বৃহস্পতিবার, ২৬ মে 2022 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজধানী -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ঢাকার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থেকে হেরোইনসহ আটক ৩

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক
র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল গত ১৯ মে ঢাকার কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন ইসলামাবাদ এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে আনুমানিক ১লাখ ৫৩হাজার টাকার ৫`শ ১০ পুরিয়া হেরোইনসহ ১ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নাম সুমি বেগম (৩০) বলে জানা যায়।

এছাড়া একই দিন দুপুরে র‌্যাব-১০ এর অপর একটি আভিযানিক দল ঢাকা জেলার দক্ষিন কেরাণীগঞ্জ থানাধীন ইকুরিয়া এলাকায় অপর একটি অভিযান পরিচালনা করে আনুমানিক ৫ লাখ টাকা মূল্যের ৪`শ ৮০ পুরিয়া হেরোইনসহ ২জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের নাম মোঃ শাহিন হোসেন (২৪) ও মোঃ আজিজুল (২৬) বলে জানা যায়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী। তারা বেশ কিছুদিন যাবৎ কেরাণীগঞ্জসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় হেরোইনসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল বলে জানা যায়। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় পৃথক মাদক মামলা রুজু করা হয়েছে।

ঢাকার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থেকে হেরোইনসহ আটক ৩
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক
র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল গত ১৯ মে ঢাকার কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন ইসলামাবাদ এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে আনুমানিক ১লাখ ৫৩হাজার টাকার ৫`শ ১০ পুরিয়া হেরোইনসহ ১ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নাম সুমি বেগম (৩০) বলে জানা যায়।

এছাড়া একই দিন দুপুরে র‌্যাব-১০ এর অপর একটি আভিযানিক দল ঢাকা জেলার দক্ষিন কেরাণীগঞ্জ থানাধীন ইকুরিয়া এলাকায় অপর একটি অভিযান পরিচালনা করে আনুমানিক ৫ লাখ টাকা মূল্যের ৪`শ ৮০ পুরিয়া হেরোইনসহ ২জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের নাম মোঃ শাহিন হোসেন (২৪) ও মোঃ আজিজুল (২৬) বলে জানা যায়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী। তারা বেশ কিছুদিন যাবৎ কেরাণীগঞ্জসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় হেরোইনসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল বলে জানা যায়। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় পৃথক মাদক মামলা রুজু করা হয়েছে।

কামরাঙ্গীরচরে ইজমালি সম্পত্তির ঘর ভাঙার চেষ্টা: বাধা দেয়ায় হুমকি
                                  

স্বাধীন বাংলা অনলাইন :
রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে ইজমালি সম্পত্তির একটি টিনশেড ঘর ভেঙে নতুন ইমারত করার কাজে বাঁধা দেয়ায় হুমকি-ধমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মুহম্মদ ওয়াহিদ উল্লাহ নামে এক ব্যক্তি এ ঘটনার ব্যাপারে কামরাঙ্গীরচর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

ওয়াহিদ উল্লাহ জানান, কামরাঙ্গীরচরের চরকামরাঙ্গী মৌজার ঢাকা সিটি জরিপের ২৭৮৭ নং খতিয়ানের ১১৩৮২ নং দাগের ০১০২ অযুতাংশ ভূমি ও তার উপরে থাকা একটি টিনশেডের একটি অংশের মালিক হলেন তার স্ত্রী মোসা: শামীম আক্তার। তিনি ওই সম্পত্তি পৈত্রিক সূত্রে পেয়ে তার স্বামী ওয়াহিদ উল্লাহকে আমমোক্তার নিযুক্ত করেন। সম্পত্তির একটি অংশ কামরাঙ্গীর চরের ব্যাটারিঘাট এলাকার গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী জয়নব বিবি অন্য দুই ওয়ারিশের কাছ থেকে কিনেন বলে ওয়াহিদ উল্লাহ জানতে পারেন। জয়নব বিবি তার স্বামী ও ছেলের সহায়তায় ওই টিনশেড ঘরটি ভেঙে ফেলার চেষ্টা করলে ওয়াহিদ উল্লাহ আদালতের দ্বারস্থ হন। আদালত ঘর না ভাঙার জন্য নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে রাজউক ও সিটি করপোরেশনেও চিঠি দেয়া হয়। কিন্তু জয়নব বিবি আদালতের নির্দেশসহ সব কিছু লঙ্ঘন করে ওই টিনশেড ঘর ভেঙে সেখানে নতুন ইমারত করার কথা জানালে ওয়াহিদ উল্লাহ বাঁধা দেন।

 এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত ১০ মে ওয়াহিদ উল্লাহকে হুমকি ধমকি দেয়া হয়। এ ব্যাপারে তিনি ১৪ মে কামরাঙ্গীরচর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি দায়ের করেন। তিনি প্রশাসনের নিকট জীবনের নিরাপত্তারও দাবি করেন।

এ বিষয়ে ওয়াহিদ উল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, আদালত যে ফয়সালা দিবে তিনি তা মেনে নেবেন। কিন্তু আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে সেখানে যাতে নতুন কোনো স্থাপনা করার জন্য টিনশেড ঘরটি ভেঙে ফেলা না হয়।

রাজধানীর মক্কা-মদিনা হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু!
                                  

মো: আজমাইন মাহতাব:

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাবর রোডে মক্কা-মদিনা জেনারেল হাসপাতালে দালালের মাধ্যমে রোগী এনে ভুল চিকিৎসায় আতিকা (৬) নামে এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। হাসপাতালের মালিক নূর নবী পলাতক থাকলেও এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারজনকে আটক করেছে মোহাম্মদপুর থানা  পুলিশ। বুধবার (১৮ মে) ভোরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চারজনকে আটক করে।

আটককৃতরা হলেন- অ্যানেসথেসিওলজিস্ট ডা. দেওয়ান মো. আনিসুর রহমান, ডা. এ কে এম নিজামুল ইসলাম, মেডিকেল অফিসার ডা. মারুফ ও নার্স মুক্তা।

শিশু আতিকার বাবা আজিম বলেন, রমজান মাসের প্রথম দিনে দোলনা থেকে পড়ে গিয়ে ঊরুর হাড় ভেঙে যায় আতিকার। এরপর বিভিন্ন কবিরাজি চিকিৎসা করার পরও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাই। এরপর দালাল শাহজাহান ও সাব্বিরের মাধ্যমে মক্কা-মদিনা জেনারেল হাসপাতালে গতকাল আতিকাকে ভর্তি করি। হাসপাতালের মালিক নুর নবীর সাথে বসে অপারেশনের বিষয়ে কথা বলি। হাড় জোড়া লাগানোর জন্য রাতে অপারেশন করা হয়। অপারেশন করার পর আমার মেয়ের জ্ঞান ফেরেনি। কিন্তু তারা আমাদের বিষয়টি জানায়নি। এরপর আমার স্ত্রী সকালে দেখে আতিকার মুখ ফ্যাকাসে হয়ে যাচ্ছে। এরপর থানায় খবর দিলে পুলিশ হাসপাতালে আসে। এ সময় চারজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, আমার মেয়ের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে তেজগাঁও বিভাগের মোহাম্মদপুর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মো. মুজিব পাটোয়ারী।

মুজিব পাটোয়ারী স্বাধীন বাংলাকে বলেন, আমরা খবর পেয়ে মক্কা মদিনা জেনারেল হাসপাতালে পুলিশ পাঠাই এবং শিশুটির মা-বাবাকে থানায় নিয়ে আসি বিষয়টি জানার জন্য। ভুক্তভোগী শিশুটির বাবা-মা মোহাম্মদপুর থানায় আসার পর একটি মামলা দায়ের করেন।

সূত্রে জানা যায়,  মক্কা মদিনা হাসপাতালটিতে এর আগেও অপচিকিৎসার দায়ে কয়েকবার অভিযান চালানো হয়েছিল। এমন কি সিলগালাও করা হয়েছিল।

আরো জানা যায়, ২০২০ সালের ১৯ অক্টোবরের অভিযানের শুরুতেই মক্কা-মদিনা হাসপাতালে যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। সেখানে পরিচালক নূর নবীর কোনো ধরনের চিকিৎসা প্রদানের সনদ বা অনুমোদন পায়নি আদালত। তিনি তার রুমে বসে রোগী দেখছেন এবং ব্যবস্থাপত্র দিচ্ছেন। হাত ভাঙাসহ বিভিন্ন গুরুতর আহত যে রোগীরা আসছেন তাদের অপারেশন করার জন্য বিভিন্ন পরামর্শ দিচ্ছেন, যা তিনি কোনোভাবেই দিতে পারেন না। এ অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাসপাতালটির পরিচালক নূর নবীকে এক বছরের কারাদণ্ডসহ আনোয়ার হোসেন কালু ও তার সহযোগী আব্দুর রশিদকে ৬ মাস করে সাজা প্রদান করে। ওই সময় মক্কা-মদিনা হাসপাতালটি সিলগালাও করে দেয়া হয়েছিল।

সম্রাটের জামিন বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে দুদকের আবেদন
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের জামিন স্থগিত ও বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ক্যাসিনোকাণ্ডের মামলায় জামিন বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে এই আবেদন করা হয়।

সোমবার (১৬ মে) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজহারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদন করা হয়।

আগামীকাল এ আবেদনের ওপর শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

গত ১১ মে সব মামলায় জামিন পাওয়ার পর মুক্তি পান ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট। ওইদিন বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা মহানগর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান তাকে জামিন দেন।

২০১৯ সালের ১২ নভেম্বর দুদকের উপপরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম দুই কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার ৮৭ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সম্রাটের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ১১ মে এই মামলায় সম্রাটের তিন শর্তে ও ১০ হাজার টাকা মুচলেকায় ৯ জুন পর্যন্ত জামিন মঞ্জুর করেন আদালত।

শর্তগুলো হচ্ছে- আদালতের অনুমতি ছাড়া দেশ ত্যাগ করতে পারবেন না সম্রাট, পাসপোর্ট জমা দিতে হবে এবং স্বাস্থ্যগত পরীক্ষার প্রতিবেদন আগামী ধার্য তারিখে জমা দিতে হবে।

এবার ১৯ পশুর হাট রাজধানীতে
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
রাজধানীতে ঈদুল আজহার আগাম প্রস্তুতি চলছে। ঈদুল আজহা মানেই পরিবারের সদস্যরা মিলে হাটে গিয়ে কোরবানির পশু কেনা আর পশু নিয়ে আয়োজন করে বাড়ি ফেরা। সব মিলিয়ে কোরবানির ঈদের আগে রাজধানীতে পশুর হাট কেন্দ্রিক একটি উৎসবের আমেজ বিরাজ করে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে গরু ও ছাগলসহ নানা ধরনের পশু রাজধানীর হাটগুলোতে বিক্রির জন্য তোলা হয়। ক্রেতা-বিক্রেতাদের সরব উপস্থিতিতে সরগরম হয়ে ওঠে পশুর হাট।


গত দুই বছর করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে রাজধানীর হাটকেন্দ্রিক উৎসবের আমেজে অনেকটা ভাটা পড়েছিল। রাজধানীর সব পশুর হাটে জনসমাগম ছিল নিয়ন্ত্রিত। নির্ধারিত হাটের সংখ্যাও কমিয়ে এনেছিল ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন। এ বছর করোনা পরিস্থিতি গত দুই বছরের চেয়ে তুলনামূলক ভালো থাকায় রাজধানীতে কোরবানির পশুর হাট কেন্দ্রিক প্রস্তুতি শুরু হয়েছে কিছুটা আগে থেকে। এ বছর রাজধানীতে মোট ১৯টি কোরবানির পশুর হাট বসানোর উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। এর মধ্যে দুটি হলো স্থায়ী হাট, যেগুলোতে বছরের অন্য সময়ও পশু বিক্রি হয়। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে রয়েছে গাবতলী স্থায়ী হাট আর দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে রয়েছে সারুলিয়া স্থায়ী হাট। এই হাট

দুটি ছাড়া ১৭টি অস্থায়ী হাট বসানো হবে।
অস্থায়ী হাটগুলোর মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকায় বসবে ১০টি আর উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় বসবে ৭টি। এছাড়া ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ডিজিটাল হাট চালু থাকবে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন জানিয়েছেন, হাটগুলো পরিচালনার জন্য যেসব নির্দেশনা আসবে সবগুলো বাস্তবায়ন করা হবে। অন্যদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক জানিয়েছেন, পরবর্তী সিদ্ধান্তের আলোকে হাটগুলোতে স্বাস্থ্যবিধির বিষয়গুলো ঠিক করা হবে।

দক্ষিণ সিটির ১০ হাট
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের যে ১০ স্থানে কোরবানির পশুর অস্থায়ী হাট বসবে সেগুলো হলো- লালবাগের রহমতগঞ্জ ক্লাবসংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা, আমুলিয়া মডেল টাউনের আশপাশের খালি জায়গা, পোস্তগোলা শ্মশানঘাট সংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা, ধোলাইখাল ট্রাক টার্মিনাল সংলগ্ন উন্মুক্ত জায়গা, শ্যামপুর-কদমতলী ট্রাকস্ট্যান্ডসংলগ্ন খালি জায়গা,উত্তর শাহজাহানপুর খিলগাঁও রেলগেট বাজার মৈত্রী সংঘের ক্লাবসংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা, হাজারীবাগ এলাকায় ইনস্টিটিউট অব লেদার টেকনোলজি মাঠসংলগ্ন উন্মুক্ত এলাকা, মেরাদিয়া বাজারসংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গা, দনিয়া কলেজ মাঠসংলগ্ন খালি জায়গা এবং লিটল ফ্রেন্ডস ক্লাবসংলগ্ন খালি জায়গাসহ কমলাপুর স্টেডিয়ামসংলগ্ন বিশ্বরোডের আশপাশের এলাকায় অস্থায়ী হাট বসবে।

উত্তর সিটির ৭ হাট
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের যে সাত স্থানে অস্থায়ী পশুর হাট বসবে- ভাটারা (সাইদনগর) পশুর হাট, কাওলা শিয়ালডাঙ্গাসংলগ্ন খালি জায়গা, মিরপুর সেকশন ৬ ইস্টার্ন হাউজিংয়ের খালি জায়গা, মোহাম্মদপুর বছিলায় ৪০ ফুট রাস্তাসংলগ্ন খালি জায়গা, উত্তরা ১৭ নম্বর সেক্টর এলাকায় অবস্থিত বৃন্দাবন থেকে উত্তর দিকে বিজিএমইএ পর্যন্ত খালি জায়গা, বাড্ডা ইস্টার্ন হাউজিং ব্লক-ই থেকে এইচ পর্যন্ত এলাকার খালি জায়গা এবং ৩০০ ফিট সড়কসংলগ্ন উত্তর পাশের সালাম স্টিল-যমুনা হাউজিং কোম্পানির খালি জায়গা ও এর পাশে ব্যক্তিগত মালিকানাধীন খালি জায়গা মিলিয়ে অস্থায়ী পশুর হাট বসবে। ১৭টি অস্থায়ী পশুর হাটের মধ্যে ১৪টির ইজারার কাজ প্রাথমিকভাবে শেষ হয়েছে। বাকিগুলো চূড়ান্ত করার কাজ চলমান রয়েছে। উত্তর সিটির স্থায়ী গাবতলী হাট ও দক্ষিণ সিটির স্থায়ী সারুলিয়া হাট বছর জুড়েই ইজারা দেওয়া থাকে।

১২৬ অনিবন্ধিত মোবাইলসহ আটক
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) রাজধানীর মিরপুর থেকে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিপুল সংখ্যক অনিবন্ধিত ও চোরাই মোবাইল ফোন জব্দ করেছে। রোববার (১৫এপ্রিল) দুপুরে র‌্যাব-৪ এর সহকারী পরিচালক এএসপি (মিডিয়া) মাজহারুল ইসলাম জানান, মিরপুর-১ নং এলাকাধীন বাগদাদ শপিং কমপ্লেক্সের দোকান মালিক আবুল হাশেম (৪৩) একজন অসাধু মোবাইল ব্যবসায়ী। সরকারের নির্ধারিত ভ্যাট ও ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে আমদানি করা অনিবন্ধিত, চোরাই ও নকল মোবাইল ফোনের পার্টস বিক্রির উদ্দেশ্যে মজুত করে রেখেছে এমন তথ্য পায় র‌্যাব-৪।


ওই তথ্য যাচাইয়ের ভিত্তিতে সত্যতা পেয়ে শনিবার (১৪ মে) সন্ধ্যায় বিটিআরসির প্রতিনিধিসহ ওই দোকানে অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মোট ১২৬টি অনিবন্ধিত ও নকল মোবাইল ফোন ও পার্টস উদ্ধার করা হয়। যার বাজার মূল্য প্রায় ১২ লাখ টাকা। এ ঘটনায় আবুল হাশেমকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আবুল হাশেম জব্দ করা অনিবন্ধিত চোরাই মোবাইল ফোন ও ফোনের পার্টসের অবৈধ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

অভিযান চলাকালীন বিটিআরসির প্রতিনিধি দল তাদের নিজস্ব সফটওয়ার ও সার্ভারের মাধ্যমে যাচাই করে ১২৬টি মোবাইল ফোন সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে চোরাইপথে আমদানি করা হয়েছে মর্মে ঘোষণা করে।

রাজধানী থেকে অবৈধ জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টার চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার
                                  

মো: আজমাইন মাহতা:

রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে অবৈধ জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টার বিক্রয়কারী চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মো. আবু নোমান (২৮) ও  মো. সোহেল রানা (৩৭)।

র‌্যাব জানায়, ই-কমার্স অর্থাৎ ওয়েবসাইট এবং ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে দীর্ঘদিন ধরে চক্রটি এই অবৈধ পণ্য বিক্রি করে আসছিল।

গত শনিবার (১৪ মে) র‌্যাব-৩ এর একটি দল এবং বিটিআরসির প্রতিনিধি দল অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার  করে।

এ সময় তাদের কাছ থেকে চারটি মোবাইল নেটওয়ার্ক জ্যামার, ২৪টি জ্যামার এন্টেনা, চারটি এসি অ্যাডাপ্টার, তিনটি পাওয়ার ক্যাবল, তিনটি মোবাইল নেটওয়ার্ক বুস্টার, ৯টি বুস্টারের আউটডোর এন্টেনা, ২৬টি বুস্টারের ইনডোর এন্টেনা, ৩৭টি বুস্টারের ক্যাবল ও একটি ল্যাপটপ জব্দ করা হয়।

রোববার (১৫ মে) দুপুর ১২টায় রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ।

আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, গ্রেফতার  আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টার বিক্রি করে আসছে। গ্রেফতার  নোমানের একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেইজ রয়েছে এবং গ্রেফতার  সোহেল রানারও একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেইজ রয়েছে। ই-কমার্স ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে তারা আইপি ক্যামেরা, ডিজিটাল ক্যামেরা ও ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশের পাশাপাশি উচ্চ মূল্যে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টারসহ এর যন্ত্রাংশ লাইসেন্স ছাড়া বিক্রি করে থাকেন।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান, জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টার টুজি, থ্রিজি এবং ফোরজি মোবাইল নেটওয়ার্কের কার্যক্ষমতাকে প্রভাবিত করতে সক্ষম। তাদের ক্রেতা বিভিন্ন বহুতল ভবনের বাসিন্দা ও মসজিদ কর্তৃপক্ষ। প্রায় ২০০ ক্রেতার কাছে এ পর্যন্ত ডিভাইস বিক্রি করেছে।

কর্ণেল আরিফ মহিউদ্দিন আরও আহমেদ জানান, সোহেল রানার বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম ও খুলনা জেলায় দু’টি চেক জালিয়াতির মামলা রয়েছে।

ট্রেড লাইসেন্সের খোঁজে , দোকানে দোকানে মেয়র তাপস
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
ট্রেড লাইসেন্স (বাণিজ্য অনুমতি) আছে কি না, দোকানে দোকানে নিজেই খোঁজ নিচ্ছেন দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (১১ মে) লালবাগের শহীদ নগর সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র (কমিউনিটি সেন্টার) পরিদর্শনে এসে আশপাশের দোকানে তিনি ট্রেড লাইসেন্সের খোঁজ নেন।

এসময় প্রথমেই তিনি একটি শো-পিসের দোকানে ঢুকে দোকান মালিককে জিজ্ঞেস করেন ট্রেড লাইসেন্স আছে? জবাবে দোকান মালিক যখন জানান আছে, তখন মেয়র তা দেখতে চান। দোকান মালিক তা দেখালে তিনি দোকানিকে ধন্যবাদ জানিয়ে বের হয়ে অন্য দোকানে যান।

পাশের আরেকটি দোকানে ঢুকে বাণিজ্যিক অনুমোদন আছে কি না জানতে চেয়ে পরে তা দেখতে চান মেয়র। দোকানি বলেন, ওটা লেমনেটিং করা হয়নি। জবাবে মেয়র বলেন, ট্রেড লাইসেন্স দোকানে টানিয়ে রাখবেন, যেন দোকানে ঢুকেই দেখা যায়। তাহলে কেউ এসে জিজ্ঞেস করবে না, মেয়রও জিজ্ঞেস করবে না।

এরপর পাশের একটি টেইলার্সে প্রবেশ করে মেয়র ট্রেড লাইসেন্স দেখতে চাওয়ার পর কর্তৃপক্ষ তা বের করে দেখান। এসময় মেয়র বলেন, আপনার এই ট্রেড লাইসেন্স অবশ্যই লেমনেটিং করে দোকানের দেয়ালে টানিয়ে রাখবেন। এতে আপনাদেরও সুবিধা, সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে যারা পরিদর্শনে আসবেন তারাও প্রথমেই দেখতে পাবেন।

দক্ষিণ সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, আজ মিলব্যারাক সংলগ্ন ধোলাইখাল পাম্প স্টেশন ও জলাধার পরিদর্শন করতে বের হয়েছেন দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

ঢাকা আবার যানজটের কবলে
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
আজ পুরোদমে চিরচেনা রূপে ফিরেছে রাজধানী। ঈদের ছুটি শেষে রোববার (৮ মে) থেকেই সরব হতে থাকে রাজধানী ঢাকা। তবে  ঈদের ছুটির আগের মতো সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যানজট দেখা গেছে। অন্যদিকে অফিসগামী যাত্রীদের সকাল থেকেই বিভিন্ন মোড়ে দাঁড়িয়ে গণপরিবহনের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। এছাড়া গণপরিবহনের ভেতরেও যাত্রীদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। ঈদের ছুটির দিনগুলোতে এমন দৃশ্য দেখা যায়নি।

ঈদের ছুটিতে ফাঁকা ঢাকার রাস্তায় তেমন গণপরিবহনের দেখা মিলত না। তবে গতকাল (শনিবার) থেকে পুরোদমে কর্মব্যস্ততা শুরু হলেও সোমবার (৯ মে) সকাল থেকে রাজধানীর সড়কগুলোতে বাসের দাপট চলছে।

এছাড়া রোববার থেকে রাজধানীসহ একযোগে সারা দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়েছে। ফলে সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা দল বেঁধে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাচ্ছেন। অনেক অভিভাবক ব্যক্তিগত গাড়িতে করে ছেলে-মেয়েদের স্কুলে পৌঁছে দিচ্ছেন, এতে করে রাস্তায় চাপ আরও বেড়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, রাস্তায় বাসের সংখ্যা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মোটরসাইকেল, রিকশা, সিএনজি ও প্রাইভেটকারের সংখ্যা বেড়েছে। গাড়ির চাপ বেড়ে যাওয়ায় সড়কগুলোতে যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। তবে তা এখন পর্যন্ত সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে। বেশিরভাগ সড়কে থেমে থেমে যানচলাচল করছে।

সোমবার (৯ মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজধানীর মালিবাগ, শান্তিনগর, কাকরাইল, পল্টন ও গুলিস্তান এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।

ঢাকায় ঈদের ছুটিতে বাস চালানো কয়েকজন চালকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শনিবার (৭ মে) পর্যন্ত রাজধানীর রাস্তা ফাঁকা ছিল। মূলত রোববার থেকে রাস্তায় বাসের সংখ্যা বাড়তে থাকে। আর সোমবার এসে তা স্বাভাবিক রূপ নেয়। তবে এই সপ্তাহে তেমন যানজট দেখা যাবে না। আগামী সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবস থেকে আগের রূপে ফিরবে ঢাকা।

কারণ হিসেবে তারা বলছেন, ঈদের পর কর্মজীবী মানুষ ঢাকায় ফিরেছেন। অনেকের পরিবার এখনও গ্রামে। স্কুল-কলেজ খুলে যাওয়ায় আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তারাও ঢাকায় ফিরবেন। যার কারণে আগামী সপ্তাহ থেকে সড়কে গাড়ির চাপ আরও বেড়ে যাবে।

রাজধানীর বিজয় নগর মোড়ে মাওয়া থেকে আব্দুল্লাপুরগামী প্রচেষ্টা পরিবহনের একটি বাসের চালক মো. শাহিনের সঙ্গে কথা হয়। তিনি বলেন, মাওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে আজ পর্যন্ত প্রচুর ঢাকা ফেরত যাত্রীর চাপ। বৃহস্পতিবার, শুক্রবার ও শনিবার রাস্তা ফাঁকা থাকলেও গতকাল ও আজ থেকে রাস্তায় গাড়ির চাপ বেশি। অনেক জায়গায় যানজটে গাড়ি নিয়ে আটকে থাকতে হয়েছে।

পল্টন মোড়ে যাত্রীর জন্য অপেক্ষমাণ সিএনজি অটোরিকশার চালক মিনহাজ মিয়া বলেন, ঈদের ছুটিতে যে রাস্তায় ২০ মিনিটে যাওয়া যেত, গতকাল থেকে সেখানে ঘণ্টা সময় লাগছে। তবে এখনও রাস্তায় তেমন যানজট শুরু হয়নি। আগামী রোববার থেকে এই রাস্তায় যানজট আরও বাড়বে।

আজিমপুর থেকে মিরপুর-১০ নম্বরে যাবেন অনিক খান। তিনি বলেন, টিকিট না পাওয়ার কারণে ঢাকায় ঈদ করেছি। ছুটি নিয়ে আজ বাড়ি যাচ্ছি। ঈদের ছুটিতে ঢাকায় চলাচল করতে অনেক ভালো লেগেছে, রাস্তা অনেক ফাঁকা ছিল। এখন গাবতলী বাস টার্মিনালে যাচ্ছি। নিউমার্কেট এলাকা পার হতে অনেক সময় লাগছে। ঢাকায় আবার যানজট শুরু হয়ে গেছে।

এদিকে ঈদের ছুটিতে বন্ধ থাকার পর আবারও খুলতে শুরু হয়েছে রাজধানীর শপিংমলগুলো। শপিংমলে ক্রেতাদের তেমন ভিড় না থাকলেও মানুষের আনাগোনা বাড়ছে। বিক্রেতারা বলছেন, এই মাসে বিপণিবিতানগুলোতে তেমন ক্রেতা থাকবে না। কারণ ঈদে প্রায় সবাই শপিং করেছে। আগামী মাসের শুরু থেকে ক্রেতার সংখ্যা আবার বাড়তে থাকবে বলে আশা তাদের।

জানতে চাইলে কাকরাইল মোড়ে দায়িত্বরত সার্জেন্ট আরিফ বলেন, গতকাল (রোববার) থেকে অফিস খুলেছে, তাই রাস্তায় গাড়ির চাপও বেড়েছে। আজ রাস্তায় ভালোই গাড়ির চাপ আছে। আগামী কয়েকদিনে রাস্তায় আরও গাড়ির চাপ বাড়বে।

কোনো ভবন হবে না তেঁতুলতলা মাঠে
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক :
কলাবাগানের সেই তেঁতুলতলা মাঠে আর কোনো ভবন হবে না। মাঠ যেভাবে ছিল সেভাবেই থাকবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

তিনি বলেন, আমরা জায়গাটির জন্য অ্যাপ্লাই করেছি ২০১৭ সালে। সেটি নিয়ে খোঁজ নিয়ে দেখলাম সেই এলাকায় খেলার কোনো জায়গা নেই। প্রধানমন্ত্রীও পরামর্শ দিয়েছেন, যেহেতু খালি জায়গা নেই, বিনোদনের কিছু নেই, সেজন্য তিনি বলেছেন পুলিশের জমি সেভাবে থাকুক। কোনো কনস্ট্রাকশন যেন না হয়। যেভাবে চলছে চলতে থাকুক।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) সচিবালয়ে রাজধানীর কলাবাগানে তেঁতুলতলা মাঠে থানা ভবনের জায়গা প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এসব কথা বলেন।

নিউ মার্কেটের সংঘর্ষের ঘটনায় পাঁচ শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক :
নিউ মার্কেটের সংঘর্ষের ঘটনায় যে দুটি হত্যাকাণ্ড হয়েছে, তার সঙ্গে সম্পর্কিত পাঁচ শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি)। তারা সবাই ঢাকা কলেজের  শিক্ষার্থী।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার এ তথ্য জানান।

কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, আমরা সংঘর্ষে ঘটে যাওয়া দুইটি হত্যা মামলার তদন্ত করছিলাম। এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পাঁচ জনকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি।

গ্রেপ্তাররা হলেন- ঢাকা কলেজের হিসাব বিজ্ঞানের ছাত্র আব্দুল কাইয়ূম ও পলাশ, সমাজ বিজ্ঞানের ছাত্র ইরফান, বাংলা বিভাগের ছাত্র ফয়সাল ও ইতিহাস বিভাগের জুনায়েদ ইসলাম।

গ্রেপ্তাররা নাহিদ হত্যায় প্রত্যক্ষভাবে অংশ নেয় বলে জানান ডিবি প্রধান। তাদেরকে নাহিদ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৮ এপ্রিল রাতে ও ১৯ এপ্রিল দুপুরে নিউমার্কেটের দোকান-মালিক ও কর্মচারীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের ছাত্রদের সংঘর্ষ হয়। এতে নাহিদ ও মোরসালিন নামে দুজনের প্রাণহানি এবং অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হন। এ ঘটনায় অন্তত তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে।

এরপর গত ২৪ এপ্রিল বিকেল পাঁচটায় ঢাকা কলেজের আন্তর্জাতিক ছাত্রাবাসের ১০১ নম্বর কক্ষে অভিযান পরিচালনা করেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও ডিবির সদস্যরা।

সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদের উপহার দিলো প্রভাত
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা
আমাদের চারপাশে এমন অনেক সুবিধাবঞ্চিত শিশু আছে যাদের ঈদ কাটে জরাজীর্ণ পুরাতন পোশাকে। এসব পথশিশুদের কাছে প্রতিবছরের মতো এবারও ঈদের উপহার পৌঁছে দিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রভাত সমাজকল্যাণ সংস্থা।

আজ বুধবার (২৭ এপ্রিল) রাজধানীর আগারগাঁও প্রবীন হসপিটাল অডিটোরিয়ামে শতাধিক শিশু ও তাদের অভিভাবকদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় প্রভাতের ঈদ উৎসব ও ইফতার আয়োজন।’ এ আয়োজনে প্রভাত আনন্দ স্কুল এর সুবিধা বঞ্চিত শিশুর সাথে একই কাতারে ইফতার করেন সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ।

শিশুদের আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন প্রভাত সমাজকল্যাণ সংস্থার উপদেষ্টা, দাতা সদস্যসহ বিভিন্ন শাখার সদস্যরা।

দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক সংগঠনটি ছিন্নমূল সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের ঈদ উপহার, সাহিত্য-সংস্কৃতিক কর্মসূচি, প্রাকৃতিক দুর্যোগে আক্রান্ত পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডসহ  বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে  আসছে।

তেঁতুলতলা মাঠ পুলিশেরই থাকছে, বন্ধ নির্মাণ কাজ
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক :
রাজধানীর কলাবাগানের তেঁতুলতলা মাঠে থানা ভবনের জায়গা প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, বরাদ্দ যেহেতু হয়েছে, সেহেতু জায়গাটি পুলিশের।

বুধবার (২৭ এপ্রিল) সচিবালয়ে মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ‘নিজেরা করির’ সমন্বয়ক ও অধিকারকর্মী খুশি কবির, ‘বেলা’র নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ রিজওয়ানা হাসান, স্থপতি ইকবাল হাবিব এবং সাংস্কৃতিক কর্মী সঙ্গীতা ইমাম। সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

দেয়াল নির্মাণ স্থগিত রাখার প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি বলেছি যে, আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে ঠিক করব। সেখানে নির্মাণ কাজ হবে কি হবে না, সেটি পরের কথা। জায়গাটি পুলিশকে বরাদ্দ করা হয়েছে। বরাদ্দ যেহেতু হয়েছে, সেহেতু এখন এই জায়গাটি পুলিশের।

তিনি বলেন, তেঁতুলতলায় যে মাঠের কথা বললেন, এটি কিন্তু মাঠ নয়। কোনো কালেই মাঠ ছিল না। এটা একটা খালি জায়গা ছিল, পরিত্যক্ত সম্পত্তি ছিল।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ঢাকা শহরে আমাদের নতুন যে থানাগুলো হচ্ছে, এগুলো বেশিরভাগ ভাড়া বাড়িতে। ভাড়া বাড়িতে থাকায় আমাদের পুলিশ ফোর্স নানা ধরনের অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছে। সেজন্যই স্থায়ী অবস্থানে নেওয়ার জন্য আমরা ডিসির কাছে নিয়মানুযায়ী বলেছিলাম, জমি অধিগ্রহণ করে কলাবাগানে কোনো জায়গা দেওয়া যায় কি না। পরে ডিসি জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে আলাপ করে এই জায়গাটি আমাদের বরাদ্দ দেন। এটার মূল্য হিসেবে যে টাকা হয়, সেটিও মেট্রোপলিটন পুলিশ জমা দিয়েছে। পরে ডিসি আমাদের এটা হস্তান্তর করে। এটিই হলো মূল কথা।

তিনি বলেন, আমরা শুনেছি, এটা লোকালয়ের পাশে খালি জায়গা। এখানে বাচ্চারা খেলত। আলাপচারিতার জন্য জায়গাটি ছিল। এখন অনেকেই এটি নিয়ে নানান কথা বলছে। আমাদের কথা স্পষ্ট, আমাদের জায়গা প্রয়োজন, কলাবাগানের একটি থানা ভবনও প্রয়োজন। সেটার দিকে লক্ষ্য রেখে আমরা বলছি, এরচেয়ে ভালো কোনো জায়গা মেয়র সাহেব বা অন্য কেউ ব্যবস্থা করতে পারলে আমরা অন্য ব্যবস্থা করব। কিন্তু থানার জন্য এটিই নির্দিষ্ট জায়গা, সরকার এটিই ব্যবস্থা করেছে।

তাহলে কি এখন আর মাঠ থাকল না? সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আপাতত তাই-ই। আপাতত যেহেতু এটা পুলিশকে দেওয়া হয়েছে, এটা পুলিশেরই।

সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কিছুক্ষণ আগে যারা এসেছিলেন, তারা একটি আবেদন করেছেন। বিকল্প কিছু করা যায় কি না, সে পর্যন্ত এটা স্থগিত রাখা যায় কি না।

মন্ত্রী বলেন, থানা অবশ্যই জরুরি দরকার। থানাও দরকার এবং এই বাচ্চারা, যারা কথা বলছে তাদেরও রিক্রিয়েশন দরকার। এজন্যই বলেছিল যে আপাতত কনস্ট্রাকশন না করতে। আমরাও একটু দেখি।

তিনি বলেন, আমি বলেছি, এখনই কনস্ট্রাকশনে যাচ্ছি না। এরচেয়ে বড় কোনো অফার যদি আমাদের দিতে পারেন, তাহলে আমরা ভেবে দেখব। এটা ২০ কাঠা জমি সম্ভবত। খুব বড় যে জমি তা না। ফুটবল খেলা বা টেনিস খেলার মাঠ এরকম কিছু না। জায়গাটাও লম্বালম্বি। তারা যেহেতু আবেদন করে গিয়েছে, আমরা দেখব। আমাদের টাকা যেটা দিয়েছি, সেটার কি হবে, সেটাও দেখব।

মন্ত্রী বলেন, পাবলিক সেন্টিমেন্টের কথা আমিও বলছি। আমাদের থানা দরকার, এটাও তো বুঝতে হবে। কারণ যদি আমি সুরক্ষা দিতে না পারি তাহলে তখনও তো সেন্টিমেন্ট আমাদের উপরই আসবে। এখন এটা পুলিশের প্রোপার্টি।

নিজেরা করির সমন্বয়ক ও অধিকারকর্মী খুশি কবির বলেন, এখানে যে কাজটি হচ্ছে সে জিনিসটা আমরা চাচ্ছিলাম বন্ধ করার জন্য। আমরা চাচ্ছি যে এবারের ঈদের জামায়াত ওখানেই হোক। তিনি (স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী) বলেছেন যে, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে উনি চেষ্টা করবেন।

খুশি কবির বলেন, আমরা স্ট্রংলি বলে আসছি, নির্মাণ কাজ ইমিডিয়েটলি বন্ধ করার জন্য। নইলে বিরূপ একটা অবস্থার তৈরি হবে।

বেলার নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ রিজওয়ানা হাসান বলেন, খেলার মাঠটির ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও ফিল করছেন। কিন্তু উনারা ২৭ কোটি টাকা দিয়ে দিয়েছেন। তখন আমরা বলেছি, সেটা তো সরকারি ট্রেজারিতেই আছে। ওই এলাকায় আরও পরিত্যক্ত জায়গা আছে। একটা জায়গার কথা ইকবাল ভাই স্পষ্ট করে বলেছেন।

সেখানে দেয়াল নির্মাণের কাজ বন্ধ করার জন্য বলা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, পুলিশের সঙ্গে এলাকাবাসী মুখোমুখি হোক, এটা আমরা চাই না। ঈদের জামায়াতটা হতে পারবে না যদি এখানে দেয়াল হয়, তাই এটা নির্মাণ বন্ধ করতে হবে। মন্ত্রী বলেছেন এ ব্যাপারে আমি এখন ডিএমপি কমিশনারের সঙ্গে কথা বলছি। আর এটার বিকল্প অন্য কোন জায়গায় যাওয়া সংক্রান্ত বিষয়ে আমাকে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলতে হবে।

মোবাইল ছিনতাইকারী চক্রের মূলহোতাসহ গ্রেফতার ৩১
                                  

মো: আজমাইন মাহতাব:

বিপুল পরিমাণ মোবাইলসহ ছিনতাইকৃত মোবাইল ছিনতাই চক্রের মূলহোতাসহ ৩১ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মো. আল মামুন (২৮), মো. রাকিব (২৭), মো. জাহাঙ্গীর (৬৬), মো. ইকবাল (৫০), মো. মোখলেছুর রহমান (৩৮), মো. বিল্লাল মিয়া (৪০), মো. বিল্লাল (২৭), মো. রাকিব (২৩), মো. মাইনু (২১), মো. জনি (২০), মো. স্বপন (৫০),  মো.সালাউদ্দিন আহম্মেদ (৩৫), মো. মোশারফ (৪৫), মেহেদী হাসান রাজু (২৪),  মো. জুয়েল (৪০), মো. জুম্মুন (২৮), মো. রকিবুল ইসলাম (৩১),  মো. নজরুল (৩০), মো. পারভেজ (৩৮), মো. ইউসুফ বেপারী (৪২),  মো. ইউসুফ দেওয়ান (৩৫), মো. রুবেল মোল্লা (৩১), মো. রুবেল দেওয়ান (৩০), মো. জাফর (৪৮), মো. নাছির উদ্দিন পিন্টু (৩১), মো. আনছার ঢালী  ওরফে ডালিম হোসেন (৫২),  মো. হালিম সরদার (৫২), মো. শাহীন শেখ (৩১),  মোহাম্মদ আলী (৫৫), মো. সবুজ (২৮) ও মো. আবুল হোসেন (৬১)।

এসময় তাদের কাছ থেকে ট্যাব ৩০টি, টাচ মোবাইল ৭১৭টি, বাটন মোবাইল ৭৯৩টি, ল্যাপটপ (নতুন) ২৮টি এবং নগদ ৫৫ হাজার ৬৪৭ টাকা জব্দ করা হয়।

সোমবার (২৫ এপ্রিল) সন্ধ্যার পর থেকে র‌্যাব-৩ এর ৭টি আভিযানিক দল রাজধানীর লালবাগ, সিদ্ধিরগঞ্জ, পল্টন, গুলিস্তান, বায়তুল মোকাররম, মতিঝিল, খিলগাও, হাতিরঝিল, ওয়ারিসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে চোরাকারবারী চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার  করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‌্যাব-৩-এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, গুলিস্তান এলাকার চোরাকারবারী চক্রের মূলহোতা মো. রাকিবসহ তার ৪ জন সহযোগীকে, পল্টন এলাকার চোরাকারবারী চক্রের মূলহোতা মো. বিল্লাল হোসেনসহ তার ৬ জন সহযোগীকে, রমনা এলাকার চোরাকারবারী চক্রের মূলহোতা মো. পারভেজসহ তার ৬ জন সহযোগীকে, শাহবাগ এলাকার চোরাকারবারী চক্রের মূলহোতা মো. নাছির উদ্দিন ওরফে পিন্টুসহ তার ৬ জন সহযোগীকে, মতিঝিল এলাকার চোরাকারবারী চক্রের মূলহোতা মো. ইউসুফ বেপারীসহ তার ৪ জন সহযোগীসহ সর্বমোট ৩১ জন অপরাধীকে গ্রেফতার  করা হয়।

আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, মূলত ছিনতাই-চোরাইকৃত মোবাইল ফোনসমূহ অল্প দামে ক্রয় করে মোবাইলের আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করে সুযোগ বুঝে বেশি দামে বিক্রি করে। তারা প্রত্যেকেই মুঠোফোন ছিনতাই-চোরাই চক্র এবং ক্রয়-বিক্রয়ের সাথে জড়িত।

তিনি আরও বলেন, র‌্যাব-৩ এর আওতাধীন এলাকায় অন্ততঃ ২০টিরও বেশি মুঠোফোন ছিনতাইকারী চক্র রয়েছে। চুরি এবং ছিনতাই হওয়া মোবাইল সমূহের আইএমইআই নম্বরসমূহ পরিবর্তিত হয়ে বিভিন্ন সিন্ডিকেট চক্রের যোগসাজশে বিভিন্ন মার্কেটের সামনে গোপনে বিক্রি করা হয়ে থাকে। এই অভিযানে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্হা (এনএসআই) বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়ে এই অপারেশনে র‌্যাবকে সহযোগিতা করেছে।

গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

থানা স্থাপন নয়, তেঁতুলতলা মাঠ হিসাবেই থাকুক
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক :
পুলিশি প্রহরায় নির্মাণকাজ চলছে তেঁতুলতলা মাঠে। মাঠের মধ্যে যত না শ্রমিক নির্মাণকাজ করছেন, তার চেয়ে বেশিসংখ্যক পুলিশ সদস্য মাঠের ভেতর ও বাইরে অবস্থান করছেন

পুলিশি প্রহরায় নির্মাণকাজ চলছে তেঁতুলতলা মাঠে। মাঠের মধ্যে যত না শ্রমিক নির্মাণকাজ করছেন, তার চেয়ে বেশিসংখ্যক পুলিশ সদস্য মাঠের ভেতর ও বাইরে অবস্থান করছেন

রাজধানীর কলাবাগানের তেঁতুলতলা মাঠ রক্ষায় আন্দোলনকর্মী সৈয়দা রত্না ও তার সন্তানকে ১৩ ঘণ্টা আটকে রাখার ঘটনার সমালোচনা করেছেন দেশের বিশিষ্টজনরা। তাদের দাবি করেছেন, তেঁতুলতলা মাঠটি মাঠ হিসেবে রাখতে হবে। মাঠে থানা স্থাপনের কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে। মাঠে শিশুরা খেলবে- সরকারের এমন প্রতিশ্রুতির পাশাপাশি সৈয়দা রত্না ও তার ছেলেসহ পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

সোমবার বিকেলে দেশের ৩৭ বিশিষ্ট নাগরিক এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন। বিবৃতিদাতারা হলেন- গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, মানবাধিকার কর্মী সুলতানা কামাল, অর্থনীতিবিদ ও পিপিআরসির নির্বাহী সভাপতি ড. হোসেন জিল্লুর রহমান, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ, মানবাধিকার কর্মী ড. হামিদা হোসেন, নিজেরা করির সমন্বয়কারী খুশী কবির, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম, গবেষক মেঘনা গুহঠাকুরতা, ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এর নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান,  গণস্বাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে. চৌধুরী, এএলআরডি`র নির্বাহী পরিচালক শামসুল হুদা, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান, নারীপক্ষের সদস্য শিরিন হক, সেন্ট্রাল উইমেন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক পারভীন হাসান, ইউল্যাবের প্রাক্তন উপাচার্য ড. ইমরান রহমান, আইনজ্ঞ ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ শাহদীন মালিক, ব্লাস্টের অনারারি ডিরেক্টর সারা হোসেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক গীতিয়ারা নাসরীন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক এম এম আকাশ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মির্জা তাসলিমা সুলতানা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক ফেরদৌস আজিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সামিনা লুৎফা, লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসারিয়াল গবেষণা সহযোগী ড. স্বপন আদনান, নাগরিক উদ্যোগের প্রধান নির্বাহী জাকির হোসেন কোস্টের প্রধান নির্বাহী রেজাউল করিম চৌধুরী, মানবাধিকারকর্মী মো. নূর খান লিটন, বহ্নিশিখার প্রতিষ্ঠাতা তাসাফি হোসেন, বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশনের ক্লিনিক্যাল নিউরোসাইন্স সেন্টারের পরিচালক ড. নায়লা জেড খান, আলোকচিত্রী ড. শহিদুল আলম, লেখক রেহনুমা আহমেদ, লেখক অরূপ রাহী, উন্নয়নকর্মী নবনীতা চৌধুরী, আলোক চিত্রী মাহমুদ রহমান ও সাংবাদিক ড. সায়দিয়া গুলরুখ।

গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃবিতে বলা হয়েছে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১৭নং ওয়ার্ডে কলাবাগানের একটি মাঠ তেঁতুলতলা। প্রায় ৫০ বছর ধরে উন্মুক্ত এই মাঠটি স্থানীয় লক্ষাধিক বাসিন্দা ঈদগাহ, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক উৎসবের কেন্দ্রস্থল, মৃতদেহ গোসল করানো এবং খেলার মাঠ হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। সম্প্রতি মাঠে তারকাঁটার বেড়া দিয়ে বেষ্টনি তৈরি করে জনসাধারণের প্রবেশ বন্ধ করেছে কলাবাগান থানা কর্তৃপক্ষ। কলাবাগান থানা কর্তৃক স্থাপিত সাইনবোর্ড অনুযায়ী, মাঠটিতে কলাবাগান থানা ভবণ নির্মাণ করা হবে। স্থানীয় উপস্থিত পুলিশদের ভাষ্যমতে, মাঠটি ভূমি মন্ত্রণালয় কর্তৃক থানা নির্মাণ করার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বরাবর বন্দোবস্ত প্রদান করা হয়েছে। ইতোমধ্যে স্থানটি জনস্বার্থে উন্মুক্ত রাখার দাবিতে ১৭ নং ওয়ার্ডের অধিবাসী ও মাঠ ব্যবহারকারী শিশুরা প্রধানমন্ত্রী ও মেয়রের কাছে আবেদন করেছে। মাঠটিকে রক্ষায় শিশুসহ এলাকাবসাী ধারাবাহিকভাবে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ আয়োজন করে চলেছে। এ শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের কারণে কলাবাগান থানা কর্তৃপক্ষ শিশুদের `শাস্তি` দিতেও দ্বিধাবোধ করেনি। শিশুদের কান ধরে উঠবস করানোর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িলে পড়লে কলাবাগান থানার ৩ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়। মাঠ খেলার জায়গা এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক কাজের রক্ষার দাবিতে আন্দোলন করে আসছিলেন স্থানীয় বাসিন্দা সৈয়দা রত্না। তিনি উদীচীরও সদস্য। গতকাল রোববার থানা ভবন নির্মাণের প্রতিবাদ করায় এবং নির্মাণকাজের ভিডিও ধারণ করায় বেলা ১১টার দিকে সৈয়দা রত্নাকে আটক করে পুলিশ। পরে তাঁর ছেলেকেও ধরে নেওয়া হয়। পরে বিক্ষোভের মুখে মাঝরাতে তাঁদের মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

বিবৃতিতে বিশিষ্টজনরা বলেন, আমরা দ্ব্যর্থহীন ভাষায় বলতে চাই কলাবাগান থানা কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সৈয়দা রত্না ও তার নাবালক পুত্রকে কোন রকম আইনী প্রক্রিয়া অনুসরণ না করে, কোন আইনসিদ্ধ অভিযোগ ছাড়া দীর্ঘ ১৩ ঘন্টারও বেশি সময় আটক রাখা দেশের সংবিধান ও আইনের ন্যাক্কারজনক লংঘন ও বেআইনী। তেঁতুলতলা মাঠটি উন্মুক্ত স্থান ও মাঠ হিসেবে রাখতে হবে এবং মাঠে থানা স্থাপনের চলমান সকল কার্যক্রম অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।

টিকিট কালোবাজারির অভিযোগ নিয়ে রেলমন্ত্রী
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক :
ঈদযাত্রায় ট্রেনের অগ্রিম টিকিট যেন ‘সোনার হরিণ’। রাতদিন অপেক্ষা করেও মিলছে না কাঙ্ক্ষিত টিকিট।

মানুষে ঠাসা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন কাউন্টার চত্বর। সেখান থেকে সড়কে ঠেকেছে টিকিট প্রত্যাশীদের লাইন। একটি টিকিটের আশায় সেহরি-ইফতার করতে হচ্ছে স্টেশনের লাইনে বসেই।

যাত্রীদের এই ভোগান্তি নিয়ে করার কিছু ‘দেখছেন না’ রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। এবং রেলওয়ের কর্মকর্তাদের কালোবাজারিতে জড়িত হওয়ার সুযোগ নেই বলে জানালেন মন্ত্রী।

সোমবার দুপুরে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘কালকের টিকিটের জন্য যদি লোকজন আজকে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকে, তাহলে আমাদের কী করার আছে বলেন? আজকের টিকিট নিয়ে তো কারো কোনো অভিযোগ নেই। কারণ আমরাতো সিস্টেম করেছি, অন্য কোনো জালিয়াতির সুযোগ নেই। আপনি আইডেনটিটি কার্ড দিয়ে টিকিট কাটবেন, আপনার টিকিট দিয়ে আমি যেতে পারব না।’

রেলওয়ের কর্মকর্তারাও কালোবাজারিতে জড়িত বলে যে অভিযোগ আছে, সে বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী বলেন, ‘কালোবাজারি কীভাবে করবে? আমি যদি আপনার টিকিটে না যেতে পারি, তো টিকেট নিয়ে কী করব? একজন চারজনের টিকেট নিলে চারজনের আইডি কার্ডই জমা দিতে হবে।’

এর আগে টিকেট কাউন্টারগুলো পরিদর্শন করেন রেলমন্ত্রী। এ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীদের সঙ্গেও কথা বলেন তিনি। তখন নানা ভোগান্তির পাশাপাশি টিকেট না পাওয়ার অভিযোগ করেন যাত্রীরা।

ঈদের জন্য ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে শনিবার সকাল থেকে। পাঁচ দিনব্যাপী টিকিট বিক্রি চলবে ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত।


   Page 1 of 56
     রাজধানী
ঢাকার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থেকে হেরোইনসহ আটক ৩
.............................................................................................
কামরাঙ্গীরচরে ইজমালি সম্পত্তির ঘর ভাঙার চেষ্টা: বাধা দেয়ায় হুমকি
.............................................................................................
রাজধানীর মক্কা-মদিনা হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু!
.............................................................................................
সম্রাটের জামিন বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে দুদকের আবেদন
.............................................................................................
এবার ১৯ পশুর হাট রাজধানীতে
.............................................................................................
১২৬ অনিবন্ধিত মোবাইলসহ আটক
.............................................................................................
রাজধানী থেকে অবৈধ জ্যামার ও নেটওয়ার্ক বুস্টার চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার
.............................................................................................
ট্রেড লাইসেন্সের খোঁজে , দোকানে দোকানে মেয়র তাপস
.............................................................................................
ঢাকা আবার যানজটের কবলে
.............................................................................................
কোনো ভবন হবে না তেঁতুলতলা মাঠে
.............................................................................................
নিউ মার্কেটের সংঘর্ষের ঘটনায় পাঁচ শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার
.............................................................................................
সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের মাঝে ঈদের উপহার দিলো প্রভাত
.............................................................................................
তেঁতুলতলা মাঠ পুলিশেরই থাকছে, বন্ধ নির্মাণ কাজ
.............................................................................................
মোবাইল ছিনতাইকারী চক্রের মূলহোতাসহ গ্রেফতার ৩১
.............................................................................................
থানা স্থাপন নয়, তেঁতুলতলা মাঠ হিসাবেই থাকুক
.............................................................................................
টিকিট কালোবাজারির অভিযোগ নিয়ে রেলমন্ত্রী
.............................................................................................
ঢাকা কলেজে র‌্যাব-ডিবির অভিযান
.............................................................................................
৩ মামলা তদন্তে পুলিশকে দেড় মাস সময়
.............................................................................................
মাইকিং করে ক্রেতার সঙ্গে ‘শোভন’ আচরণের আহ্বান
.............................................................................................
নিউমার্কেট কান্ড: এবার মারা গেলেন দোকানের কর্মচারী
.............................................................................................
ব্যবসায়ী-ছাত্রদের সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ সামনে আসেনি কেন
.............................................................................................
শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষ
.............................................................................................
এবার ঈদে ঢাকা ছেড়ে গ্রামে যাবে দ্বিগুণ মানুষ
.............................................................................................
রাজধানীতে রোজাদারকে তাচ্ছিল্য করে খাবারের প্যাকেজ!
.............................................................................................
নববর্ষের দিন আকাশ পথেও নিরাপত্তা দেবে র‌্যাব
.............................................................................................
বন্ধুরাষ্ট্রের তথ্যে এবার বর্ষবরণে বাড়তি নিরাপত্তা
.............................................................................................
রাজধানীতে ডায়রিয়া আকার ভয়াবহ ঘণ্টায় ৮৫ রোগী ভর্তি
.............................................................................................
টিপু হত্যা: মাস্টারমাইন্ড গ্রেফতার ৪
.............................................................................................
অ্যাডভাঞ্চ-৯ লঞ্চে আগুন
.............................................................................................
জিজ্ঞাসাবাদের সময় পুলিশকে ছুরিকাঘাত করল ছিনতাইকারী!
.............................................................................................
রাজধানীতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ ৪
.............................................................................................
রাজধানীতে গ্রেফতার ৪০
.............................................................................................
মাদকবিরোধী অভিযান : রাজধানীতে আটক ৫৬
.............................................................................................
রাজধানীতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ ৫
.............................................................................................
পুলিশ কর্মকর্তার হাত-পা বেঁধে ডাকাতি
.............................................................................................
রাজধানীতে ‘মোশারফ বাহিনী’ প্রধানসহ ৬ জন গ্রেফতার
.............................................................................................
৫ হাজার মানুষকে টিকা প্রদানে ছাত্রলীগ নেতা নাঈমুল হাসান রাসেলের সহায়তা
.............................................................................................
যাত্রাবাড়ীতে কারখানায় বিস্ফোরণে দগ্ধ ৩
.............................................................................................
প্রতিযোগিতামূলক ২ বাসের চাপায় কিশোর নিহত, গ্রেফতার ২
.............................................................................................
খালের জমি উদ্ধারের তৎপর ডিএনসিসি’র মেয়র
.............................................................................................
নীলক্ষেতে শিক্ষার্থীদের অবরোধ
.............................................................................................
চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার ৩
.............................................................................................
যাত্রা শুরু গ্লোবাল হসপিটালিটি কনসালটেন্সি
.............................................................................................
নারীর রহস্যজনক মৃত্যু, বাবার দাবি হত্যাকান্ড, স্বামী পলাতক
.............................................................................................
রাস্তার পাশে ভাঙ্গাড়ী দোকান, চলাচলে ব্যাঘাত নগরবাসীর
.............................................................................................
এবার ময়লার গাড়ির ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত
.............................................................................................
রাজধানীতে মানবপাচারকারী চক্রের মূল হোতাসহ গ্রেফতার ৩
.............................................................................................
হাফ পাসের দাবিতে পুরান ঢাকায় বিক্ষোভ
.............................................................................................
রাজধানীতে ৩১৭ ওয়াকিটকিসহ ৫ জন আটক
.............................................................................................
যাত্রাবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT