রবিবার, ২ অক্টোবর 2022 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   রাজধানী -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
নবীনগরে বিদ্যালয়ের ভবন উদ্ভোধন করলেন এমপি এবাদুল করিম

নবীনগর প্রতিনিধি
ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগরে আলিয়াবাদ মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নব নির্মিত বহুতল ভবনের উদ্ভোধন করা হয়েছে।আজ শনিবার সকালে বহুতল ভবনের উদ্ভোধন করেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ নবীনগর সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য মো. এবাদুল করিম বুলবুল।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে ও বিদ্যালয়ের ছাত্রী স্বর্ণা ইসলাম ও রিফাত উল্লাহ ফাহিমের যৌথ সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.একরামুল ছিদ্দিক।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়নপুর ডি এস ফাযিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান সামসুজ্জামান খান মাসুম, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক প্রণয় কুমার ভদ্র পিন্টু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাইফুর রহমান সোহেল, উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রিপন,প্রধান শিক্ষক এটি এম রেজাউল করিম সবুজ প্রমুখ।

নবীনগরে বিদ্যালয়ের ভবন উদ্ভোধন করলেন এমপি এবাদুল করিম
                                  

নবীনগর প্রতিনিধি
ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগরে আলিয়াবাদ মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নব নির্মিত বহুতল ভবনের উদ্ভোধন করা হয়েছে।আজ শনিবার সকালে বহুতল ভবনের উদ্ভোধন করেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ নবীনগর সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য মো. এবাদুল করিম বুলবুল।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে ও বিদ্যালয়ের ছাত্রী স্বর্ণা ইসলাম ও রিফাত উল্লাহ ফাহিমের যৌথ সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.একরামুল ছিদ্দিক।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়নপুর ডি এস ফাযিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান সামসুজ্জামান খান মাসুম, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক প্রণয় কুমার ভদ্র পিন্টু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাইফুর রহমান সোহেল, উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রিপন,প্রধান শিক্ষক এটি এম রেজাউল করিম সবুজ প্রমুখ।

ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষ্যে রাজধানীতে জশনে জুলুস
                                  

স্টাফ রিপোর্টার:

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ) উপলক্ষে রাজধানী মোহাম্মদপুর জাকির হোসেন রোড আল মুখতার জামে মসজিদের  বৃহত্তর জশনে জুলুস বের হয়েছে

ইয়া নবী সালাম আলাইকা, মোস্তফা জানে রহমত পে লাখো সালাম ধ্বনীতে, কালিমা খচিত পতাকা নিয়ে হাজার হাজার আশেকে রাসূল (দঃ) জুলুসে অংশ নেন। জুলুস শেষে মিলাদ, কেয়াম এবং দেশ জাতি ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করে মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তরা বলেন, হুযুর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আল্লাহ তা’আলার সর্বোত্তম ও সর্ব শ্রেষ্ঠ নেয়ামত। তাই তার শুভাগমনে আমাদের সর্বোচ্চ শুকরিয়া জ্ঞাপন করা উচিত। কারণ মহানবী (দঃ)না আসলে পৃথিবী সৃষ্টি হতো না।

বক্তারা আরও বলেন, মহানবী হচ্ছেন রাহমাতুল্লিল আ’লামীন। পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ট অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাতিঘর। তার আদর্শ অনুরসণ করে একদিকে ইসলামকে যেমন সমুন্নত রাখতে হবে, তেমনি দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে।

জুলুসে অংশ নেন মসজিদের খতিব আলহাজ্জ মুফতি আব্দুল মুঈদ আল কাদেরি, আল মুখতার জামে মসজিদ, টাউন হল,আসাদ গেইট, জাকির হোসেন  রোডে আলিফের লাইনে পবিত্র মিলাদুন্নবী জুলুসটি শেষ হয়।

ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষ্যে রাজধানীতে জশনে জুলুস

আবারও বায়ুদূষণে বিশ্বে ঢাকা দ্বিতীয়
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক
গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিতে দূষণ কিছুটা কম হলেও বায়ুদূষণে আবারও বিশ্বের দ্বিতীয় স্থানে চলে এসেছে ঢাকা। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বিশ্বের বায়ুমান যাচাইবিষয়ক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ‘এয়ার ভিজ্যুয়াল’ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সংস্থাটির তথ্যমতে ঢাকার দূষণের মান ১৫৩,  এদিকে বায়ুদূষণে প্রথম স্থানে রয়েছে পাকিস্তানের লাহোর, যার মাত্রা ১৬১। তৃতীয় অবস্থানে আছে দুবাই, একিউআই সূচক ১৫২।

সাধারণত ৫০ থেকে ১০০-এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে ‘স্বাভাবিক অবস্থা’ বলা হয়। তবে কিছু মানুষের জন্য এটাকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ বলেও বিবেচিত হয়। বিশেষ করে একিউআই স্কোর ১০১ থেকে ২০০ হলে ‘অস্বাস্থ্যকর’ বলে মনে করা হয়।

বায়ুদূষণ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ড. কামরুজ্জামান মজুমদার গণমাধ্যমকে বলেন, “সারা বছরে মাত্র ১৫ ভাগ বায়ুদূষণ হয় ( জুন, জুলাই, আগস্ট, সেপ্টেম্বর)।  এখন মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে বৃষ্টি হওয়ায় দূষণের মাত্রা কিছুটা কমে এসেছে। তবে আগের কয়েক দিনের তুলনায় এখন বৃষ্টি কম হওয়ায় বায়ুদূষণ আবারও বাড়ছে। কেননা দূষণের জন্য দায়ী যেমন যানবাহন চলাচল, শিল্প কারখানার দূষণ, ইটভাটা, নির্মাণকাজ কিছুই কিন্তু থেমে নেই।”

ড. কামরুজ্জামান মজুমদার আরও বলেন, “পরিবেশ অধিদপ্তর অভিযান পরিচালনা করছে ঠিকই। কিন্ত তা অপ্রতুল। দূষণ কমাতে হলে আরও বেশি অভিযানের প্রয়োজন।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, সাধারণত ছয় ধরনের পদার্থ এবং গ্যাসের কারণে বায়ুদূষণের মাত্রা বেড়ে যায়। ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ধূলিকণা অর্থাৎ পিএম ২.৫ -কে ঢাকায় দূষণের জন্য বেশি দায়ী করা হয়।

ক্ষতিকর ছয় ধরনের পদার্থের মধ্যে প্রথমেই আছে পিএম (পার্টিকুলেটেড ম্যাটার) ২.৫ অথবা ২ দশমিক ৫ মাইক্রো গ্রাম সাইজের ক্ষুদ্র কণা। এরপর পিএম-১০ হচ্ছে সবচেয়ে বেশি। বাকি চারটির মধ্যে আছে—সালফার ডাই অক্সাইড, নাইট্রোজেন, কার্বন মনোক্সাইড ও সিসা। এই ছয় পদার্থ ও গ্যাসের ভগ্নাংশ গড় করেই বায়ুর সূচক নির্ধারণ করা হয়। সেই সূচককে বলা হয় এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স।

মোহাম্মদপুরে তিনটি ১৪তলা ভবন নির্মাণ করবে সরকার
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর মোহাম্মদপুর হাউজিং এস্টেটের আসাদ এভিনিউতে কম্পাউন্ড-এ ১৪ তলা ৩টি আবাসিক ভবন নির্মাণ করবে সরকার। এতে ব্যয় হবে ১৪৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। এই নির্মাণ কাজটি পেয়েছে দ্য ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যান্ড আর্কিটেক্টস লিমিডেট।

বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠকটি ভার্চুয়ালে অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল বারিক সভায় অনুমোদন পাওয়া প্রস্তাবগুলো সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরেন।

অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল বারিক অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিস্তারিত তুলে ধরে বলেন, সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২৯তম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় অনুমোদনের জন্য ৯টি প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয়। ক্রয় প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের ৪টি, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের ২টি, বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের ১টি, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের ১টি এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের ১টি প্রস্তাবনা ছিল। ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ৬টি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ১ হাজার ২৭ কোটি ৯৯ লাখ ৫৫ হাজার ২১৬ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি থেকে ব্যয় হবে ৩৭৮ কোটি ১৮ লাখ ৭৭ হাজার ৪৪৭ টাকা এবং দেশীয় ব্যাংক ও বৈদেশিক ঋণ ৬৪৯ কোটি ৮০ লাখ ৭৭ হাজার ৭৬৯ টাকা।

তিনি জানান, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন গণপূর্ত অধিদপ্তরের মাধ্যমে ঢাকার মোহাম্মদপুর হাউজিং এস্টেটের আসাদ এভিনিউতে (গৃহায়ণ কনকচাপ) কম্পাউন্ডে তিনটি ১৪তলা আবাসিক ভবন নির্মাণকাজ করবে দ্য ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যান্ড আর্কিটেক্টস লিমিডেট। এজন্য ১৪৪ কোটি ৩৬ লাখ ৪৭ হাজার ৪৪৭ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল বারিক বলেন, সৌদি আরব, কাতার ও দেশীয় একটি প্রতিষ্ঠান থেকে মোট ৯০ হাজার টন ইউরিয়া সার কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এ সার কিনতে খরচ ধরা হয়েছে ৫৯৮ কোটি ৫৭ লাখ ৫৪ হাজার ৭৪০ টাকা।

সভায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কলপোরেশনের (বিসিআইসি) মাধ্যমে বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেডের (কাফকো) কাছ থেকে ষষ্ঠ লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৯৭ কোটি ৪৬ লাখ ৬৩ হাজার ৭৫০ টাকায় কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া বিসিআইসির মাধ্যমে কাতারের মুনতাজাত থেকে ষষ্ঠ লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ২০০ কোটি ৫৫ লাখ ৪৫ হাজার ৪৯৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বিসিআইসির মাধ্যমে সৌদি আরবের সেবিক এগ্রি-নিউট্রিয়েন্ট কোম্পানি থেকে নবম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ২০০ কোটি ৫৫ লাখ ৪৫ হাজার ৪৯৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও বৈঠকে বিসিআইসি মাধ্যমে ডিএপি ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএপিএফসিএল) জন্য ৩০ হাজার মেট্রিক টন ফসফরিক এসিড ২৩৩ কোটি ৮২ লাখ ৩০ হাজার টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

স্বাধীন বাংলা/এআর

বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সফলতার সঙ্গে পরিচালিত হচ্ছে : তাপস
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সফলতার সঙ্গে পরিচালিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। তিনি বলেন, ডিএসসিসি এলাকায় ৯০ ভাগ বর্জ্য আগে উন্মুক্ত অবস্থায় থাকত। বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্র ছিল মাত্র ৫০টি। আমরা গত দুই বছরে নতুন ৩৫টি বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্র স্থাপন করেছি। আরও বেশ কয়েকটির কাজ চলমান আছে।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর খিলগাঁও এলাকার বালুর মাঠ সংলগ্ন অন্তর্বর্তীকালীন বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্রের উদ্বোধন শেষে তিনি এসব কথা বলেন। শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ঢাকা শহর এখন আর ময়লার ভাগাড় নয়। আগে যেখানে ৯০ শতাংশ বর্জ্য উন্মুক্ত অবস্থায় থাকত, সেটি কমিয়ে ৩০ শতাংশ নামিয়ে এনেছি। আগে যেখানে যত্রতত্র আবর্জনা ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকত, এখন আর তা হয় না। পরে স্থানীয় কাউন্সিলরের উদ্যোগ কেক কেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপন করেন মেয়র তাপস।

এসময় তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নের কারিগর ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের অধিকারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন আজ। দিনটি উপলক্ষে দেশব্যাপী উৎসবমুখর পরিবেশে নানা কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। বাংলাদেশ আজ অনেক এগিয়ে গেছে। আমরা কামনা করি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই যেন আমরা উন্নত বাংলাদেশ গড়তে পারি।

অনুষ্ঠানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনিসুর রহমান, ডিএসসিসি প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিনসহ দক্ষিণ সিটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিআরটি উড়াল সেতুর ৫ লেন চালু হচ্ছে
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক
সাধারণ মানুষের ভোগান্তি বিবেচনায় শিগগিরই খুলে দেয়া হতে পারে বাস র‌্যাপিট ট্রানিজিট বা বিআরটি প্রকল্পের একাংশ। ঢাকা-গাজীপুর সড়কের টঙ্গী ব্রিজ ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে, আর এ কারণেই যাতায়াতের বিকল্প মাধ্যম হিসেবে বিআরটির একাংশ খোলার পরিকল্পনা কর্তৃপক্ষের।

টঙ্গীর স্টেশন রোড থেকে হাউজ বিল্ডিং। দ্রুতগতির গাড়ির জন্যেই তৈরি হচ্ছে এই দৃষ্টিনন্দন অবকাঠামো। নানা জটিলতার পর গতি ফিরেছে কাজে। অন্তত ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকা থাকা, উচু-নিচু এবড়ো থেবড়ো রাস্তার ঝক্কি ঝামেলার সমাপ্তি হতে যাচ্ছে। বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট প্রকল্প পরিচালক মহিরুল ইসলাম খান বলেন, “হাউজ বিল্ডিং থেকে টঙ্গির ফায়ার সার্ভিস পর্যন্ত ২.৩ কিলোমিটারের উড়াল সেতু। এটা প্রস্তুত করা হয়েছে খুলে দেওয়ার জন্য।”

মেগাসিটি রাজধানী ঢাকায় প্রবেশের অন্যতম ব্যস্ত করিডোর গাজীপুর-টঙ্গি-আব্দুল্লাপুর-এয়ারপোর্ট এই সড়কটিতে বাস র‌্যাপিট ট্রানজিটের মতো একটি মেগাপ্রকল্পের বাস্তবায়ন যেমন ছিল চ্যালেঞ্জে ভরা ঠিক তেমনিভাবে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে নাগরিকদের। প্রকল্পটির কাজ এখনও চলমান কিন্তু এরমধ্যেই এই প্রকল্পের সুবিধা নাগরিকদের কাছে পৌঁছে দিতে এর একটি অংশ চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার।

তবে এক্ষেত্রে প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন যে এ অংশটি যারা ব্যবহার করবেন তাদেরকে কিছুটা বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। বিশেষ করে টঙ্গির সেতুর কাছে যে অংশটি রয়েছে সেখানে একটি অস্থায়ী ওয়াল দেওয়া রয়েছে। এখানে চালকরা যেন কিছুটা সতর্কতা নিয়ে তাদের গাড়িগুলো চালিয়ে চলে যান।

শতবর্ষী টঙ্গী ব্রিজ ভেঙ্গে ফেলা হবে, বিকল্প হিসেবে বিআরটির ১০ লেনের উড়াল সেতুর ৫টি লেন উন্মুক্ত হচ্ছে। মহিরুল ইসলাম খান বলেন, “টঙ্গির ব্রিজ অংশের ৯০ মিটারের ৫ লেন ইতিমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। বাকি পাঁচ লেন পূর্বদিকে বানাতে হবে।” প্রকল্পের পরিকল্পনায় বিমান বন্দর থেকে গাজীপুর ২০ দশমিক পাঁচ কিলোমিটার পথে প্রতিঘন্টায় ২০ হাজার মানুষ চলাচল করতে পারবে। নকশাসহ নির্মাণের বিভিন্ন জটিলতায় প্রকল্পটি ৪ বছরের স্থলে ১১ বছরে পৌঁছেছে। আর খরচ বেড়েছে ১শ’ ৯ গুন।

দামী কোম্পানির মোড়কে নকল মাল, জরিমানা ২ লাখ
                                  

মো: আজমাইন মাহতা:

ইউনিলিভার, প্রাণ, স্কয়ার, বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের লাল চিনিসহ দেশী এবং বিদেশী নামিদামি সব কোম্পানির মোড়ক (প্যাকেট) বিক্রি হচ্ছে চকবাজারে। যে কেউ চাইলেই যেকোনো ব্র্যান্ডের প্যাকেট অর্ডার করতে পারবেন। নিমিশেই হুবহু আসলের মত প্যাকেট প্রস্তুত করে দেবে। যা সাধারণ মানুষের চোখে ধরা পড়বে না। ভোক্তারা আসল পণ্য ভেবে নকল পণ্য কিনে প্রতারিত হবেন।

এমন নকল প্যাকেট চকবাজারের কয়েকটি দোকান থেকে রাজধানীসহ সারা দেশে সাপ্লাই দেওয়া হয়। এসব অসাধু ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে সারাদেশে নকল পণ্য ছড়িয়ে পড়ছে। প্রতিনিয়ত প্রতারিত হচ্ছেন ভোক্তারা।

রোববার নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে পুরান ঢাকার চকবাজারে অভিযান চালায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। অভিযান পরিচালনা করেন ভোক্তা অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা কার্যালয়ের অফিস প্রধান ও সহকারী পরিচালক মোঃ আব্দুল জব্বার মন্ডল, প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ শরিফুল ইসলাম ও রজবী নাহার রজনী।

তথ্যের ভিত্তিতে চকবাজারের সিয়াম প্যাকেজিং নামের প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালানো হয়। এই প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের লাল চিনি, ডিটারজেন্ট, বিস্কুট, চানাচুর, চিপস, মসলা, চা, চালসহ নামিদামী বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নকল মোড়ক (প্যাকেট) বিক্রি করতে দেখা যায়। এবং বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ডিটারজেন্ট অবৈধভাবে বিক্রির প্রমাণ পাওয়া যায়। এসব অপরাধে এই প্রতিষ্ঠানকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এবং জনস্বার্থে আগামী সাত দিনের জন্য এই প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

এছাড়া আমদানীকারক ছাড়া বিদেশী পণ্য বিক্রি এবং পণ্যের মোড়কে মূল্য না থাকায় ইউনুস এন্টারপ্রাইজ এবং আমান বিউটি কনসেপ্টকে ২০ হাজার করে মোট ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানের বিষয়ে আব্দুল জব্বার মণ্ডল বলেন, চকবাজারের সিয়াম প্যাকেজিং নামের প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন কোম্পানির প্যাকেট হুবহু নকল করে বিক্রি করছিল। বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের লাল চিনির কয়েক লাখ নকল প্যাকেট এখান থেকে বিক্রি করা হয়েছে। এসব অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে এবং আগামী সাত দিনের জন্য প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে ভোক্তা অধিদপ্তরে প্রতিষ্ঠানের সকল কাগজপত্র সহ মালিককে উপস্থিত হয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। যদি সঠিক কাগজপত্র এবং ব্যাখ্যা দিতে পারে তবে এই প্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দেওয়া হবে অন্যথায় স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেওয়া হবে।

নিজেদের অপরাধ স্বীকার করে ব্যবসায়ীরা বলেন, অনেক ছোট ছোট প্রতিষ্ঠান এসে বিভিন্ন কোম্পানির প্যাকেটের অর্ডার করলে হুবহু প্যাকেট সাপ্লাই দেওয়া হয়। চকবাজারে এমন অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যারা এমন নকল প্যাকেট বিক্রি করেন। এসব নকল প্যাকেট কেরানীগঞ্জে কারখানায় তৈরি করা হয় বলেও জানান ব্যবসায়ীরা।

নিজস্ব গাড়ির লাগাম টানতে স্কুলবাসের উদ্যোগ
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
যানজটের লাগাম টানার পাশাপাশি জ্বালানি সাশ্রয়ের স্কুল বাস চালুর উদ্যোগ নিচ্ছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। এরইমধ্যে অভিভাবক ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সাথে বাস সার্ভিস নিয়ে আলোচনাও শুরু করেছে তারা। শুরুতে চারটি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে এই সেবা চালু করতে চায় সিটি করপোরেশন।

স্কুল শুরুর সময়ে রাজধানীর সড়কগুলো থাকে রিকশা ও প্রাইভেটকারের দখলে। যানজটের ঢেউ আছড়ে পড়ে গোটা নগরে। স্কুলে যাওয়া-আসায় এই দুটি বাহনের ব্যবহারই সবচে বেশি। ফলে স্কুল শুরু ও ছুটির সময় রাজধানীর প্রায় সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে যানবাহন জট পাকিয়ে থাকে ঘণ্টার পার ঘণ্টা।

স্কুল সময়েই সবচেয়ে বেশি প্রাইভেট কার চলে। আর এটিই যানজনের অন্যতম কারণ। এই পর্যক্ষেণ ট্রাফিক বিভাগ ও সিটি করপোরেশনের। যানজট কমানোর ভাবনা থেকেই প্রাথমিকভাবে রাজধানীর চারটি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের শিক্ষার্থীদের স্কুলবাসে আনা-নেয়ার পরিকল্পনা করেছে উত্তর সিটি করপোরেশন।

গুলশান বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল টিউটরিয়ালের প্রধান শিক্ষিকা মাহমুদা জাহানারা বলেন, “এখন যদি বাস হয় তাহলে কর্মজীবী মানুষের অনেক উপকার হবে। আর যারা চাচ্ছে না তারা নিশ্চয়ই সেফটি-সিকিউরিটি সবকিছু দেখে ওনারও এগ্রি করবেন, আমাদের বিশ্বাস।” সিটি করপোরেশনের এই উদ্যোগে আগ্রহ আছে শিক্ষার্থীদের। অভিভাবকরা বলছেন, স্কুলবাসে সন্তানকে নিরাপদে পাঠাতে পারলে অবশ্যই ভালো হবে।

অভিভাবকরা বলেন, “এটা তো খুব দরকার। একসঙ্গে যখন ওরা একটা বাসে আসবে ওদের মধ্যে সহযোগিতার মনোভাব গড়ে উঠবে। সব বাচ্চারা মনে করবে একই স্কুলে পড়ি, একই বাসে এসেছি। এখানে টাকার ক্ষেত্রেও সাশ্রয় হয়, আসা-যাওয়ায়ও সুবিধা হবে।” এ উদ্যোগ বাস্তবায়নে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথাও মাথায় রাখছে সিটি করপোরেশন। স্কুলবাস চালুর পর শিক্ষার্থীদের নিয়ে আসা ব্যক্তিগত গাড়ি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১০০ গজের মধ্যে ঢুকতে দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন উত্তর সিটির মেয়র।

ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, “যখন আপনার বাচ্চা স্কুলবাসে উঠবে তখনই তার স্কুলের প্রেজেন্টস অটোমেটিকভাবে হয়ে যাচ্ছে। ৪ হাজার স্টুডেন্টস ৪ হাজার গাড়ি, ১০ হাজার স্টুডেন্টস ১০ হাজার গাড়ি সেক্ষেত্রে ৫০ জন শিক্ষার্থীর জন্য একটি বাস দেই তাহলে একটি বাসে ৫০টি গাড়ি সেফ হয়ে গেল।”

সিটি কর্তৃপক্ষ মনে করছে, ঢাকায় স্কুলবাস চালু হলে যানজট অনেকাংশেই কমবে। তবে এই উদ্যোগ বাস্তবায়নে দরকার অভিভাবকদের সদিচ্ছা।

২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিচার না হলে সুইসাইড করব : ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রী
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
নির্যাতনের অভিযোগ এনে রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস বলেছেন, আমরা তাদের (সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানা) কাছের মানুষ হতে পারিনি। তাই আমাদের নির্যাতন করা হচ্ছে। (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত দেড়টার দিকে গণমাধ্যমের সামনে এসব কথা বলেন তিনি।

সভাপতি ও সম্পাদকের ন্যায়-অন্যায়গুলো আমরা যারা ধরিয়ে দেই তারাই শত্রু হয়ে গেছি। কারণে অকারণে আমাদের হেনস্তা করা হচ্ছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যদি এই ঘটনার বিচার না হলে আমি সুইসাইড করব।

কী কারণে তাকে নির্যাতন করা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মূল সমস্যা হচ্ছে হলের পলিটিক্যাল (রাজনৈতিক) রুমগুলো। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক একচ্ছত্রভাবে হলের সিট বাণিজ্য করতে চান। যারা এর প্রতিবাদ করেছে তারাই তাদের শত্রু হয়ে গেছে।

ছাত্রলীগের ওপর মহলে বিষয়গুলো জানানোর পরও কোনো সুরাহা হয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি আমার জায়গা থেকে ছাত্রলীগের ওপর মহলে বিষয়গুলো জানিয়েছি। আর সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্য তো ফোনই রিসিভ করেন না। তাদেরকে কীভাবে জানাব।

রাজিয়া হলে আমার রুমে হামলা করার সময় আমি সংশ্লিষ্ট হল সুপার সোমা ম্যাডামকে জানিয়েছি যেন তিনি দ্রুত ব্যবস্থা নেন। এর আগেই গেট দিয়ে প্রবেশ করার সময়ই আমার ওপর হামলা হয়। হাতে ও শরীরে আঘাত পেয়েছি। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুসারী যারা সেখানে ছিলেন তাদের দিয়ে আমাদের ওপর সম্মিলিত হামলা করা হয়েছে। এ সময় আমার বোনকেও আঘাত করা হয়েছে।

তবে জান্নাতুল ফেরদৌসকে কোনোরকম শারীরিক নির্যাতন করা হয়নি বলে দাবি করেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুসারী সহ-সভাপতি রুকসানা আক্তার।

তিনি বলেন, জান্নাতুল ফেরদৌস সাধারণ শিক্ষার্থীদের নানাভাবে হেনস্থা করেন। শিক্ষার্থীরাই তাকে সম্মিলিতভাবে প্রতিহত করেছে। আর কোনো প্রকার শারীরিক নির্যাতনের ঘটনাও ঘটেনি। এখানে উপস্থিত ম্যাডামরাও সেটি দেখেছেন।

এসব অভিযোগের ব্যাপারে জানতে ইডেন মহিলা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে কলেজে খুঁজে পাওয়া যায়নি। মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তারা ফোন রিসিভ করেননি।

অপরদিকে এই ঘটনার সমাধান করতে রাত তিনটার দিকে ক্যাম্পাসে আসেন ইডেন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক সুপ্রিয়া ভট্ট্যাচার্য। এ সময় তিনি বিচারের দাবিতে মুখোমুখি অবস্থান নেওয়া উভয়পক্ষের সাথে কথা বলে সকালে লিখিত অভিযোগ জমা দেওয়ার জন্য বলেন। তবে রাতেই অধ্যক্ষের কাছে শিক্ষার্থীদের লিখিত অভিযোগ জমা দেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলেও জানা গেছে।

মৌলভীবাজার জেলা সমিতি ঢাকা’র নতুন কমিটি গঠন
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানী ঢাকায় বসবাসকারী মৌলভীবাজার জেলার অভিবাসীদের সংগঠন “মৌলভীবাজার জেলা সমিতি ঢাকা” এর সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় সেগুনবাগিচা কেন্দ্রীয় কচিকাঁচার মেলা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ ড. খলিকুজ্জামান।

এছাড়া বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও ইস্ট কোষ্ট গ্রুপের চেয়ারপার্সন আজম জাহাঙ্গীর চৌধুরী এবং মৌলভীবাজার-৩ আসনের সাবেক এমপি নাসের রহমান

সভায় মৌলভীবাজার সমতি ঢাকা’র ২০২২-২৩ সালের জন্য ২২ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

নতুন কমিটির সভাপতি হলেন- ডঃ মোস্তাক আহমেদ, সহ- সভাপতি যথাক্রমে- বনমালী ভৌমিক, এড. মোঃ জসিম উদ্দিন আহমেদ, মোঃ মানিক মিয়া, ক্যাপ্টেন(অবঃ) মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাবিবুর রহমান বাবলা, যুগ্ম সম্পাদক- এড. মোঃ আতিকুর রহমান ও সৈয়দ মোহাম্মদ আব্দুল হাকিম তাহমী, সাংগঠনিক সম্পাদক- ব্যারিস্টার ফয়েজ উদ্দিন আহমদ,কোষাধ্যক্ষ- মোঃ এলাইছ মিয়া, সাহিত্য সম্পাদক-মোঃ নেছার আলী, প্রচার সম্পাদক- সৈয়দ তানজিল মোক্তাদির (রাফি), সংস্কৃতি সম্পাদক- আব্দুল মজিদ চৌধুরী মিন্টু, ক্রীড়া সম্পাদক- মোঃ আনোয়ার হোসেন শিপলু, দপ্তর সম্পাদক- মোহাম্মদ মাহবুব মোর্শেদ ইমন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক - ব্যারিস্টার সীমা করিম।

এ কমিটির সদস্যরা হলেন- আব্দুল কাদির মাহমুদ, এড. তবারক হোসেন, এড. মোঃ আকদ্দস আলী, মোঃ বশীর আহমদ, রবিন্দ্র কুমার সিংহ।

পুরান ঢাকায় প্রতিমায় তুলির আঁচড় দিতে ব্যস্ত শিল্পীরা
                                  

মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ : প্রকৃতিতে শরতের শুভ্রতার সঙ্গে আসছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। শিশির ভেজা ভোর আর শরতের কাশফুল জানান দিচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসবের আগমনী বার্তা। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস দুষ্টের দমন আর শিষ্টের পালনের জন্যই দেবী দুর্গার স্বর্গ থেকে আগমন ঘটেছিল মর্ত্যলোকে।

এরই ধারাহিকতায় হিন্দুধর্মাবলম্বীরা প্রতি বছর শারদীয় উৎসব হিসেবে দুর্গাপূজা উদযাপন করে আসছে। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজাকে ঘিরে রাজধানীর পুরান ঢাকায় চলছে সাজ সাজ রব। এরই মাঝে এখানকার মন্ডপগুলোর প্রতিমা তৈরিতে কারিগরেরা ব্যস্ত সময় পার করছেন।

দুর্গোৎসবের প্রধান অনুষঙ্গ হলো দেবী দুর্গার প্রতিমা। উৎসব সামনে রেখে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন মৃৎশিল্পীরা। মৃৎশিল্পীদের নিপূণ হাতের ছোঁয়ায় মাটির মূর্তি গুলো হয়ে উঠছে অপরূপ। খড় আর কাদা মাটি দিয়ে প্রতিমা তৈরি শেষে এখন চলছে মূর্তির উপর প্রলেব ও রঙ্গের কাজ। একই সাথে শরতের দুর্গোৎসবকে পরিপূর্ণভাবে সাজাতে দিনরাত মন্দির গুলোতে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। পূজা শুরুর আগেই মা দুর্গাকে তুলতে হবে মণ্ডপে। ইতোমধ্যে প্রতিমার কাঠামোর মাটির কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এরপর শুরু হবে রং ও সাজসজ্জার কাজ।

পুরান ঢাকার বেশ কয়েকটি পূজামন্ডপ ঘুরে দেখা গেছে, কাদা-মাটি, বাঁশ, খড়, সুতলি দিয়ে শৈল্পিক ছোঁয়ায় তিলতিল করে গড়ে তোলা হচ্ছে দেবীদুর্গার প্রতিমা। কারিগররা প্রতিমা তৈরিতে দিনরাত ব্যস্ত সময় পার করছেন। দম ফেলার সময় নেই কারিগরদের। সুনিপুণ হাতে মাটি ও রং তুলির ছোঁয়ায় দেবীকে রাঙিয়ে তুলতে ব্যস্ত শিল্পীরা। প্রতিটি পূজা মণ্ডপে প্রতিমা বানানোর কাজ শেষ। এখন রঙ তুলির আঁচড়ে সাজানো হচ্ছে এসব মূর্তি। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত কেউ কাঁদা তৈরি করছেন, কেউ কাঁদা থেকে হাত-পা বানাচ্ছেন, আবার কেউ ব্যস্ত রং করায়। প্রতিমা শিল্পীদের সঙ্গে ব্যস্ত সময় পার করছেন তাদের কারিগররাও।

ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রতিমার কারিগররা ব্যস্ত সময় পার করছেন। নিখুঁতভাবে মনের মাধুরি মিশিয়ে তারা প্রতিমা তৈরির কাজ করছেন। ব্যস্ততায় যেন দম ফেলার ফুরসত নেই প্রতিমা শিল্পীদের। নিপুন হাতের ছোঁয়ায় তৈরি হচ্ছে দেবী দূর্গা, লক্ষ্মী, সরস্বতী, কার্তিক, অসুরসহ বিভিন্ন দেব-দেবীর মূর্তি। দেবী দুর্গা ও তার বাহন সিংহের প্রতিমাসহ তৈরি করা হচ্ছে যাকে বধের জন্য দেবীর আগমন সেই মহিষাসুরের প্রতিমা। এছাড়াও তৈরি হচ্ছে দেবী লক্ষ্মী, সরস্বতী, দেবতা কার্তিক, গণেশ, এবং তাদের বাহন পেঁচা, হাঁস, ইঁদুর আর ময়ূর। এমনটাই প্রতিমা তৈরির মাঠ গুলো ঘুরে লক্ষ্য যায়।

এদিকে বাংলাবাজারের নর্থব্রুক হল রোডের জমিদার বাড়িতে দুর্গার বাহকসহ প্রতিমার শাড়ি ও অলংকার পরানোর কাজও ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে। আলোকসজ্জা ও রঙিন কাগজ দিয়ে সাজান হচ্ছে প্রতিটি মণ্ডপ। প্রতিমা দেখতে এখনই দর্শনার্থীরা মণ্ডপে মণ্ডপে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

বাঙালি হিন্দুর উৎসবের ঢাকে কাঠি পড়া শুরু হয় ষষ্ঠীর আগে থেকেই। এবারের দুর্গাপূজা ১ অক্টোবর (১৪ই আশ্বিন) ষষ্ঠী পূজা দিয়ে শুরু করে ৫ অক্টোবর (১৮ই আশ্বিন) বিজয়া দশমী দিয়ে শেষ হবে। এর আগে পঞ্চমী থেকেই শুরু হয়ে যায় উৎসবের আমেজ। তবে ষষ্ঠী থেকেই কার্যত উৎসবের ঢাকে কাঠি পড়া শুরু হয়। শাস্ত্রমতে দুর্গাপুজোর মহাষষ্ঠীর দিন বোধন হয়।

রাজধানীতে সবচেয়ে বেশি পূজা উদযাপিত হয় পুরান ঢাকায়। এবার শাঁখারিবাজার, তাঁতীবাজার, লক্ষ্মীবাজার, সূত্রাপুর, শ্যামবাজার, প্যারীদাস রোড, কলতাবাজার, মুরগিটোলা, মদনমোহন দাস লেন, বাংলাবাজার গোয়ারনগর, জমিদারবাড়ী, গেণ্ডারিয়া, ডালপট্টি এলাকার অলিগলিতে পূজার আয়োজন করা হবে। ছোট-বড় বিভিন্ন মণ্ডপে শুরু হয়েছে মঞ্চ, প্যান্ডেল, তোরণ ও প্রতিমা নির্মাণের কাজ।

এ বছর পুরান ঢাকায় নবকল্লোল পূজা কমিটি, শ্রীশ্রী শিব মন্দির, প্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাব, সংঘমিত্র পূজা কমিটি, শ্রীশ্রী রাধা মাধব জিউ দেব মন্দির, নতুন কুঁড়ি পূজা কমিটি, নববাণী পূজা কমিটি, রমাকান্ত নন্দীলেন পূজা কমিটিসহ আরও বেশ কিছু ক্লাব পূজা আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে। তবে শিবমন্দীর, তাঁতী বাজার, সঙ্গ মিত্র, প্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাব, গোয়ালনগর ঘাট, জুলন বাড়ীতে বড় পূজার আয়োজন করা হচ্ছে।

কারিগররা সাধারণত অজন্তা ধাঁচের মূর্তি বানিয়ে থাকেন। এগুলো ওরিয়েন্টাল প্রতিমা হিসেবে পরিচিত। অজন্তা ধাঁচের মূর্তির চাহিদা এখন বেশি। এ ধরনের মূর্তিতে শাড়ি, অলংকার ও অঙ্গসজ্জা সবই করা হয় মাটি ও রঙ দিয়ে। প্রতিমার শাড়ি, অলংকার, সাজসজ্জার উপকরণ আলাদাভাবে কিনে নিতে হয়।

মৃৎশিল্পীরা জানান, প্রতিবছরই তারা অধীর আগ্রহে দেবী দুর্গার প্রতিমা তৈরির কাজের অপেক্ষায় থাকেন। শুধুমাত্র জীবিকার জন্যই নয়। দেবী দুর্গার প্রতিমা তৈরির সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে তাদের ধর্মীয় অনুভূতি, ভক্তি আর ভালোবাসা। দুর্গা মাকে মায়ের মতোই তৈরি করা হচ্ছে।

শাঁখারিবাজারের সংঘমিত্র পূজা কমিটির মণ্ডপে দেবী দুর্গার প্রতিমা তৈরি করছেন মানিকগঞ্জের সুকুমার পাল। এবারের দুর্গোৎসবে এখানকার ছয়টি প্রতিমা সহ বনানীতে আরও ছয়টি বানাচ্ছেন তিনি। সুকুমার পাল জানান, সর্বনিম্ন ৫০ হাজার টাকা থেকে সর্বোচ্চ চার লাখ টাকায় এসব প্রতিমা বানানো হচ্ছে।

বাংলা বাজারে জমিদার বাড়িতে পূজামণ্ডপের প্রতিমায় রঙ দেয়ায় ব্যস্ত মৃৎ শিল্পী বলাই পাল। তিনি বলেন, ‘এখনই বছরের সবচেয়ে বেশি ব্যস্ত সময় পার করছি। পূজার আর মাত্র কয়েকটা দিন বাকি। তাই দম ফেলার সময়ও নেই। এর মধ্যেই দেবী দুর্গার প্রতিমা তৈরির সব কাজ শেষ করতে হবে।’

কাজ শেষে বিশ্রামের ফাঁকে প্রতিমা শিল্পী পল্টন পাল বলেন, ‘যত কষ্টই করি না কেন, যখন দেবীকে তার স্বরূপে মণ্ডপে বসানো হবে তখন সব কষ্ট দূর হয়ে যাবে। আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে যখন আমাদের তৈরি প্রতিমাকে সবাই পূজা করে। তখন নিজেকে আমার সফল, সার্থক মনে হয়।’

শাঁখারি বাজারের প্রতিমা শিল্পী সুশীল নন্দী গত হওয়ায় এবার এ মন্ডপের প্রতিমা তৈরির দায়িত্ব নিয়েছেন তার মেয়ে অনামিকা নন্দী। তিনি বলেন, জন্মের পর থেকেই বাবার কাছে এই কাজ দেখে ও শিখে আসছি। প্রাথমিকভাবে খড়, কাঠ, বাঁশ, সুতা, তারকাটার প্রয়োজন হয়। মূর্তি শুকানোর পর রঙ করা হয়।

এদিকে জগন্নাথ এপার্টমেন্টে বেশ কয়েকটি প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত ধষরত পাল। তিনি জানান, মানিকগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, পাটুরিয়া, সাভার সহ বেশ কিছু জায়গা থেকে মাটি আনা হয়। আর সব জায়গার মাটি দিয়ে মায়ের প্রতিমা তৈরি করা হয়।

প্রতিমা তৈরির কা‌রিগর নিশি পাল জানান, খড় আর কাঁদামাটি দিয়ে প্রতিমা তৈরির প্রাথমিক কাজ প্রায় শেষের দিকে। এখন রঙ আর তুলির আঁচড় দিয়ে দুর্গাকে সাজানো হবে। এদিকে প্রতিমা তৈরির উপকরণের দাম বাড়ছে প্রতি বছরই। তবে শুধুমাত্র পারিশ্রমিক নয় মায়ের ভক্তি পেতেই তাকে প্রকৃত রূপে ফুটিয়ে তুলতে পরিশ্রম করে তার শক্তিতে কাজ করে যাচ্ছেন তারা।

দুর্গাপূজার আয়োজন নিয়ে শিব মন্দীর পূজা কমিটির কোষাধ্যক্ষ দেবব্রত ঘোষ গগণ বলেন, পূজায় সর্বস্তরের মানুষের সমাগম ঘটবে। এটা যেমনি হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব। তেমনি এতে অন্য ধর্মের বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশগ্রহণ করে। তাই সবার কথা মাথায় রেখে সব ধরনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, ইউনেস্কোর তালিকায় স্থান পেয়েছে বাঙালির প্রধান উৎসব দুর্গাপুজো। ইউনেস্কোর ইনট্যানজিবল কালচারাল হেরিটেজ অব হিউম্যানিটি হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে দুর্গাপুজোকে। ফ্রান্স, বেলজিয়াম, সুইজারল্যান্ড, ব্রাজিল, বলিভিয়ার মতো বিশ্বের মাত্র ৬ দেশের উৎসব এখনও পর্যন্ত ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পেয়েছে। এবার সেই তালিকায় যোগ হয়েছে দুর্গাপূজা।

ডেঙ্গুতে ঢাকার ২৭টি ওয়ার্ড বেশি ঝুঁকিপূর্ণ
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।প্রায় প্রতিদিনই মশাবাহিত এ রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন চার শতাধিক রোগী। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক জরিপে দেখা গেছে, রাজধানী ঢাকার উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ১৩টি ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১৪টি ওয়ার্ড ডেঙ্গুতে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ।

বুধবার সকালে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নতুন ভবনের সভাকক্ষে আয়োজিত রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম বর্ষাকালীন জরীপ প্রকাশ বিষয়ক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য তুলে ধরেন।

তিনি জানান, ডিএনসিসির ৪০ ওয়ার্ডে ৪৮টি সাইট এবং ডিএসসিসির ৫৮টি ওয়ার্ডে ৬২টি সাইটসহ মোট ১১০টি সাইটে ৩ হাজার ১৫০টি বাড়িতে সার্ভে পরিচালনা করা হয়েছে। ২১টি টিমের মাধ্যমে ১০ দিনব্যাপী এই স্টাডি পরিচালনা করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। প্রতিটি টিম অন্তত ১৫টি সাইট সার্ভে করে।

জরিপের ফলাফলে দেখা গেছে, ৩ হাজার ১৫০টি বাড়িতে পরিচালিত এই সার্ভেতে ২ হাজার ৮২৯টি বাড়িতেই নমুনা পরীক্ষায় ফলাফল নেগেটিভ এসেছে, আর ১৫৯টি বাড়িতে ডেঙ্গু ফলাফল পজিটিভ এসেছে। মোট পজিটিভ আসা বাড়িগুলোর মধ্যে ৬৩টি বাড়ি ডিএনসিসিতে এবং ৯৬টি বাড়ি ডিএসসিসিতে অবস্থিত।

এতে বলা হয়েছে, শতাংশ বিবেচনায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকার ১৩ শতাংশ বাড়িতে ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেছে। এছাড়াও ঢাকা সিটি করপোরেশনের প্রায় ১২ শতাংশ বাড়িতে এ লার্ভা পাওয়া যায়। দুই সিটি করপোরেশন মিলিয়ে দেখা যায় ১০ শতাংশ বাড়িতেই এই লার্ভা পাওয়া গেছে। জরিপে দেখা গেছে, দুই সিটিতে পড়ে থাকা বা ফেলে রাখা ভেজা পাত্রে সবচেয়ে বেশি মশার লার্ভা পাওয়া গেছে।

এছাড়াও ঘর বা ভবনের মেঝে প্লাস্টিকের ড্রাম বা প্লাস্টিকের নানা ধরনের পাত্রেও এই লার্ভা পাওয়া যায়। ঢাকা দক্ষিণ করপোরেশনের ২৬ শতাংশ এ ধরনের পাত্রে ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২২ শতাংশ পাত্রে মশার এ লার্ভা পাওয়া গেছে। ১১ থেকে ২৩ শে আগস্ট দুই করপোরেশনে এই জরিপ হয়েছে।

জরিপকারীরা ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ৬২টি ওয়ার্ডে তারা মোট ১ হাজার ৮৩০টি বাড়ি পরীক্ষা করেছেন। এসব বাড়িতে তারা মোট ১ হাজার ৩৩৭টি ভেজা পাত্র দেখেছিলেন। তারা প্রায় ১২ শতাংশ বাড়িতে মশার লার্তা পেয়েছেন। অন্যদিকে প্রায় ২২ শতাংশ ভেজা পাত্রে মশার লার্তা ছিল। মশার ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি দেখা গেছে ৮ নম্বর ওয়ার্ড (কমলাপুর ও মতিঝিল), ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড ( নবাবপুর ও বংশাল) এবং ৪১ নম্বর ওয়ার্ডে ওয়ারী ও নারিন্দা)।

কনসার্টে পদদলিত হয়ে গুয়েতেমালায় ৯ মৃত্যু
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক
দক্ষিণ আমেরিকার দেশ গুয়েতেমালায় স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত একটি কনসার্টে পদদলিত হয়েছে ৯ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ২০ জন আহত হয়েছেন।বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) গুয়েতেমালার কোয়েটজাল্টেনাঙ্গোতে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানিয়েছে যে রাজধানী গুয়াতেমালা সিটি থেকে প্রায় ২০০কিলোমিটার পশ্চিমে, কোয়েটজাল্টেনাঙ্গোতে ঐতিহ্যবাহী ‘জেলাফার’ উত্সব চলাকালীন একটি কনসার্টের শেষে হাজার হাজার মানুষ বের হওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ধাক্কাধাক্কি ও হুড়োহুড়িতে নিচে পরে গিয়ে অনেক মানুষ পদদলিত হন। এতে ৯ জন নিহত ও ২০ জন আহত হয়েছে বলে উদ্ধারকারীরা জানিয়েছে।

ফার্স্ট এইড কর্মীরা আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

উদ্ধারকারীরা একটি টুইটে জানিয়েছে, গুয়েতেমালা রেডক্রস এবং উদ্ধারকারীরা ঘটনাস্থল থেকে ৯ জনের মরদেহ ও ২০ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে।

মধ্য আমেরিকার দেশটিতে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয় বলে স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে। করোনার কারণে গত দুই বছর স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান বন্ধ থাকার পর এবছর নিজেদের স্বাধীনতা দিবস বিভিন্ন উৎসব ও আয়োজনের মধ্যে দিয়ে উদযাপনের উদ্যোগ নেয় গুয়েতামালা।

১৮২১ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর স্পেনের ঔপনিবেশিকদের হটিয়ে দিয়ে স্বাধীনতা অর্জন করে গুয়েতেমালা।

লোক বাড়ছে রাজধানীতে, কমেছে যাত্রী ছাউনি
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
আগে মানুষ ছিল কম কিন্তু যাত্রীছাউনি ছিল পর্যাপ্ত। এখন লোকসংখ্যা বাড়লেও কমেছে ছাউনির সংখ্যা। দুই সিটি করপোরেশনে ১৪০টি যাত্রীছাউনি থাকলেও বৃষ্টিতে তা একেবারেই অকার্যকর।

আড়াই কোটি মানুষের শহর ঢাকায় প্রতিদিন ঘরের বাইরে চলাফেরা করেন প্রায় ৫০ লাখ মানুষ। এতো এতো মানুষের চলাচলের জন্য নেই যাত্রীছাউনি। ক’বছর আগেও রাস্তার মোড়গুলোতে দেখা গেলেও সম্প্রতি উধাও ছাউনিগুলো। যে কারণে বৃষ্টি কিংবা রোদ থেকে আপাতত রক্ষা পাওয়ার উপায় নেই রাজধানীবাসীর।

জানতে চাইলে এক ভুক্তভুগী বলেন, যাত্রীছাউনিগুলো বিভিন্নভাবে দখল হয়ে গেছে, সিটি কর্পোরেশনের কেউ মনে হয় দেখার মত নেই।

আরেকজন বলেন, আমরাতো সরকারকে ট্যাক্স সবসময়ই দেই। কিন্তু যাত্রীছাউনি কেন নেই বুঝতে পারছি না। রাস্তার টোকাই থেকে শুরু করে হকাররা এগুলো দখল করে রেখেছে।

এ পর্যন্ত একশ’র মতো ছাউনি তৈরী করেছে সিটি করপোরেশন। বাকি ৫০ থেকে ৬০ টি তৈরী করেছে স্কুল আর বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। অথচ ১১৩ টি কোম্পানির পরিবহণ চলাচল করলেও যাত্রীদের জন্য তারা কোনো ছাউনি বানায়নি আজ অব্দি।

সন্ধ্যার আগে-পরে ঘরে ফেরা মানুষের চাপ বাড়ে মোড়গুলোতে। সে সময় ঝুঁকি নিয়ে যাত্রীদের দাঁড়িয়ে থাকতে হয় রাস্তার উপর।

কমেছে যানজট ৩ মিনিটে বিশ্বরোড থেকে এয়ারপোর্ট
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক
গত দুই দিন গাজীপুরের টঙ্গি-চেরাগআলী এলাকায় যানচলাচলে ধীরগতির কারণে স্থবির হয়ে পড়েছিল রাজধানী। বিশেষ করে বিমানবন্দর সড়কে যান চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। গাজীপুর ও উত্তরায় উন্নয়ন কাজের খোঁড়াখুঁড়ি, সেই সঙ্গে বৃষ্টিপাতের কারণে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল। তবে সপ্তাহের শেষ দিনে এসে স্বস্তি মিলেছে বিমানবন্দর সড়কে।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রাজধানীর মহাখালী থেকে উত্তরা রাজলক্ষ্মী পর্যন্ত যানচলাচল একদম স্বাভাবিক রয়েছে। সকাল থেকে রাস্তার দুপাশে কোথাও যানজটের সৃষ্টি হয়নি। যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দ্যে গন্তব্যে যেতে পারছেন।

এদিকে দুই দিন পর বিমানবন্দর সড়ক যানজটমুক্ত পাওয়ায় এ সড়ক ব্যবহারকারীরা বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন পোস্ট দিয়ে। সকালে বের হওয়া মানুষজন রাস্তায় যানজট না থাকার ভিডিও ও ছবি ফেসবুকে পোস্ট করছেন।

মো. জহিরুল ইসলাম নামে উত্তরাগামী এক যাত্রী বলেন, আমি তেজগাঁও থেকে প্রতিদিন উত্তরা গিয়ে অফিস করি। গত দুই দিন রাস্তার অবস্থা খুব খারাপ ছিল। আজ সকাল সকাল বের হয়েছিলাম যানজটের ভয়ে। কিন্তু রাস্তায় যান চলাচল স্বাভাবিক, যে কারণে অনেক আগেই গন্তব্যে চলে এসেছি।

সোহানুর আফসান নামে বিমানবন্দরগামী এক যাত্রী বলেন, বনানী টু উত্তরা রাস্তা আজকে ফাঁকা আছে। বিশ্বরোড থেকে এয়ারপোর্ট ৩ মিনিটে, ভাবা যায়!

রাস্তার পরিস্থিতি নিয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সকাল থেকে আজ বৃষ্টি না হওয়ায় রাস্তায় আর জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়নি। ফলে গতকালের মতো আর ধীরগতিতে না চলে স্বাভাবিক গতিতে যানচলাচল করছে। ফলে রাস্তায় আজ স্বাভাবিক অবস্থা রয়েছে।

এ বিষয়ে ডিএমপির উত্তরা ট্রাফিক বিভাগের বিমানবন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) সাখাওয়াত হোসেন সেন্টু বলেন, আজ সকাল থেকে যানচলাচল স্বাভাবিক রয়েছে বিমানবন্দর সড়কে। রাস্তায় জলাবদ্ধতা না থাকায় গাড়ি স্বাভাবিক গতিতে চলছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গাড়ির চাপও বাড়তে পারে।

উদ্বোধন হচ্ছে দেশের প্রথম সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল
                                  

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
দেশের প্রথম সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল উদ্বোধন করবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৭৫০ বেডের এ হাসপাতাল বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন তিনি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অধীনে এই হাসপাতালে রয়েছে ১০০টি আইসিইউ বেড। বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ বলেছে, বিশেষায়িত এ হাসপাতালের চিকিৎসা খরচও থাকবে সাধারণ মানুষের হাতের নাগালে।

এখানে এক ছাদের নিচে সর্বাধুনিক বহুমুখী বিশেষায়িত চিকিৎসাসেবা চলবে। এ ধারণা থেকেই প্রস্তুত করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালটি। ১৩ তলাবিশিষ্ট হাসপাতালটিতে রয়েছে দ্বিতল বেজমেন্ট। ৭৫০ শয্যার হাসপাতালে বিভিন্ন বিভাগে রয়েছে ১৪টি অত্যাধুনিক অপারেশন থিয়েটার।

জরুরি বিভাগে রয়েছে ১০০টি শয্যা। এছাড়া, হাসপাতালে রয়েছে ভিভিআইপি, ভিআইপি কেবিন। ডিল্যাক্স শয্যা ২৫টি। এখানে এক্স-রে, এমআরআই, সিটি-স্ক্যানসহ অত্যাধুনিক সব ডায়াগনস্টিক সুবিধাও রাখা হয়েছে। রয়েছে পাঁচটি স্পেশালাইজড সেন্টার। জরুরি বিভাগ, কার্ডিয়াক সেন্টার, লিভার ও কিডনি প্রতিস্থাপন ইউনিট এবং মা ও শিশু ইউনিট। এছাড়া রয়েছে সর্বাধুনিক রোবোটিক সার্জারি। বিশেষায়িত এ হাসপাতালটি পরিচালনার জন্য চিকিৎসকসহ প্রায় ৬১০ স্বাস্থ্যকর্মীকে উন্নত প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

এই হাসপাতালে লিভার ও কিডনি ট্রান্সপ্লান্ট করা যাবে। এখানে মা ও শিশুদের জন্য একটা সেন্টার রয়েছে। নেফ্রোলজিরও একটা সেন্টার রয়েছে। রয়েছে কিডনি ডায়ালাইসিস সেন্টার।

১৩০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এ হাসপাতালটি উদ্বোধনের তিন মাসের মধ্যে পুরোপুরি চালু করে জনগণের চিকিৎসার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে বলে জানান বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ।


   Page 1 of 63
     রাজধানী
নবীনগরে বিদ্যালয়ের ভবন উদ্ভোধন করলেন এমপি এবাদুল করিম
.............................................................................................
ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষ্যে রাজধানীতে জশনে জুলুস
.............................................................................................
আবারও বায়ুদূষণে বিশ্বে ঢাকা দ্বিতীয়
.............................................................................................
মোহাম্মদপুরে তিনটি ১৪তলা ভবন নির্মাণ করবে সরকার
.............................................................................................
বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সফলতার সঙ্গে পরিচালিত হচ্ছে : তাপস
.............................................................................................
বিআরটি উড়াল সেতুর ৫ লেন চালু হচ্ছে
.............................................................................................
দামী কোম্পানির মোড়কে নকল মাল, জরিমানা ২ লাখ
.............................................................................................
নিজস্ব গাড়ির লাগাম টানতে স্কুলবাসের উদ্যোগ
.............................................................................................
২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিচার না হলে সুইসাইড করব : ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রী
.............................................................................................
মৌলভীবাজার জেলা সমিতি ঢাকা’র নতুন কমিটি গঠন
.............................................................................................
পুরান ঢাকায় প্রতিমায় তুলির আঁচড় দিতে ব্যস্ত শিল্পীরা
.............................................................................................
ডেঙ্গুতে ঢাকার ২৭টি ওয়ার্ড বেশি ঝুঁকিপূর্ণ
.............................................................................................
কনসার্টে পদদলিত হয়ে গুয়েতেমালায় ৯ মৃত্যু
.............................................................................................
লোক বাড়ছে রাজধানীতে, কমেছে যাত্রী ছাউনি
.............................................................................................
কমেছে যানজট ৩ মিনিটে বিশ্বরোড থেকে এয়ারপোর্ট
.............................................................................................
উদ্বোধন হচ্ছে দেশের প্রথম সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল
.............................................................................................
মিয়ানমার সীমান্তে বিজিবিকে শক্তিশালী করা হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
ঢাকার গণপরিবহনে দিনে ১৮২ কোটি টাকার ভাড়া নৈরাজ্য
.............................................................................................
প্রযুক্তি নির্ভর অপরাধ দমনে সহযোগিতা করার আহ্বান
.............................................................................................
বিমানের একটি ফ্লাইট থেকে দেড় কোটি টাকার সোনা উদ্ধার
.............................................................................................
স্কুলছাত্রের মৃত্যু : মাইক্রোবাস চালক গ্রেপ্তার
.............................................................................................
সহপাঠীর মৃত্যু : ফার্মগেট অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
.............................................................................................
গুলিস্তানে ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে হকারদের ‘লুকোচুরি খেলা’
.............................................................................................
ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির সপ্তাহব্যাপী অভিযান শুরু
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে ৯/১১ হামলার ২১ বছর আজ
.............................................................................................
রাজশাহীতে পদ্মায় নৌকাডুবে ৪জন নিখোঁজ
.............................................................................................
ট্রান্সফরমার বিস্ফোরণেই যাত্রাবাড়ীতে আগুন
.............................................................................................
সাভারে নিউ আয়েশা লাইব্রেরীতে অগ্নিকাণ্ডে ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি
.............................................................................................
জিনজিরার গ্যাসের চুলার আগুনে দগ্ধ ৬ জনের কেউ বাঁচলো না
.............................................................................................
সাংবাদিক সাজ্জাদ চিশতীর ছেলে ইউশার মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার
.............................................................................................
ডিসেম্বরে উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলবে মেট্রোরেল
.............................................................................................
সাভারে শিশু ধর্ষণ চেষ্টা;মসজিদের ঈমাম গ্রেফতার
.............................................................................................
মেট্রোরেলের ভাড়া প্রতি কিলোমিটার ৫ টাকা
.............................................................................................
ভালুকা থানায় এসআই ও ২ পুলিশের মাদক ব্যবসা তুঙ্গে
.............................................................................................
শাহজালাল বিমানবন্দরে ৪০টি স্বর্ণবার উদ্ধার
.............................................................................................
বনানীর বাসায় জব্দ হলো যেসব বিদেশি মাদক
.............................................................................................
ধামরাইয়ে বাস-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষ, আহত ৩৫
.............................................................................................
ঢাকাতেই ২০ আত্মহত্যা গত ১৫ দিনে
.............................................................................................
আজ রাজধানীর যেসব মার্কেট বন্ধ
.............................................................................................
রাজধানীতে চুলা বিস্ফোরণে ৬ জন দগ্ধ
.............................................................................................
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী কারাগারে
.............................................................................................
রাজধানীতে থানার টয়লেট দিয়ে ভাগলেন নারী আসামি
.............................................................................................
আকরাম খানের গৃহকর্মীর মরদেহ উদ্ধার
.............................................................................................
সাড়ে তিন বছর ঢাবিকে ফাঁকি দিলেন সাজিদুল
.............................................................................................
ধামরাইয়ে ওয়ানপিস খ্যাত ৪ চাকার সিএনজি।
.............................................................................................
প্রাইভেট না পড়ায় ছাত্রীকে ফেল করান হলিক্রসের শিক্ষক
.............................................................................................
রাজধানীতে বাস উল্টে ১২ পুলিশ সদস্য আহত
.............................................................................................
শিক্ষিত প্রজন্মের হাত ধরেই বাংলাদেশ উন্নত হবে: ডিসি তেজগাঁও
.............................................................................................
বিজয়নগরে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ১১ টি ইউনিট
.............................................................................................
সাবেক অতিরিক্ত আইজিপির বাসায় চুরি, ৪৫ ভরি স্বর্ণ লুট
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT