেটি শুরু হলে আবার আমরা বসবো। সেখানে স্নাতক চূড়ান্ত বর্ষে  যারা আছে, তাদের পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

এর আগে একইদিন সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় প্রথমে শুধুমাত্র স্নাতকোত্তরের পরীক্ষা দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে সশরীরে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।


   Page 1 of 51
     শিক্ষা
শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে আন্দোলন শিথিলের ঘোষণা রবি’র শিক্ষার্থীদের
.............................................................................................
জাবির আবাসিক হল খুলবে ২১ অক্টোবর
.............................................................................................
ইবিতে ৬ বিভাগে নতুন সভাপতি
.............................................................................................
জবিতে বসছে আরও ২২টি সিসিটিভি ক্যামেরা
.............................................................................................
টিকা: এনআইডিবিহীন শিক্ষার্থীদের জন্মনিবন্ধন চেয়েছে জবি
.............................................................................................
জাককানইবিতে নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা হল চালুর দাবি
.............................................................................................
স্বাস্থ্যবীমার আওতায় আসতে চায় জবি শিক্ষার্থীরা
.............................................................................................
জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
৭ অক্টোবর থেকে জবিতে সশরীরে সেমিস্টার পরীক্ষা
.............................................................................................
জবিতে ১৪৮ কোটি ৮৭ লাখ টাকার বাজেট পাস
.............................................................................................
কুবি প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটি গঠন
.............................................................................................
জবিতে ‘বিজ্ঞান ও প্রকৌশলে গণিতের প্রয়োগ’ শীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
বন্ধ ক্যাম্পাসে কুবি প্রশাসনের ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ, ক্ষোভ শিক্ষার্থীদের
.............................................................................................
অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে জবি শিক্ষার্থীদের স্বারকলিপি
.............................................................................................
ইবিতে ‘কর্পোরেট টক’ শীর্ষক ওয়েবিনার
.............................................................................................
কুবিতে ৯ সেপ্টেম্বর থেকে স্নাতকোত্তরের পরীক্ষা শুরু
.............................................................................................
কেবল স্নাতকোত্তর দিয়ে সশরীরে পরীক্ষার সিদ্ধান্ত; শিক্ষার্থীদের বিরূপ প্রতিক্রিয়া
.............................................................................................
দৃশ্যমান উন্নয়নে শবিপ্রবির গত চার বছরের চিত্র
.............................................................................................
৯ মাসেও অপারেটরদের সাথে চুক্তি চূড়ান্ত করতে পারেনি কুবি প্রশাসন
.............................................................................................
শোক দিবসকে ঘিরে নোবিপ্রবিতে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা
.............................................................................................
২১ আগস্টে ষড়যন্ত্রকারীদের বিচারের দাবীতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল
.............................................................................................
দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব গ্রহণ করলেন শাবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন
.............................................................................................
শাবিপ্রবির সিন্ডিকেটে যুক্ত হলেন জাফরিন ও অধ্যাপক মোস্তাক
.............................................................................................
বাদ পড়া ও ভুলতথ্য দেয়াদের এনআইডি চেয়েছে শাবিপ্রবি
.............................................................................................
টিকা নিশ্চিতে জবিতে ফের তথ্য গ্রহণ শুরু
.............................................................................................
৯৩৯ শিক্ষার্থীকে ৪৫ লক্ষ টাকা বৃত্তি দিলো জবি
.............................................................................................
শাবিপ্রবির ‘বার্ষিক প্রতিবেদন ২০১৯-২০’র মোড়ক উন্মোচন
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু কখনো অন্যায়ের সাথে আপোস করেননি: জবি উপাচার্য
.............................................................................................
শাবিতে যথাযথ মর্দাযায় জাতীয় শোক দিবস পালিত
.............................................................................................
সাবেক এমপি ও বিএনপি নেতা শওকত চৌধুরী গ্রেফতার
.............................................................................................
শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে জবির শ্রদ্ধাঞ্জলি
.............................................................................................
কুবিতে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা তরুণ কলাম লেখক ফোরামের
.............................................................................................
শোকাবহ আগস্ট স্মরণে জাককানইবি শিক্ষক সমিতির অনলাইন আলোচনা সভা
.............................................................................................
ইরাসমাস মুন্ডুস স্কলারশিপে বিদেশ যাচ্ছেন শাবিপ্রবির ১১ শিক্ষক-শিক্ষার্থী
.............................................................................................
নোবিপ্রবির সোশ্যাল সায়েন্স ফ্যাকাল্টির নতুন ডিন ড. দিব্যদ্যুতি
.............................................................................................
শাবিপ্রবি এবার যেতে পারবে নাসায়? রেজিস্ট্রেশন শুরু
.............................................................................................
জাককানইবিতে হাল্ট প্রাইজের কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা
.............................................................................................
বুধবার খুলছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়
.............................................................................................
বুধবার থেকে শাবিপ্রবির অফিস খোলা
.............................................................................................
স্বল্প পরিসরে পিইসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা
.............................................................................................
অনলাইনে পরীক্ষা নিয়ে যা বললেন কুবি রেজিস্ট্রার
.............................................................................................
উদ্বোধনের ১০ মাসেও চুড়ান্ত হয়নি জবি ছাত্রীহলের নীতিমালা
.............................................................................................
ভ্যাকসিনের আওতায় আসছে শাবির ৮২০২ শিক্ষার্থী
.............................................................................................
তরুণ লেখক ফোরাম ঢাবি শাখার নেতৃত্বে ফারাবী-আমজাদ
.............................................................................................
ইবির বঙ্গবন্ধু পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ড. জাহাঙ্গীর
.............................................................................................
কুবিতে ‘ল’ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু
.............................................................................................
জবি প্রক্টরের মেয়াদ বাড়লো
.............................................................................................
শাবি মেডিকেল সেন্টারের এ্যাম্বুলেন্স সেবা পাচ্ছে ২৬ শতাংশ রোগী
.............................................................................................
শাবিতে ‘থিয়েটার সাস্ট’ এর আহ্বায়ক কমিটি গঠন
.............................................................................................
নোবিপ্রবির দুই তৃতীয়াংশ শিক্ষার্থীর মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি: গবেষণা
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT