শুক্রবার, ২২ অক্টোবর 2021 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   সিলেট -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
সিলেটের ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী সাইফুল ঢাকায় গ্রেফতার

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি :
সিলেটের বিশ্বনাথে চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্র সুমেল ও কৃষক ছরকুম আলী দয়াল হত্যা মামলার প্রধান আসামি ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী সাইফুল আলম অবশেষে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর সেগুনবাগিচা কাঁচাবাজার এলাকার নাভানা টাওয়ারের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করে রমনা থানা পুলিশ। সন্ত্রাসী সাইফুলের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রমনা থানার অপারেশন অফিসার ফজলুর রহমান।

এদিকে খুনি সাইফুলের গ্রেফতারের খবরে সিলেট ও যুক্তরাজ্যে আনন্দে মিষ্টি বিতরণ চলছে। ডাবল মার্ডারের পর আসামির গ্রেফতার না হওয়ায় সিলেট তথা বিশ^নাথের মানুষের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে সাধারণ মানুষের বিক্ষোভ প্রতিবাদে উত্তাল ছিল সমগ্র সিলেট। অবশেষে সেই সাইফুলের গ্রেফতার খবর শুনে জনমনে স্বস্তি বিরাজ করছে।

প্রসঙ্গ, চাউলধনী হাওরের ভুয়া লীজ গ্রহীতাদের সাথে ২৫ গ্রামের কৃষকদের বিরোধের জেরে গত ২৮ জানুয়ারী সাইফুলের গুলিতে নিহত হন কৃষক ছরকুম আলী দয়াল। এরপর গত পহেলা মে সে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করে স্কুলছাত্র সুমেলকে।

সিলেটের ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী সাইফুল ঢাকায় গ্রেফতার
                                  

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি :
সিলেটের বিশ্বনাথে চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্র সুমেল ও কৃষক ছরকুম আলী দয়াল হত্যা মামলার প্রধান আসামি ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী সাইফুল আলম অবশেষে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর সেগুনবাগিচা কাঁচাবাজার এলাকার নাভানা টাওয়ারের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করে রমনা থানা পুলিশ। সন্ত্রাসী সাইফুলের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রমনা থানার অপারেশন অফিসার ফজলুর রহমান।

এদিকে খুনি সাইফুলের গ্রেফতারের খবরে সিলেট ও যুক্তরাজ্যে আনন্দে মিষ্টি বিতরণ চলছে। ডাবল মার্ডারের পর আসামির গ্রেফতার না হওয়ায় সিলেট তথা বিশ^নাথের মানুষের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে সাধারণ মানুষের বিক্ষোভ প্রতিবাদে উত্তাল ছিল সমগ্র সিলেট। অবশেষে সেই সাইফুলের গ্রেফতার খবর শুনে জনমনে স্বস্তি বিরাজ করছে।

প্রসঙ্গ, চাউলধনী হাওরের ভুয়া লীজ গ্রহীতাদের সাথে ২৫ গ্রামের কৃষকদের বিরোধের জেরে গত ২৮ জানুয়ারী সাইফুলের গুলিতে নিহত হন কৃষক ছরকুম আলী দয়াল। এরপর গত পহেলা মে সে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করে স্কুলছাত্র সুমেলকে।

বেড়িবাঁধ কেটে লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন
                                  

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে সরকারিভাবে নির্মিত নলুয়ার হাওরের ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধ কেটে ইজারাকৃত জলমহাল রকম ফিসারির লক্ষাধিক টাকার পোনা মাছ নিধনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় প্রতিবাদকারী আহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে জগন্নাথপুর উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের বেতাউকা গ্রাম এলাকায়। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় বড় ধরনের সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার চিলাউড়া সমধল গ্রামের মৃত হরিচরণ বিশ্বাসের ছেলে মিলন বিশ্বাস বাদী হয়ে দিরাই উপজেলার টংগর গ্রামের মৃত নওশাদ মিয়ার ছেলে সাদ্দাম হোসেন, জুয়েল মিয়া, একই গ্রামের মৃত সিরাজুল হকের ছেলে গোলাম হোসেন ও মজমদর আলীর ছেলে মুনাইম মিয়া সহ গং আরো ৭/৮ জনকে বিবাদী করে জগন্নাথপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। একই অভিযোগ পৃথকভাবে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে দায়ের করা হয়। যার অনুলিপি উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কাছে প্রদান করা হয়েছে।

এতে উল্লেখ করা হয়, বিবাদীগণ অত্যান্ত উগ্র, দাঙ্গাবাজ, পরধনলোভী, অনিষ্টকারী, দুর্দান্ত সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। বিবাদীগণ বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে অপকর্ম ও অত্যাচার করে আসছে। তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ। গত ২০ অক্টোবর রাত ৯ টার দিকে বিবাদীগণ বেড়িবাধ কেটে সমধল মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির ইজারাকৃত গাদিয়ালা গ্রুপ ফিসারির পানি ছেড়ে দিয়ে বিভিন্ন জাতের জাল দিয়ে লক্ষাধিক টাকার পোনা মাছ নিধন করেছে। এতে প্রতিবাদ করায় বাদীকে মারপিট করা হয়।
 
এদিকে-অভিযোগের আলোকে ২১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার জগন্নাথপুর থানার এসআই মির্জা সাফায়েত হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। স্থানীয়রা জানান, বর্তমানে কেটে দেয়া বেড়িবাধের প্রায় ৫০ থেকে ৬০ ফুট এরিয়া নিয়ে গভীর ভাঙনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সমধল মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির পক্ষ থেকে বাঁশের আড় দেয়া হয়েছে।



নোয়াখালীতে ১৮ মামলায় আসামী ৫ হাজার, গ্রেফতার ৯০
                                  

নোয়াখালী প্রতিনিধি:
কুমিল্লায় পবিত্র কোরআন শরীফ আবমাননার জের ধরে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ, মন্দির ও পূজা মন্ডপে হামলা ঘটনায় মোট ১৮টি মামলা হয়েছে। এ মামলা গুলোতে এজাহার নামীয় আসামি রয়েছে মোট ২৮৫ জন। অজ্ঞাত পরিচয় আসামি রয়েছে মোট ৪ থেকে ৫ হাজার।

নোয়াখালী পুলিশ সুপর (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, এ মামলা গুলোতে এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়েছে ৯০ জনকে। দায়ের করা মামলার মধ্যে  ১০টি মামলার মামলার বাদী পুলিশ। বাকি ৬টি মামলার বাদী ক্ষতিগ্রস্থ মন্ডপ পূজা কমিটির সদস্য, একটি পূজার ঘরের মালিক, একজন ইসকন মন্দিরের অধ্যক্ষ।
 
উল্লেখ্য, নোয়াখালীর প্রধান বাণিজ্যিক কেন্দ্র বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনীতে গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর  কুমিল্লায় পবিত্র কোরআন শরিফ অবমাননার প্রতিবাদে বিভিন্ন মসজিদ থেকে শত শত মুসল্লি চৌমুহনী শহরের কাছারি বাড়ির মসজিদ এলাকার মূল সড়কে জড়ো হন। এরপর বিশাল মিছিল বের করা হয়। একপর্যায়ে মিছিল থেকে শহরের প্রধান সড়কের উত্তর পাশের শ্রীকৃষ্ণ মিষ্টান্ন ভান্ডার, রামকৃষ্ণ মিষ্টান্ন ভান্ডারসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের দোকানের সাইনবোর্ড দেখে দেখে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয়। মিছিলকারীরা শহরের কলেজ রোডে ঢুকে আশপাশের অনেক দোকানে এবং রামঠাকুর আশ্রম, রাধা মাধব জিওর মন্দির, ইসকন মন্দিরসহ প্রায় সব মন্দিরে হামলা, ভাঙচুর চালান। এ সময় অগ্নিসংযোগের ঘটনাও ঘটে। এ ছাড়া বাড়িঘর লক্ষ্য করে প্রচুর ইটপাটকেল ছোড়া হয়। বিক্ষোভকারীরা মন্দিরের সামনে ও আশপাশে থাকা হিন্দুদের পিটিয়ে আহত করেন। এ ঘটনায় চৌমুহনী ইসকন মন্দিরে থাকা যতন সাহা (৪২) অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিকভাবে তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় রাবেয়া প্রাইভেট হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বেলা দুইটা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত হামলা-ভাঙচুরের তাণ্ডব চললেও তাৎক্ষণিক ওই সময় প্রশাসন কিছুই করতে পারেনি।

হাসপাতাল রোগী আছে, নেই ডাক্তার ও সেবা!
                                  

বিশ্বনাথ সিলেট প্রতিনিধি :
গরিব অসহায়দের চিকিৎসা সেবার একমাত্র ভরসাস্থল সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। সেই ভরসাস্থলেও সঠিক সেবা নেই অসহায় রোগীদের। সেবার পরিবর্তে নানা ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে শিশু-কিশোর, মহিলা ও বয়োবৃদ্ধ রোগীদের।

বর্তমানে ডায়রিয়া, জ্বর ও সর্দি-কাশি রোগে শিশুরা বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। তাই চিকিৎসার জন্য অসহায় এসব রোগী চলে যায় ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। কিন্তু হাসপাতালে যাবার পর ভাগ্য ভালো হলে দেখা মিলে ডাক্তারের। সেখানে গিয়ে চিকিৎসার পরিবর্তে হতে হচ্ছে হয়রানি। এসব ভুক্তভোগী রোগীকে জরুরি বিভাগ থেকে ভর্তি দিয়েই কর্তব্যরত চিকিৎসকদের যেন দায়িত্ব শেষ।

রোগীদের সঠিক চিকিৎসা না দিয়ে রাজার হালে এ হাসপাতালে চাকরি করছেন কর্মকর্তারা; স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ নিত্যদিনের।

গত ২০১৮ সালে সরকার মানুষের চিকিৎসাসেবার জন্য ৩১ শয্যার এ হাসপাতালকে প্রায় ২৯ কোটি টাকা ব্যয় করে ৫০ শয্যায় উত্তীর্ণ করা হয়। কিন্তু সেখানে সেবাবঞ্চিত হচ্ছেন অসহায় মানুষ। এ হাসপাতালে ডাক্তার আছে, রোগীও আছে- নেই শুধু চিকিৎসাসেবা।
বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায়, ওয়ার্ডে শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সী ৮ থেকে ১০ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে শিশু রোগীর সংখ্যাই বেশি।

উপজেলার আমতৈল গ্রামের আম্বর আলীর স্ত্রী সুমনা বেগম, মকদ্দুছ আলীর স্ত্রী খায়রুন নেছা, ধলিপাড়া গ্রামের রিমা বেগমসহ ৩-৪ জনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গত ৩/৪ দিন থেকে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত ওয়ার্ডে কোনো ডাক্তারের দেখা মিলেনি। ওয়ার্ডে নামমাত্র একজন নার্স আছেন। ইনজেকশন দিতে হলে রোগী নিয়ে ওই নার্সের কাছে যেতে হয়। তাছাড়া ডাক্তার দেখাতে হলে দু’তলা থেকে শিশুদের কোলে করে নিয়ে নিচতলায় যেতে হয়। তাও ভাগ্য ভালো হলে ডাক্তারের দেখা মিলে। কারণ ওই কমপ্লেক্সের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ডাক্তার প্রাইভেট চেম্বার নিয়ে ব্যস্ত থাকেন।

নিদিষ্ট ডিউটি সময়ে এই প্রতিবেদক সরাসরি হাসপাতালে অবস্থান করলে কোন কর্তব্যরত সরকারী ডাক্তারের দেখা পাননি। পুরাতন রোগী পরিচয়ে উক্ত হাসপাতালের আবাসিক এক ডাক্তারকে মুটোফোনে নক করলে তিনি বলেন, বিশ্বনাথের একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে প্রাইভেট চেম্বারে তাঁর সাথে সাক্ষাত করতে।

এভাবেই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি থাকা জ্বর, সর্দি, কাশি, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া ও শ্বাষকষ্টের রোগীরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। সাংবাদিকরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেলে রোগীরা ভিড় করে এমন অভিযোগ তুলে ধরেন।

এমন অভিযোগের বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আব্দুর রহমানের সঙ্গে কথা হলে তিনি প্রথমে রেগে যান। এরপর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের আবাসিক চিকিৎসক ডা. ইয়াছিন আরাফাতের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেন। বিষয়টি তার কাছ থেকে জানার পর তাকে বলেন, এমন অভিযোগ যেন আর শুনতে না হয়। প্রতিদিন যেন ওয়ার্ডে একজন ডাক্তার যান।

এছাড়া উক্ত হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের জন্য বরাদ্দকৃত পচা ভাসি খাদ্য, নাস্তা সরবরাহ করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

দিরাইয়ে প্রয়াত আ.লীগ নেতৃবৃন্দের স্মরণে শোকসভা
                                  

দিরাই প্রতিনিধি :
সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আছাব উদ্দিন সরদার, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক হাবিবুর রহমান তালুকদার, দপ্তর সম্পাদক বিকাশ রায়, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ছাদিকুর রহমান ছাও মিয়া, আইদুল্লাহ মিয়া, সাধারণ সম্পাদক জালাল মিয়াসহ সদ্য প্রয়াত নেতাদের স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে শনিবার দুপুরে দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে এ শোকসভার আয়োজন করা হয়।

দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট সোহেল আহমদের সভাপতিত্বে ও দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায়ের পরিচালনায় শোকসভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হন দিরাই-শাল্লার সাংসদ ড. জয়া সেন গুপ্তা এম.পি ও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিউর রহমান।

প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এনামুল কবির ইমন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নান্টু রায়, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হায়দার চৌধুরী লিটন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুর রহমান সিরাজ।

বক্তারা বলেন, আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কৃতরা দিরাইয়ে বিএনপি জামায়াতের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে। তারা পরিকল্পনামন্ত্রীর সমালোচনা করে বলেন, আপনি সরকারের মন্ত্রী হয়ে আওয়মীলীগের ক্ষতি করছেন কেন। দিরাই-শাল্লার নির্বাচিত সংসদ সদস্যকে পাশ কাটিয়ে আওয়ামী লীগে ফাটল ধরিয়ে আপনার কি লাভ। তারা এ বিষয়ে প্রধান মন্ত্রীর দৃষ্টি কামনা করেন। আগামী কালকের শোক সভা আয়োজকদের তারা আহ্বান জানান আওয়ামীলীগে ছায়াতলে এসে শোকসভা পালন করুন।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আলতাফ উদ্দিন, দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি সিরাজ উদ দৌলা, দিরাই উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান তালুকদার, বিশ্বম্ভপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী,দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট অভিরাম তালুকদার, দিরাই পৌরসভার মেয়র বিশ্বজিৎ রায়,দিরাই উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান এডভোকেট রিপা সিনহা, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক হুমায়ুন রশিদ লাভলু, শাহজাহান সরদার, কামরুল ইসলাম, জুয়েল মিয়া, কফিল উদ্দিন, পারভেজ রহমান, রাজিব রায়, সজিব মিয়া। শোক প্রস্তাব পাঠ করেন দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান এওর মিয়া।

আছাব উদ্দিন সরদারের পরিবারের পক্ষে বক্তব্য রাখেন তাহের সরদার, হাবিবুর রহমান তালুকদারের পরিবারের পক্ষে বক্তব্য রাখেন তন্ময় তালুকদার, আবদুল্লাহ মিয়ার পরিবারের পক্ষে বক্তব্য রাখেন আঙ্গুর মিয়া, কোরআন তিলাওয়াত করেন দিরাই থানা মসজিদের ইমাম, গিতা পাঠ করেন নিখিল চক্রবর্তী।

সিলেটে ভুয়া কাবিনে বিয়ে; প্রতারক স্বামী গ্রেফতার
                                  

স্টাফ রির্পোটার:
সিলেট নগরীতে জাল কাবিন তৈরি করে এক নারীকে বিয়ে করে ৫ বছর সংসার করে স্ত্রীর মর্যাদা না দিয়ে বিদেশে পালানোর সময় পুলিশের হাতে ধরা পড়েন স্বামীরূপী এক  প্রতারক। গ্রেফতারকৃত ওই প্রতারক হলো তাজ উদ্দিন রনি (৪০)। সে গোলাপগঞ্জ উপজেলার চন্দরবাজার এলাকার কালিঢহর গ্রামের হাজি নুরুল হকের ছেলে। তিনি এখন নগরীর এয়ারপোর্ট থানাধীন চৌকিদেখি এলাকার আঙ্গুর মিয়া গলির একটি বাসায় প্রথম স্ত্রী এবং সন্তানসহ বসবাস করেন। রনি পেশায় একজন চাল ব্যবসায়ী।

পুলিশ ও ভিকটিমের বর্ণনা সূত্রে জানা গেছে, প্রথম স্ত্রী ও ৩ সন্তানের কথা গোপন করে ২০১৭ সালে নগরীর মঝুমদারী এলাকার বাসিন্দা সুলতানা আক্তার লুবনার (৩২) সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেন বিবাহিত তাজ উদ্দিন রনি। নানা প্রলোভনে তিনি গোলাপগঞ্জে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করেন লুবনাকে। তবে সে বিয়ের কোনো কাবিন পরবর্তীতে লুবনা সংগ্রহ করতে পারেননি। বিয়ের পর জানতে পারেন, রনি বিবাহিত এবং প্রথম স্ত্রীর গর্ভে তার ৩টি সন্তানও রয়েছে। সবকিছু জানতে পেরে ভেঙে পড়েন লুবনা। কিন্তু রনিকে ভালোবাসেন তাই সবকিছু মেনে নিয়ে সঠিক কাবিননামার মাধ্যমে শরিয়ত মোতাবেক বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে রনিকে চাপ দিতে শুরু করেন তিনি। লূবনার পীড়াপিড়িতে ২০২০ সালে নগরীর বালুচর এলাকার এক কাজি দিয়ে ভুয়া কাবিন নামা তৈরি করে লুবনার সঙ্গে আবারও বিয়ের নাটক করেন রনি। পরবর্তীতে বিষয়টি বুঝতে পেরে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে আদালতে মামলা করেন লুবনা। পৃথক অভিযোগ দায়ের করেন সিলেট মেট্রোপলিট পুলিশ (এসএমপি) কমিশনার বরাবরে।
এদিকে, ভুয়া কাবিন ও স্ত্রীর মর্যাদা না দেয়া নিয়ে রনি ও লুবনার মনোমলিন্য লেগেই থাকতো। রনির চাপে বাধ্য হয়ে ৫ বছরের সংসারে গর্ভের তিন-তিনটি সন্তান নষ্ট করেন লুবনা। তবে চতুর্থ বাচ্চা নষ্ট করতে দেননি তিনি। একপর্যায়ে প্রতিবাদ করা শুরু করেন এবং দাবি করেন স্ত্রীর মর্যাদা । চতুর্থ বাচ্চাকে নষ্ট করতে না দিয়ে দেখান পৃথিবীর আলো। এ নিয়ে রনির সঙ্গে চূড়ান্ত ঝগড়া হয় এবং তাকে বেধড়ক মারধরও করেন রনি। সেসময় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হন লুবনা।
 অপরদিকে, লুবনাকে হয়রানি করতে তার বিরুদ্ধে হুমকি-ধমকি প্রদানের অভিযোগ করে মামলা দায়ের করেন রনি। সে মামলায় জামিনে আছেন লুবনা। এই অবস্থায় বিদেশ যাওয়ার পরিকল্পনা করেন রনি। খবর পেয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় চৌকিদেখির বাসা থেকে এয়ারপোর্ট থানার একদল পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে শনিবার (২ অক্টোবর) আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

ভিকটিম লুবনা বলেন, বিয়ের পর থেকে আমার সঙ্গে নানা প্রতারণা করে আসছে রনি। আমার গর্ভের ৩টি বাচ্চা নষ্ট করেছে। ব্যবসার কথা বলে হাতিয়ে নিয়েছে ১৩ লাখ টাকা। আমি তার কঠোর শাস্তি চাই।

এ বিষয়ে এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মুহাম্মদ মাইনুল জাকির বলেন, রনির বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছেন লুবনা। এর মধ্যে ধর্ষণ মামলায় শুক্রবার রনিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার তাকে কারাগারে প্রেরণ করেছেন আদালত।


আমি টাকার জন্য রাজনীতি করি না : পরিকল্পনামন্ত্রী
                                  

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি :
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেছেন, আমরা আগে পরাধীন থাকায় পিছিয়ে ছিলাম। এখন আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক। আমরা আর কারো গোলাম হতে চাই না। তাই দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সবাইকে কাজ করতে হবে। এ জন্য নারী-পুরুষ মিলে কর্ম করতে হবে। কাজে কোন বাধা নেই। তবে নারীদের অবশ্যই সামাজিকতা বজায় রেখে কাজ করতে হবে। আমরা সবাই মিলে কর্মতৎপর হলে দেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।

শনিবার সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী প্রাচীনতম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সৈয়দপুর সৈয়দিয়া শামছিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় নব-নির্মিত সৈয়দ দুলাল আইসিটি ভবন উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
 
মন্ত্রী দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, অহেতুক আমার বিরুদ্ধে বদনাম দেয়া হচ্ছে। অথচ আমি কোন দোষ করিনি। তবুও বদনাম সহ্য করতে হচ্ছে। আমি নাকি সব উন্নয়ন শান্তিগঞ্জে করছি। প্রকৃত বিষয় হচ্ছে অবকাটামো দিক থেকে শান্তিগঞ্জের অবস্থান ভাল হওয়ায় প্রকৌশলীদের পরামর্শে শান্তিগঞ্জে উন্নয়ন হচ্ছে। এতে আমার কোন দোষ নেই। বর্তমানে চারলেন রেলপথ ও সুনামগঞ্জে উড়াল সেতুর কাজ প্রক্রিয়াধীন। এতেও বাধা দেয়া হচ্ছে। তিনি বিরোধীদের ইঙ্গিত করে বলেন, আল্লাহর ওয়াস্তে আপনারা আর বাধা দিবেন না। উন্নয়ন কাজে সহযোগিতা করুন। এখন যদি এসব উন্নয়ন না করতে পারি, তাহলে আগামী ৫০ বছরেও হবে কিনা সন্দেহ আছে।

মন্ত্রী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমরা পড়াশোনা করো। ভাল মানুষ হও। তবে বিপথগামী হবে না। বাল্য বিবাহ থেকে সাবধান থাকবে। তিনি শিক্ষার উন্নয়ন নিয়ে বলেন, আমরা স্কুল-কলেজের পাশাপাশি মাদ্রাসা শিক্ষাকে এগিয়ে নিতে আন্তরিক ভাবে কাজ করছি। এরই ধারাবহিকতায় সৈয়দপুর-সৈয়দিয়া শামছিয়া প্রাচীন মাদ্রাসায় ৫ তলা ও হলিয়ারপাড়া মাদ্রাসায় আরেকটি ৫ তলা নতুন ভবন নির্মাণ করা হবে বলে আশ্বাস প্রদান করেন মন্ত্রী।

জনতার উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, আপনারা সব সময় আমাদের কাছে উন্নয়ন চান। আমরাও আপনাদের কাছে নৌকা প্রতীকে ভোট চাই। নৌকায় ভোট দিলে দেশের উন্নয়ন হয়। বিএনপি বা আর কেউ একটি বাঁশের সাঁকোও দিতে পারেনি। তিনি নিজ আত্ম-বিশ্বাস নিয়ে বলেন, আমি টাকা-পয়সার জন্য রাজনীতি করি না। শুধু আপনাদের সেবা করতে চাই।
 
এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ আবুল কাশেম, জগন্নাথপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, সিলেট ল কলেজের অধ্যক্ষ অ্যাডভোকেট মহসিন আহমদ, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু। প্রবীণ মুরব্বি সৈয়দ লাল মিয়ার সভাপতিত্বে ও শিক্ষক মাওলানা নিজাম উদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সৈয়দপুর সৈয়দিয়া শামছিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড. মাওলানা সৈয়দ রেজওয়ান আহমদ। বিশেষ মেহমানের বক্তব্য রাখেন সৈয়দ দুলাল আইসিটি ভবন দাতা নব-নির্বাচিত সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য গীতিকবি সৈয়দ দুলাল আহমদ। বক্তব্য রাখেন হলিয়ারপাড়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মইনুল ইসলাম পারভেজ। সভায় সৈয়দ দুলালের কণ্ঠে গাওয়া সোনার বাংলা গান ও শাহেদ নিজামের গাওয়া দেশাত্ববোধক গানে সবাইকে মুগ্ধ করেছে। অনুষ্ঠান শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ছাত্র আরমান। এছাড়া সভায় অতিথিদের সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

এ সময় মন্ত্রীর একান্ত সচিব হারুনুর রশীদ, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজেদুল ইসলাম, জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী আবদুর রব সরকার, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মধু সুধন ধর, উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) গোলাম সারোয়ার, উপজেলা আবাসিক প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) আজিজুল ইসলাম আজাদ, সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান তৈয়ব মিয়া কামালী, মিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক শেরিন, পাইলগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মখলুছ মিয়া, সৈয়দপুর আদর্শ কলেজের অধ্যক্ষ আবদুর রহমান, আবদুস সোবহান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দ হুসবান্নুর, সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি সালেহ আহমদ ছোট মিয়া, কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি ফখরুল হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও জগন্নাথপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র সাফরোজ ইসলাম মুন্না, উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কল্যাণ কান্তি রায় সানি সহ দলীয় নেতাকর্মী, মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সাংবাদিক ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার হাজারো জনতা উপস্থিত ছিলেন।


হবিগঞ্জের জেল সুপার চাকরি থেকে বরখাস্ত
                                  

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :
হবিগঞ্জ জেলা কারাগারের সুপার জাকের হোসেনকে জালিয়াতির অভিযোগে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। গত বছরের ২৬ জুলাই জাকের হোসেন জেল সুপার হিসেবে হবিগঞ্জে যোগদান করেন।

২০০৪ সালে তিনি যশোর কারাগারে কর্মরত অবস্থায় তিন আসামিকে জেলা জজকোর্টের জামিন জাল করে বের হয়ে যান। ওই ঘটনায় ১৭ বছর পর তিনি বরখাস্ত হলেন। সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের কারা-১ শাখার উপসচিব তাহনিয়া রহমান চৌধুরীর স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, যশোর জেলা কারাগার থেকে জাল জামিন ব্যবহার করে তিন আসামি বের হওয়ার ঘটনায় হাইকোর্ট বিভাগের ক্রিমিনাল আপিল আদেশ মোতাবেক গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের আলোকে জাকের হোসেনকে সরকারি চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সাময়িক বরখাস্তকালীন তিনি আর্থিক বিধিবিধান মোতাবেক খোরাকি ভাতা পাবেন। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।

সোমবার রাতে হবিগঞ্জ জেলা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার জয়নাল আবেদীন ভূঁইয়া জানান, প্রজ্ঞাপনটি রোববার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ জেলা করাগারে পৌঁছায়। ফলে জাকের হোসেন ওই দিন পর্যন্ত কারাগারের জেল সুপার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

সিলেটে দু’বোনের ঝুলন্ত লাশ: সেই রাতে ৩১ নম্বর বাসায় কারা ছিল ?
                                  

কাওছার আহমদ:
মঙ্গলবার সকালে সিলেট নগরীর মজুমদারী এলাকার ৩১ নং বাসার ছাদের একই পিলারের আলাদা দু’টি রড  থেকে রানী ও ফাতেমার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সম্পর্কে তারা আপন বোন। তাদের এ রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে ধোঁয়াশা কাটছে না। এ দুই বোন কী কারণে ‘আত্মহত্যা’ করলেন, নাকি তাদেরকে ‘হত্যা’ করা হয়েছে- এ বিষয়টি নিয়ে মাঠে নেমেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন রাতে দুই বোন হাতে দা নিয়ে বাসা থেকে বেরিয়ে চাচা মৃত ধানাই মিয়ার বাসায় আশ্রয় নিতে গিয়েছিল। সেখানে কিছু সময় অবস্থানের পর তারা আবার বাসায় ফিরে যান। এরপর সকালে আশপাশের লোকজন বাসার ছাদে তাদের লাশ দেখতে পায়। ওই রাতে ৩১ নম্বর বাসায় কি হয়েছিল, কারা ছিল, কেনইবা তারা আশ্রয়ের জন্য বেরিয়ে গিয়েছিল, তাদের হাতে দা কেন ছিল, আবার বাসায় ফিরানো হলো কেন? এমন অসংখ্য প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মৃত কলিম উল্লাহর এই বাসায় মা, দুই ভাই ও তিন বোন থাকতেন। এক বোন বিয়ের পর যুক্তরাজ্যে থাকছেন। পরিবারের সদস্যরা চাপা স্বভাবের ছিলেন। আত্মীয় স্বজনদের সাথে তেমন যোগাযোগ ছিলনা।

এ বিষয়ে তাদের ভাই শেখ রাজন এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, লন্ডনী একটা বিয়ের প্রস্তাব এসেছিল গত রোববারে। বরের বয়স অনুমান পঞ্চাশ হবে, দুই বাচ্চার বাবা। সে (রানী) বিয়েতে রাজি নয়, ঘরে ঝগড়া করছিল। আমরা তাকে বলি- বিয়ের প্রস্তাব মাত্র এসেছে, বিয়ে তো আর হয়ে যায়নি। আস্তে আস্তে কনে দেখাবো; হলে হলো, না হলে নাই। এ নিয়ে সে ঝগড়া করে মায়ের সাথে। বোনের সাথেও ঝগড়া করে। সোমবার ঝগড়া করে সে চাচার বাসায় (একই এলাকায়) চলে যায়। প্রায়ই ঝগড়া হলে এভাবে চাচার বাসায় চলে যায়, সেখানে থেকে আসে। আমরা ভেবেছি, চাচার বাসা থেকে সে সকালে আসবে। এই পর্যন্ত আমাদের শেষ। তিনি আরও বলেন, সোমবার ভোর ৫টায় পাশের বাসা থেকে ডাকাডাকি করে বলে, আমাদের ছাদে মানুষ লটকে আছে। তখন আমরা দৌড়ে ছাদে যাই। গিয়ে দেখি দুজনের ঝুলন্ত মরদেহ। আমি মরদেহ নিচে নামাতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সবাই বলেন, পুলিশ আসুক।’

এ ব্যাপারে স্থানীয় সিটি কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদী বলেন,  দু’বোনের মৃত্যুর দিন  এই বাসায় রাতে আসলে কী হয়েছিল, কেনইবা তারা আশ্রয়ের জন্য বেরিয়ে গিয়েছিল, তাদের হাতে দা কেন ছিল, এরপর আশপাশের লোকজন ভোরে তাদের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় ছাদে দেখতে পায়। ময়নাতদন্তের পরই জানা যাবে, তদন্ত সাপেক্ষে মূল রহস্য বেরিয়ে আসবে।
এ বিষয়ে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মোহাম্মদ মাইনুল জাকির বলেন, লাশের ময়নাতদন্তের রির্পোট হাতে আসলে প্রকৃত বিষয় জানা যাবে । প্রকৃত রহস্য উদঘাটনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) বিএম আশরাফ উল্যাহ তাহের  বলেন, লাশ উদ্ধারের পর প্রতিবেশী বা স্বজনদের সাথে কথা বলে যেটুকু জানা গেছে তাতে বিয়ে শাদি নিয়ে একটা হতাশা থাকতে পারে। তাঁদের সকলের অনেক বয়স হলেও এখনো বিয়ে হচ্ছে না। তাছাড়া এরা নানা কারণে অনেকটা মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন। তবে আমরা এখনই কোন বিষয় নিশ্চিত করে বলতে পারছি না। আরও জিজ্ঞাসাবাদ ও তদন্তের প্রয়োজন।

শাল্লায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সক্ষমতা বৃদ্ধি বিষয়ক কর্মশালা
                                  

দিরাই শাল্লা প্রতিনিধিঃ
সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার হবিবপুর ইউনিয়নের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সক্ষমতা বৃদ্ধি বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্টিত হয়েছে। বুধবার সকাল ১০ থেকে বেলা দেড়টা পর্যন্ত ব্র্যাক হিউমিনিটারিয়ান প্রোগ্রামের আয়োজনে ও হবিবপুর ইউনিয়নের কার্যালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সক্ষমতা বৃদ্ধি বিষয়ক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কর্মশালায় দুর্যোগকালীন সময়ে সংশ্রিষ্ট কমিটি ও কমিউনিটি লোকজনের করণীয়, ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ হ্রাসকরণ, দুর্যোগ পরবর্তী বিভিন্ন সহায়তা ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদানসহ নানা বিষয়ে আলোচনা ও মতবিনিময় হয়।

ব্র্যাক মানবিক সহায়তা কর্মসূচির রেদুয়ান চৌধুরীর  পরিচালনায় ও হবিবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিবেকানন্দ মজুমদার বকুলের  সভাপতিত্বে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত  হয়। উক্ত কর্মশালায় হবিবপুর ইউনিয়নের সকল ওয়ার্ডের  মেম্বার, মহিলা মেম্বার, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন ।

সিলেটে করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু
                                  

সিলেট প্রতিনিধি :
সিলেটে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এছাড়া বর্তমানে সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে ৯৩ জন করোনা রোগী ভর্তি আছেন। স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয় জানিয়েছে এমন তথ্য।

তারা জানায়, মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বুধবার সকাল ৮টার মধ্যে সিলেট জেলায় ২ জন করোনা রোগী মারা গেছেন। এ নিয়ে বিভাগে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১৪৮ জন।

এর মধ্যে ওসমানীতে ১১৫ জনসহ সিলেট জেলায় মৃতের সংখ্যা ৯৫৭ জন। মৃতদের মধ্যে সুনামগঞ্জের ৭২ জন, মৌলভীবাজারের ৭২ জন ও হবিগঞ্জের ৪৭ জন রয়েছেন।

এদিকে, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে ৩৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় শনাক্ত হন ২৮ জন। বাকিদের মধ্যে সুনামগঞ্জের চারজন, মৌলভীবাজারের ছয়জন ও হবিগঞ্জের ১ জন রয়েছেন।

৮৯৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে তাদেরকে শনাক্ত করা হয়। শনাক্তের হার ৪.৩৭ ভাগ। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ৫৫ জন শনাক্ত হয়েছিলেন।

সবমিলিয়ে বিভাগে করোনাক্রান্তের সংখ্যা এখন ৫৪ হাজার ৩৭৭ জন। এর মধ্যে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৪৭ হাজার ৭৮৩ জনসহ সিলেট জেলায় শনাক্তের সংখ্যা ৩৩ হাজার ৪৭৬ জন। সুনামগঞ্জের ৬ হাজার ২২৮ জন, মৌলভীবাজারের ৮ হাজার ৬২ জন ও হবিগঞ্জের ৬ হাজার ৬১১ জন রয়েছেন শনাক্তের তালিকায়।

সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা: হিমাংশু লাল রায় জানান, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে সুস্থ হয়েছেন ৩২ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন মোট সংখ্যা এখন ৪৭ হাজার ৭১৪ জন।

সিলেটে ২ বোনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
                                  

সিলেট প্রতিনিধি :
সিলেট নগরীর মজুমদারি কোনাপাড়ার নিজ বাসা থেকে ২ বোনের লাশ ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতরা হলেন- রানী বেগম (৩৩), তার বোন ফাতেমা বেগম (২৭)। মঙ্গলবার সকালে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, সকালে দুই বোনের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে স্বজনরা পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ তাদের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

সিলেট মহানগর পুলিশের এয়ারপোর্ট থানার ওসি খান মোহাম্মদ মাইনুল জাকির বলেন, নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে— দুই বোন আত্মহত্যা করেছেন। তবে কী কারণে আত্মহত্যা করেছেন, তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। দুই বোনের মধ্যে প্রায় সময় ঝগড়া হতো। সে কারণে আত্মহত্যা করেছেন কিনা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

সুবিধাভোগীদের মাঝে অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ করলে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী
                                  

জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধি:
সিলেটে ৫দিনের সফরে এসে ২য় দিনে নিজ উপজেলা জৈন্তাপুরের হতদরিদ্রের মধ্যে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ সহায়তা বিতরণ করেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এম.পি৷

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় তিনি উপজেলা কমপ্লেক্সে প্রবেশ করলে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল আহমদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নুসরাত আজমেরী হক, ভাইস চেয়ারম্যান বশির উদ্দিন ৷

মন্ত্রীর পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচীর অংশ হিসাবে হতদরিদ্রের মধ্যে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ সহায়তা বিতরণ করেন ৷

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার (পিআইও) মোঃ সালাউদ্দিন, সমাজসেবা কর্মকর্তা একেএম আজাদ ভ্ইূয়া, নিজপাট ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ ইয়াহিয়া, জৈন্তাপুর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আনোয়ার হোসন, নিজপাট ইউপি আ.লীগের সভাপতি আতাউর রহমান বাবুলসহ উপজেলা আওয়ামীলীগের সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

পরে মন্ত্রী উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী, গণমাধ্যমকর্মী, স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও নেতাকর্মীদের নিয়ে উপজেলা পরিষদ হল রুমে এক মতবিনিময় সভা করেন ৷

সুনামগঞ্জ হতে পারে পর্যটকদের তীর্থস্থান
                                  

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :
সুনামগঞ্জ হতে পারে পর্যটকদের তীর্থস্থান। পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে কি নেই সুনামগঞ্জে। জীববৈচিত্রে ভরপুর ওয়াল্ড হ্যারিটেজ কর্তৃক অন্তর্ভুক্ত রামসার সাইট টাঙ্গুয়ার হাওড়ের বিশাল জলরাশি, জলের উপর মাথা তুলে দাঁড়িয়ে থাকা হিজল করচ বাগ, দুর থেকে ছবির মতো মেঘ পাহাড়ের হাতছানি,  ট্যাকেরঘাটের শহীদ সিরাজ লেক (নীলাদ্রি) সীমান্তবর্তী ভারতের মেঘালয় পাহাড়, যাদুকাটা নদীর তীরে  বারিক্কারটিলা, ভারতের বুক চিঁড়ে আসা যাদুকাটা নদীর স্বচ্ছ নীল জল প্রকৃতিপ্রেমীদের নিমিষেই মোহাবিষ্ট করে ফেলে। দুর করে দেয় সকল ক্লান্তি, জয়নাল আবেদীনের অমর সৃষ্টি বাংলাদেশের বৃহৎ শিমুল বাগানে ফাগুনে আগুলঝরা নীশ আকাশের নীচে অটরূপ সুন্দর লাল ফুলের রূপ যৌবন আর মৌ মৌ গন্ধে দুর থেকে আসা ভ্রমণ পিপাসুদের বিমোহিত করে তুলে মুহুর্তেই।

পাহাড়, জল, পাহাড়ি নদী আর নীশ আকাশে মেঘের লুকোচুরি খেলায় ভ্রমণ পিপাসু পর্যটকদের মনকে আন্দোলিত করে। আনমনেই শ্রান্ত পথিকও গেয়ে ওঠে এলেকেশী মেয়ে কার পথ চেয়ে, মেলেছিলে ঐ কেশ? পথ চাওয়া শেষে, এসেছিল কী সে? ছুঁয়ে মেঘ অনিমেষ।

বাংলাদেশের যেকোন প্রান্ত থেকে বাসযোগে সরাসরি সুনামগঞ্জে আসা যায়। বর্ষাকালে শহরের সাহেব বাড়ি নৌকা ঘাট থেকে ইঞ্জিন বোট বা স্পীড বোট যোগে সরাসরি টাঙ্গুয়া যাওয়া যায়। ইঞ্জিন বোটে ৪ ঘন্টায় এবং স্পীড বোটে ২ ঘন্টা সময় লাগে। সেক্ষেত্রে  ইঞ্জিন বোটে খরচ হয় ৬শ’ টাকা থেকে এক হাজার ২শ’ টাকা খরচ হতে পারে। একসাথে  ৩০-৩৫ জন যাওয়া যায়। স্পীড বোডে খরচ হয় প্রায় ৮ হাজার টাকা। বেসরকারী ব্যবস্থায়পনায় সেখানে রাত্রি যাপনের কোন ব্যবস্থা নেই তবে সরকারী ব্যবস্থাপনায় ৩ কিঃ মিঃ উত্তর-পূর্বে টেকেরঘাট চুনাপাথর খনি প্রকল্পের রেস্ট হাউজে অবস্থান করা যায়। সুনামগঞ্জ শহরের পুনাতন বাস ষ্ট্যান্ডে রয়েছে আন্তর্জাতিক মানের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত লিফটের সুব্যবস্থাসহ হোটেল রয়েল ইন।

গ্রীষ্মকালে শহরের সাহেব বাড়ি খেয়া ঘাট পার হয়ে অপর পার থেকে প্রথমে মোটর সাইকেল যোগে ২ ঘন্টায় শ্রীপুর বাজার/ডাম্পের বাজার যেতে হয়। ভাড়া ২০০ টাকা। সেখান থেকে ভাড়াটে  ছোট নৌকায় টাঙ্গুয়া ঘুরে আসা যায়। সেক্ষেত্রে ভাড়া বাবদ ব্যয় হতে পারে ৪ হাজার টাকার মতো। ওয়াচ টাওয়ারে পর্যটকদের জন্য রয়েছে ওয়াটার বোট, লাইফ জ্যাকেটের ব্যবস্থা।

জৈন্তাপুরে পিকআপ উল্টে ১ জন নিহত
                                  

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি :
সিলেট তামাবিল মহাসড়কের জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত এলাকায় মাছ বোঝাই পিকআপ উল্টে একজন নিহত ও ৩ জন আহত হয়েছেন। পিকাপটি (সিলেট-ছ ১১-৭৩২৫) মাছ বোঝাই করে সিলেট থেকে জৈন্তাপুরের দিকে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার দরবস্ত এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম আব্দুল মালিক(৩১)।

এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়,  গাড়ীর ড্রাইভার  নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে একটি গাছে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে একজন জন গুরুতর আহত সহ ৪ জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে জৈন্তাপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আহতদের মধ্যে আব্দুল মালিকের অবস্থার চরম অবনিতি হলে তাকে দ্রুত সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাবার সময় পথিমধ্যে মারা যান।  আব্দুল মালিক দরবস্ত ইউনিয়নের ফরফরা গ্রামের সৈয়দ আলী মিয়ার পুত্র। তিনি স্থানীয় দরবস্ত বাজারের একজন মাৎস ব্যবসায়ী।

জৈন্তাপুর মডেলথানার ওসি গোলাম দস্তগীর আহমদ জানান, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

রেলওয়ে স্টেশনের দাবীতে দিরাই-শাল্লায় গণস্বাক্ষর
                                  

দিরাই প্রতিনিধি :
ছাতকের গোবিন্দগঞ্জ টু সুনামগঞ্জ রেলপথের মদনপুরে (দিরাই রাস্তা মোড়) রেলওয়ে স্টেশনের দাবীতে গণস্বাক্ষর কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে দিরাই সর্বস্থরের মানুষের ব্যাপক অংশগ্রহণ চোখে পড়ার মতো। দিরাই রাস্তার মোড় রেলওয়ে স্টেশন বাস্তবায়ন কমিটির সদস্যবৃন্দ দৈনিক স্বাধীন বাংলাকে জানান, গণস্বাক্ষর কর্মসূচি আগামী ৮ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫টা পর্যন্ত চলমান থাকবে।
 
অন্যদিকে যুক্তরাজ্যের দিরাই-শাল্লা কালচারাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. আশিক মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান রুবেল মদনপুরে রেলওয়ে স্টেশন স্থাপনে সংশ্লিষ্টদের সুদৃষ্টি কামনা করে বলেন, সুনামগঞ্জ পর্যন্ত রেললাইন সম্প্রসারণের মূল উদ্দেশ্য যাত্রী সেবার পাশাপাশি এ অঞ্চলের পণ্য পরিবহনের পথ সুগম করা।

প্রস্তাবিত সমীক্ষায় গোবিন্দগঞ্জ থেকে সুনামগঞ্জ পর্যন্ত যে পাঁচটি স্থানে রেলওয়ে স্টেশন নির্ধারণ করা হয়েছে তারমধ্যে মদনপুরে (দিরাই রাস্তার মোড়) কোন স্টেশন রাখা হয়নি। দিরাই, শাল্লা, জামালগঞ্জ, শান্তিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ সদর, নেত্রকোনার কালিয়াজুড়ি উপজেলার লোকজন এই সড়কপথ ব্যবহার করে থাকেন।

এই অঞ্চলের বিশাল জনগোষ্ঠীর পণ্য পরিবহন ও রেলে ভ্রমণের পথ সুগম করতে ‘মদনপুর রেলওয়ে স্টেশন’ বাস্তবায়নের দাবী জানান তারা। সংগঠনের পক্ষে দেয়া বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, মদনপুরে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা রয়েছে। এছাড়া প্রক্রিয়াধীন রয়েছে আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ সরকারি বেসরকারি স্থাপনা। গোবিন্দগঞ্জ টু সুনামগঞ্জ রেললাইনের প্রস্তাবিত স্টেশনগুলোর মধ্যে সবচে ব্যস্ততম স্টেশনে রুপ নেবে দিরাইর রাস্তার মোড়ের ‘মদনপুর রেলওয়ে স্টেশন। আমরা প্রবাসীরাও মদনপুরে স্টেশন দেওয়ার দাবী জানাই।’


   Page 1 of 82
     সিলেট
সিলেটের ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী সাইফুল ঢাকায় গ্রেফতার
.............................................................................................
বেড়িবাঁধ কেটে লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন
.............................................................................................
নোয়াখালীতে ১৮ মামলায় আসামী ৫ হাজার, গ্রেফতার ৯০
.............................................................................................
হাসপাতাল রোগী আছে, নেই ডাক্তার ও সেবা!
.............................................................................................
দিরাইয়ে প্রয়াত আ.লীগ নেতৃবৃন্দের স্মরণে শোকসভা
.............................................................................................
সিলেটে ভুয়া কাবিনে বিয়ে; প্রতারক স্বামী গ্রেফতার
.............................................................................................
আমি টাকার জন্য রাজনীতি করি না : পরিকল্পনামন্ত্রী
.............................................................................................
হবিগঞ্জের জেল সুপার চাকরি থেকে বরখাস্ত
.............................................................................................
সিলেটে দু’বোনের ঝুলন্ত লাশ: সেই রাতে ৩১ নম্বর বাসায় কারা ছিল ?
.............................................................................................
শাল্লায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সক্ষমতা বৃদ্ধি বিষয়ক কর্মশালা
.............................................................................................
সিলেটে করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
সিলেটে ২ বোনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
সুবিধাভোগীদের মাঝে অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ করলে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী
.............................................................................................
সুনামগঞ্জ হতে পারে পর্যটকদের তীর্থস্থান
.............................................................................................
জৈন্তাপুরে পিকআপ উল্টে ১ জন নিহত
.............................................................................................
রেলওয়ে স্টেশনের দাবীতে দিরাই-শাল্লায় গণস্বাক্ষর
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গলে এক রাতে ৮ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি
.............................................................................................
আইনী জটিলতায় কংকাল সংরক্ষণ ও গবেষণায় ব্যবহার করা যাচ্ছে না
.............................................................................................
নবীগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধ; জামায়াত নেতার হাতে যুবলীগ কর্মী খুন
.............................................................................................
শাল্লায় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে প্রতিবন্ধীর টাকা আত্মসাতের অভিযোগ
.............................................................................................
জৈন্তাপুরে সরকারী গাছকেটে উজাড়, সন্দেহের তীর রেঞ্জ কর্মকর্তার দিকে
.............................................................................................
জাফলংকে দৃষ্টিনন্দন করার লক্ষ্যে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
গোয়াইনঘাটে গাঁজাসহ আটক ২
.............................................................................................
দিরাইয়ে রেল স্টেশন স্থাপনের দাবি বাস্তবায়নের লক্ষ্য কমিটি গঠন
.............................................................................................
দিরাই রাস্তা মোড়ে রেলওয়ে স্টেশনের দাবী ফেসবুকে ‘ভাইরাল’
.............................................................................................
সিলেটে করোনায় বিএনপি নেতার মৃত্যু
.............................................................................................
গোয়াইনঘাটের ইউএনও’র মোবাইল নম্বর ক্লোন করে চাঁদা দাবি
.............................................................................................
আজমিরীগঞ্জে সুরক্ষা সামগ্রী ও অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ
.............................................................................................
হবিগঞ্জে সড়কে ঝরলো ৬ প্রাণ
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গলে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন
.............................................................................................
জাতীয় শোক দিবসে সিলেট প্রেসক্লাবে দোয়া মাহফিল
.............................................................................................
করোনা ভ্যাকসিনের ১ম ডোজে এস্ট্রোজেন ২য় ডোজে সিনোফার্মা!
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গল নারী উদ্যোক্তাদের ওয়াশ এসডিজি’র কর্মশালা
.............................................................................................
শাল্লায় পুলিশের বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ যুবলীগ নেতার
.............................................................................................
অবৈধ বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে শ্রীমঙ্গলের ইউএনও
.............................................................................................
সিলেটে করোনায় একদিনে ১৭ মৃত্যু
.............................................................................................
ছাতকে সামান্য বৃষ্টিতে জলবদ্ধতা, বাড়ছে ডেঙ্গু আতঙ্ক
.............................................................................................
জকিগঞ্জে বিড়ম্বনার আরেক নাম ‘দশ সিটা’
.............................................................................................
প্রকৌশলীর মৃত্যুতে সিলেট এলজিইডি’র শোক
.............................................................................................
হবিগঞ্জে পুকুরে ডুবে ৩ বছরের শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু
.............................................................................................
সুনামগঞ্জে অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করলেন ডিসি
.............................................................................................
সুনামগঞ্জে গণটিকাদান ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন
.............................................................................................
শাল্লায় নৌকা ডুবিতে ২ কিশোরীর মৃত্যু
.............................................................................................
দিরাইয়ে শেখ কামালের ৭২ তম জন্মবার্ষিকী পালিত
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গলে এক নারী ইউপি সদস্য’র অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী
.............................................................................................
নবীগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বাস চালকের মৃত্যু
.............................................................................................
জৈন্তাপুরে রোগমুক্তি কামনায় যুবলীগের দোয়া মাহফিল
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গলে আ.লীগ নেত্রী ফারজানার সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ
.............................................................................................
সিলেটে করোনায় ২০ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
শ্রীমঙ্গলে স্কুল শিক্ষিকার শ্লীলতাহানির অভিযোগ নিয়ে বিভ্রান্তি
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT