রবিবার, ১৪ এপ্রিল 2024 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   আন্তর্জাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
আবারো ক্ষমতায় আসতে পারেন মোদি, বলছে সমীক্ষা

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

আাগামী ১৯ এপ্রিল থেকে ভারতে সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হচ্ছে। এই নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতাসীন বিজেপির নরেন্দ্র মোদি সহজেই জয়ী হবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

বেকারত্ব ও মুদ্রাস্ফীতি ভারতীয় ভোটারদের প্রধান উদ্বেগের বিষয়। তবে মোদির নেতৃত্ব এবং ভারতের ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক মর্যাদা সম্ভবত মোদিকে পুনর্র্নিবাচনের দৌড়ে সহায়তা করবে। একটি সমীক্ষায় এমনটিই উঠে এসেছে।

২৮টি রাজ্যের মধ্যে ১৯টি রাজ্যে ভারতের সেন্টার ফর দ্য স্টাডি অব ডেভেলপিং সোসাইটির (সিএসডিএস) লোকনীতি জরিপে দেখা গেছে, বেকারত্বই ছিল ভারতের প্রাথমিক উদ্বেগ।

জরিপে অংশগ্রহণকারীদের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ বা ৬২ শতাংশ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদির দ্বিতীয় মেয়াদে (গত পাঁচ বছরে) চাকরি পাওয়া আরও কঠিন হয়ে পড়েছে।

২২ শতাংশ মানুষ বলছেন, মোদি সরকারের সবচেয়ে ভালো পদক্ষেপ হলো মুসলমানদের বিরোধপূর্ণ স্থানে রাম মন্দির নির্মাণ। ৮ শতাংশ বলেছেন, এটি তাদের জন্য উদ্বেগের বিষয়।

যদিও ভারত বিশ্বের এখন পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতি, তবে বেকারত্ব ও মুদ্রাস্ফীতি দেশটির সমৃদ্ধিকে বাধাগ্রস্ত করছে। দেশটির সরকারি তথ্য অনুযায়ী, মোদি ক্ষমতায় আসার ঠিক আগে (২০১৩/১৪ সালে) ৪.৯ শতাংশ থেকে ২০২২/২৩ সালে বেকারত্বের হার বেড়ে ৫.৪ শতাংশ হয়েছে। ১৫-২৯ বছর বয়সী শহুরে যুবকদের প্রায় ১৬ শতাংশ মানসম্পন্ন চাকরির অভাবের কারণে বেকার রয়েছেন।

জানুয়ারিতে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে অযোধ্যায় রাম মন্দিরের উদ্বোধন করেন মোদি। জরিপে অংশ নেওয়া ২২ শতাংশ মানুষ বলেছেন, মোদি সরকারের করা বিভিন্ন কাজের মধ্যে এটা তাদের পছন্দের শীর্ষে। ভারতের সংখ্যালঘু মুসলমানের ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদ ভেঙে সেখানে রাম মন্দির নির্মাণ করা হয়েছে। জরিপে অংশ নেওয়া ৮ শতাংশ ভোটার বিতর্কিত জায়গায় রাম মন্দির তৈরি করা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

ভোটের বছরে রাম মন্দির উদ্বোধন করে মোদি সরকার ভারতের সংখ্যাগুরু হিন্দু ভোটারদের মন জয় করতে চাইছেন বলে মত বিরোধীদের। জরিপে বিশাল সংখ্যাগরিষ্ঠ (৭৯ শতাংশ) লোক বলছেন যে, ভারত কেবল হিন্দু নয়, সমস্ত ধর্মের নাগরিকদের জন্য সমান। আর ৪৮ শতাংশ উত্তরদাতা বলেছেন, রাম মন্দির হিন্দু পরিচয়কে সুসংহত করবে।

আন্তর্জাতিক দরবারে ভারতের ক্রমবর্ধমান নেতৃত্বও মোদির পক্ষে ভোটারদের আকৃষ্ট করেছে। যার মধ্যে আছে- গত বছর জি২০ সম্মেলনে ভারতের সভাপতিত্ব এবং সেপ্টেম্বরে দিল্লিতে জি২০ সম্মেলনের আয়োজন করার বিষয়টি। ৮ শতাংশ ভোটার বলেছেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভারতের ইমেজ আরো ভালো করার যে চেষ্টা মোদী সরকার করছে, তারা সেটা পছন্দ করেন।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি

আবারো ক্ষমতায় আসতে পারেন মোদি, বলছে সমীক্ষা
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

আাগামী ১৯ এপ্রিল থেকে ভারতে সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হচ্ছে। এই নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতাসীন বিজেপির নরেন্দ্র মোদি সহজেই জয়ী হবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

বেকারত্ব ও মুদ্রাস্ফীতি ভারতীয় ভোটারদের প্রধান উদ্বেগের বিষয়। তবে মোদির নেতৃত্ব এবং ভারতের ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক মর্যাদা সম্ভবত মোদিকে পুনর্র্নিবাচনের দৌড়ে সহায়তা করবে। একটি সমীক্ষায় এমনটিই উঠে এসেছে।

২৮টি রাজ্যের মধ্যে ১৯টি রাজ্যে ভারতের সেন্টার ফর দ্য স্টাডি অব ডেভেলপিং সোসাইটির (সিএসডিএস) লোকনীতি জরিপে দেখা গেছে, বেকারত্বই ছিল ভারতের প্রাথমিক উদ্বেগ।

জরিপে অংশগ্রহণকারীদের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ বা ৬২ শতাংশ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদির দ্বিতীয় মেয়াদে (গত পাঁচ বছরে) চাকরি পাওয়া আরও কঠিন হয়ে পড়েছে।

২২ শতাংশ মানুষ বলছেন, মোদি সরকারের সবচেয়ে ভালো পদক্ষেপ হলো মুসলমানদের বিরোধপূর্ণ স্থানে রাম মন্দির নির্মাণ। ৮ শতাংশ বলেছেন, এটি তাদের জন্য উদ্বেগের বিষয়।

যদিও ভারত বিশ্বের এখন পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতি, তবে বেকারত্ব ও মুদ্রাস্ফীতি দেশটির সমৃদ্ধিকে বাধাগ্রস্ত করছে। দেশটির সরকারি তথ্য অনুযায়ী, মোদি ক্ষমতায় আসার ঠিক আগে (২০১৩/১৪ সালে) ৪.৯ শতাংশ থেকে ২০২২/২৩ সালে বেকারত্বের হার বেড়ে ৫.৪ শতাংশ হয়েছে। ১৫-২৯ বছর বয়সী শহুরে যুবকদের প্রায় ১৬ শতাংশ মানসম্পন্ন চাকরির অভাবের কারণে বেকার রয়েছেন।

জানুয়ারিতে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে অযোধ্যায় রাম মন্দিরের উদ্বোধন করেন মোদি। জরিপে অংশ নেওয়া ২২ শতাংশ মানুষ বলেছেন, মোদি সরকারের করা বিভিন্ন কাজের মধ্যে এটা তাদের পছন্দের শীর্ষে। ভারতের সংখ্যালঘু মুসলমানের ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদ ভেঙে সেখানে রাম মন্দির নির্মাণ করা হয়েছে। জরিপে অংশ নেওয়া ৮ শতাংশ ভোটার বিতর্কিত জায়গায় রাম মন্দির তৈরি করা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

ভোটের বছরে রাম মন্দির উদ্বোধন করে মোদি সরকার ভারতের সংখ্যাগুরু হিন্দু ভোটারদের মন জয় করতে চাইছেন বলে মত বিরোধীদের। জরিপে বিশাল সংখ্যাগরিষ্ঠ (৭৯ শতাংশ) লোক বলছেন যে, ভারত কেবল হিন্দু নয়, সমস্ত ধর্মের নাগরিকদের জন্য সমান। আর ৪৮ শতাংশ উত্তরদাতা বলেছেন, রাম মন্দির হিন্দু পরিচয়কে সুসংহত করবে।

আন্তর্জাতিক দরবারে ভারতের ক্রমবর্ধমান নেতৃত্বও মোদির পক্ষে ভোটারদের আকৃষ্ট করেছে। যার মধ্যে আছে- গত বছর জি২০ সম্মেলনে ভারতের সভাপতিত্ব এবং সেপ্টেম্বরে দিল্লিতে জি২০ সম্মেলনের আয়োজন করার বিষয়টি। ৮ শতাংশ ভোটার বলেছেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভারতের ইমেজ আরো ভালো করার যে চেষ্টা মোদী সরকার করছে, তারা সেটা পছন্দ করেন।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি

৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ইসরাইলে হামলা চালাতে পারে ইরান!
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ইসরাইলে হামলা চালাতে পারে ইরান বলে সতর্ক করেছে মার্কিন গোয়েন্দারা। এ লক্ষ্যে তেহরান প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সম্প্রতি সিরিয়ায় থাকা ইরানের কনস্যুলেট অফিসে হামলা চালিয়েছে ইসরাইল। এতে বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। ওই ঘটনার পর ইসরাইলের বিরুদ্ধে চরম প্রতিশোধ নেওয়ার হুমকি দিয়েছে তেহরান।

আন্তর্জাতিক গোয়েন্দা সংস্থা ও গণমাধ্যমগুলো বলছে, ইতোমধ্যে হামলার প্রস্তুতি নিয়েছে ইরান। যেকোনো সময় মধ্যপ্রাচ্যের যেকোনো জায়গায় ইসরাইলি স্বার্থে আঘাত হানতে পারে ইরান। এ নিয়ে গোটা মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনার পাশাপাশি আতঙ্ক বিরাজ করছে।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, ইসরাইলের মাটিতে ইরানের সম্ভাব্য হামলা ঠেকাতে তেল আবিব প্রস্তুতি নিচ্ছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এই হামলা সংঘটিত হতে পারে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ওয়াল স্ট্রিট জানিয়েছে, ইসরাইলের উত্তর বা দক্ষিণ অঞ্চলে এই হামলা হতে পারে।

তবে ইরান সরকারের ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে ওয়াল স্ট্রিট জানিয়েছে, তেহরান ইসরাইলে হামলার ব্যাপারে এখনো কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি।

রয়টার্স জানিয়েছে, মধ্যপ্রাচ্যে বিরাজমান পরিস্থিতির কারণে ইরানের রাজধানী তেহরানে ফ্লাইট পরিচালনা স্থগিতের সময় বাড়িয়েছে জার্মান বেসামরিক বিমান পরিবহণ সংস্থা লুফথানসা।

সিরিয়ায় ইরানের দূতাবাসে ইসরাইলি হামলার পাল্টায় ইরান হামলা চালাতে পারে—এমন শঙ্কা থেকে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে লুফথানসা।

ইরানের একটি বার্তা সংস্থা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে এক পোস্টে জানায়, সামরিক মহড়ার জন্য তেহরানের আকাশসীমা বন্ধ করা হয়েছে। কিন্তু পরে ওই বার্তা সরিয়ে সংস্থাটি বলেছে, এমন কোনো খবর তারা প্রকাশ করেনি।

ইরানের পাল্টা হামলার শঙ্কায় ১ এপ্রিল থেকে সতর্ক অবস্থায় রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো।

ওই দিন সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে ইরানের দূতাবাস প্রাঙ্গণে ইসরাইলের জঙ্গিবিমান থেকে বোমা ফেলা হয়।

লুফথানসা বৃহস্পতিবার বলেছে, ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত তেহরানের সব ফ্লাইট স্থগিত করেছে তারা। এর মধ্য দিয়ে ফ্লাইট স্থগিতের সময় দুই দিন বাড়িয়েছে তারা।

লুফথানসার একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, উড়োজাহাজের ক্রুদের যাতে তেহরানে রাত যাপনের জন্য অবতরণ করতে না হয়, সে জন্য গেল সপ্তাহান্ত থেকে ফ্রাঙ্কফুর্ট থেকে তেহরানে ফ্লাইট না চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

পশ্চিমা বিমান সংস্থাগুলোর মধ্যে শুধু লুফথানসা ও এর সহযোগী বিমান পরিবহণ সংস্থা অস্ট্রিয়ান এয়ারলাইন্সই তেহরানে ফ্লাইট পরিচালনা করে। টার্কিশ এয়ারলাইন্স ও মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক বিমান পরিবহণ সংস্থাগুলোই সাধারণত সেখানে যাত্রী পরিবহণ করে।

 

মার্কিন যুদ্ধজাহাজে হুথিদের ড্রোন হামলা
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

লোহিত সাগরে মার্কিন যুদ্ধজাহাজে ড্রোন হামলা করেছে হুথিরা। বুধবার (১০ এপ্রিল) ১১টি হুথি ড্রোন হামলার কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

ইউএস সেন্ট্রাল কমান্ড বলেছে, লোহিত সাগরে ১১টি ড্রোন হামলা করেছে হুথিরা।

সেন্টকম বলেছে, হামলা করা প্রথম তিনটি ড্রোন ইয়েমেনের হুথি-নিয়ন্ত্রিত এলাকা থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়েছে। দুটি এডেন উপসাগরে এবং একটি লোহিত সাগরের উপর দিয়ে হামলা করা হয়েছে।

এদিকে, সেদিন সন্ধ্যার পর সেন্টকম জানিয়েছে, হুথি নিয়ন্ত্রিত ইয়েমেন থেকে উৎক্ষেপণ করা আটটি ড্রোন ধ্বংস করা দাবি করেছে মার্কিন বাহিনী।

সংস্থাটি আরও জানিয়েছে, ইউএভিএস মানবহীন আকাশযান এই অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র, জোট ও বাণিজ্যিক জাহাজগুলোর জন্য একটি হুমকি। সেন্টকম বলেছে, জলপথে নৌ চলাচলের স্বাধীনতা রক্ষার জন্য কাজ করছে তারা।

ইরানের হুংকার: ইসরাইলের কোনো দূতাবাস নিরাপদ নয়
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

ইরানের ভয়ে জায়ানবাদী ইসরাইল তটস্থ। এরইমধ্যে ইরান ঘোষণা দিয়েছে, ইসরাইলের কোনো দূতাবাস এখন আর নিরাপদ নয়। আজ রোববার ইরানের এক সিনিয়র কর্মকর্তা এ হুমকি দিয়েছেন। ইরানি বার্তা সংস্থা তাসনিম-এর বরাতে দ্য গার্ডিয়ান এ খবর দিয়েছে।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনির উপদেষ্টা ইয়াহিয়া রহিম সাফাভি বলেছেন, জায়নবাদী শাসকদের দূতাবাসগুলো এখন আর নিরাপদ নয়।

১ এপ্রিল সিরিয়ার দামেস্কে একটি ইরানি কনস্যুলেটে ইসরাইলি হামলায় ইরানের ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কর্পসের সাত সদস্য নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে একজন শীর্ষস্থানীয় কমান্ডার ছিলেন।

এরপর দূতাবাসে হামলার প্রতিশোধ নেওয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছে ইরান। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকেও একটি সতর্কবার্তা পাঠিয়েছে তেহরান। ইসরাইল ও যুক্তরাষ্ট্র আশঙ্কা করছে, মধ্যপ্রাচ্যে ইসরাইলি ও মার্কিন সংশ্লিষ্ট স্থাপনায় হামলা চালাতে পারে ইরান। ইরানের সম্ভাব্য হামলা মোকাবিলায় সতর্ক অবস্থায় রয়েছে দেশ দুটি।

মিয়ানমারের মায়াবতী শহরের দখল নিলো বিদ্রোহীরা
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

মিয়ানমারের কারেন বিদ্রোহীদের নেতৃত্বে অভ্যুত্থানবিরোধী বাহিনী তুমুল লড়াই করে থাইল্যান্ড সীমান্তবর্তী মায়াবতী শহরের দখল নিতে চলেছে। জান্তা সরকারের হাত থেকে এ শহরটিরও কতৃত্ব নিচ্ছে বিদ্রোহী জোট।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, আদিবাসী কারেন বিদ্রোহীদের নেতৃত্বে অভ্যুত্থানবিরোধী বাহিনী কয়েক সপ্তাহ আগে মায়াবতী শহর আক্রমণ করে। তারা একটু একটু করে শহরের ভেতর প্রবেশ করে এবং শহরটির পাহারায় থাকা মিয়নমারের শতাধিক সেনাসদস্য শেষ পর্যন্ত তাদের কাছে পরাস্ত হয়ে আত্মসমর্পণ করতে রাজি হয়েছে।

শুক্রবার কারেন ন্যাশনাল ইউনিয়ন-কেএনইউ থেকে এক ঘোষণায় বলা হয়, থাঙ্গানিনাং শহরে থাকা এক ব্যাটেলিয়ন সেনাসদস্য তাদের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। শহরটি মায়াবতী থেকে ১০ কিলোমিটার পশ্চিমে।

আর মায়াবতীতে থেকে যাওয়া মিয়ানমার সেনাবাহিনীর শেষ ব্যাটেলিয়নের সঙ্গে এ সপ্তাহান্তে তাদের আলোচনা চলছে এবং খুব সম্ভবত সেনাবাহিনীর ওই ব্যাটেলিয়ন আত্মসমর্পণে রাজি হয়েছে।

থাইল্যান্ডের সঙ্গে স্থলপথে বাণিজ্যে মায়াবতী শহরের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ দুই দেশের স্থলপথে আমদানি-রপ্তানির অধিকাংশই হয় এই শহর দিয়ে।

তিন বছর আগে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে মিয়ানমারের শাসনভার দখল করে দেশটির সামরিক বাহিনী। অভ্যুত্থান রক্তপাতহীনভাবে বিনা বাধায় হলেও ধীরে ধীরে পরিস্থিতি বদলে যায়। সাধারণ মানুষ অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ বিক্ষোভ শুরু করে।

যে বিক্ষোভ কঠোর হাতে দমন করে জান্তা বাহিনী। তাদের দমন নিপীড়নে বহু বিক্ষোভকারী প্রাণ হারায়। প্রাথমিকভাবে বিক্ষোভ দমন হলেও অভ্যুত্থান বিরোধীরা মিয়ানমারের সীমান্ত এলাকাগুলোতে আগে থেকেই সামরিক বাহিনীর সঙ্গে লড়াইরত বিভিন্ন আদিবাসী বিচ্ছিন্নতাবাদী বিদ্রোহী দলগুলোর সঙ্গে জোট গঠন করে গত বছর শেষদিক থেকে জান্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে।

বিদ্রোহী জোট একের পর এক সীমান্ত এলাকা ও শহরে আক্রমণ করে সেগুলো দখল করতে শুরু করে। এ বছরের শুরু থেকে তাদের আক্রমণের তেজ বেড়ে যায়। মিয়ানমারের বেশ কয়েকটি অঞ্চল ও শহর এখন বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে। চীন সীমান্তবর্তী শান রাজ্য এবং বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রাখাইন রাজ্যের অনেকটাই এখন বিদ্রোহীদের দখলে।

বিবিসি জানায়, গত তিন বছরে জান্তা বাহিনীকে এত বড় চ্যালেঞ্জের মুখে আর পড়তে হয়নি। মায়াবতী শহরের নিয়ন্ত্রণ হারানো তাদের জন্য আরও একটি বড় ধাক্কা।

দ্য কারেন ন্যাশনাল ইউনিয়ন আদিবাসী কারেন জনগোষ্ঠীর স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে সেই ১৯৪৮ সালে মিয়ানমারের স্বাধীনতা লাভের পর থেকে সেনাবাহিনীর সঙ্গে লড়াই করে আসছে।

গত শতাব্দীর ৯০ এর দশকে সামরিক বাহিনী তাদের অনেকটাই পরাস্ত করে এবং ২০১৫ সালের পর তারা একটি জাতীয় যুদ্ধবিরতি চুক্তির অধীনে লড়াই বন্ধ করেছিল। কিন্তু ২০২১ সালের সামরিক অভ্যুত্থানের পর সবকিছু পাল্টে যায়। কেএনইউ থেকে বলা হয়, নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করায় ওই চুক্তি অকার্যকর হয়ে গেছে।

কেএনইউ সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে শুধু লড়াই করছে না। বরং সারা দেশ থেকে যারা স্বোচ্ছায় সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করতে আসছে তাদের প্রশিক্ষণও দিচ্ছে।

এছাড়া সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করা দেশের অন্যান্য প্রান্তের বড় বড় বিচ্ছিন্নতাবাদী দলগুলোকে তারা এক জোট করার চেষ্টাও করছে।

ফিলিপাইনে সুনামি সতর্কতা জারি
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর ফিলিপাইন সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়। একইসঙ্গে উত্তরাঞ্চলীয় উপকূলীয় এলাকা থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়ারও আহ্বান জানানো হয়েছে।

দেশটির ভূমিকম্প ইন্সটিটিউটের পরামর্শে বলা হয়েছে, নিম্নলিখিত উপকূলীয় এলাকার লোকজনকে অবিলম্বে সরিয়ে নেয়ার জন্যে জোর পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। এলাকাগুলো হলো বাতানিস, কাগাইয়ান, ইলোকোস নর্তে এবং ইসাবেলা।

উল্লেখ্য, বুধবার সকালে তাইওয়ান ভয়াবহ ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে। এ ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৪। ভূমিকম্পের পর তাইওয়ান, ফিলিপাইন ও জাপানে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানিয়েছে, ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল ছিল তাইওয়ানের হুয়ালিয়েন শহরের ১৮ কিলোমিটার দক্ষিণে। ভূপৃষ্ঠের ৩৪ দশমিক ৮ কিলোমিটার গভীরে এর উৎপত্তি হয়েছে।

তাইওয়ানে গত ২৫ বছরের মধ্যে এটি ছিল সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প।

শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো তাইওয়ান, নি হ ত ৪
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

তাইওয়ানের পূর্বাঞ্চলীয় শহর হুয়ালিয়নে আঘাত হানা শক্তিশালী ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত চারজনের মৃত্যুর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন অনেকে। শক্তিশালী এ ভূমিকম্পে বহু ভবন বিধ্বস্ত হয়েছে। ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে আটকে পড়াদের উদ্ধার কার্যক্রম চলছে।

আজ বুধবার (৩ এপ্রিল) স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৫৮ মিনিটে তাইওয়ানের পূর্বাঞ্চলের শহর হুয়ালিয়েনের ১৮ কিলোমিটার দক্ষিণে রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। ভূমিকম্পটির গভীরতা ছিল ১৫ দশমিক ৫ কিলোমিটার।

এনডিটিভি জানিয়েছে, ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল হুয়ালিয়েন কাউন্টিতে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে তিনজন হাইকিং ট্রেইলে এবং একজন হাইওয়ে টানেলে মারা গেছেন।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, নিউ তাইপে শহরে কিছু ভবন বিধ্বস্ত হয়েছে। ধ্বংসস্তূপে উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন জরুরি ও দুর্যোগ বাহিনীর কর্মীরা।

ভূমিকম্পটির পর আরও অন্তত নয়টি পরাঘাত বা আফটার শক হয়েছে তাইওয়ানে, যেগুলোর মাত্রা ৪ বা তারও বেশি ছিল।

ভূমিকম্পে হুয়ালিয়েনের কিছু ভবন আংশিকভাবে ধসে পড়েছে। কিছু ভবনকে হেলে পড়তে দেখা গেছে। স্থানীয় এক ভূতত্ত্ববিদ জানান, এটি তাইওয়ানের গত ২৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী মাত্রার ভূমিকম্প।

ভূমিকম্পের পর সেখানে বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট সংযোগ ব্যাহত হয়েছে বলে জানিয়েছে মনিটরিং গ্রুপ নেটব্লকস।

এ ভূমিকম্পের পর প্রতিবেশী দেশ জাপান সর্বোচ্চ ৩ মিটার উচ্চতার সুনামির সতর্কতা জারি করে তাদের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে। একইভাবে সুনামির সতর্কতা জারি হয় ফিলিপাইনেও।

ভূমিকম্পের মুহূর্তে রাজধানী তাইপেতে ধারণ করা ভিডিওতে দেখা যায়, ভবনগুলো ভয়ানকভাবে কাঁপছিল। ঘরের তাক থেকে পড়ে যাচ্ছিল জিনিসপত্র। চুরমার হয়ে যাচ্ছিল আসবাবপত্র।

দেশটির পার্বত্যাঞ্চলের কিছু ভিডিওতে দেখা যায়, ভূমিকম্পের কারণে সেখানে বড়সড় ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। তবে এর ক্ষয়ক্ষতি এখনো নিরূপণ করা যায়নি।

স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রচারিত ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, ভূমিকম্পে আবাসিক ভবনগুলো দুলছিল। সেখান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয় স্থানীয় বাসিন্দাদের। এছাড়া স্কুলগুলো থেকে সরিয়ে আনা হয় শিক্ষার্থীদের।

১৯৯৯ সালের সেপ্টেম্বরে তাইওয়ানে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে। ভয়াবহ ওই প্রাকৃতিক দুর্যোগে দুই হাজার ৪০০ মানুষের মৃত্যু হয়। বিধ্বস্ত হয় পাঁচ হাজারেরও বেশি বাড়িঘর।

দাঁড়ির ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল ব্রিটিশ সেনাবাহিনী
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

একশো বছরের বেশি সময় ধরে ক্লিন-শেভ করার রেওয়াজ চলছে ব্রিটিশ সেনাবাহিনীতে। এবার দাড়ি রাখার ওপর সেই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে যুক্তরাজ্য। ব্রিটিশ সেনা সদস্য ও কর্মকর্তারা এখন থেকে দাড়ি রাখতে পারবেন। খবর বিবিসি ও দ্য গার্ডিয়ানের।

তবে দাড়ি ও গোঁফ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং সুবিন্যস্ত রাখতে হবে। বিষয়টি নিয়মিত নজরদারিও করা হবে। এই নীতি বাস্তবায়নের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মকে ব্রিটিশ সেনাবাহিনীতে আকৃষ্ট করা সক্ষম হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ব্রিটিশ বাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছে, টানা কয়েক বছর বিষয়টি নিয়ে নীতি পর্যালোচনার পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এর আগে কার্যকারিতা, স্বাস্থ্য বা নিরাপত্তাকে ঝুঁকিতে ফেলবে না শর্তে শিখ, মুসলিম এবং রাস্তাফারিয়ানদের মতো কয়েকটি নির্দিষ্ট ধর্মের সেনাদের দাড়ি রাখার অনুমতি দিয়েছিল ব্রিটিশ সেনাবাহিনী।

বিবিসি জানিয়েছে, এ নীতি গ্রহণের পরও নির্দিষ্ট কিছু অনুষ্ঠানে বা প্রয়োজনে সেনা এবং কর্মকর্তাদের শেভ করার নির্দেশ দেওয়া হবে।

এর আগে ডেনমার্ক, জার্মানি এবং বেলজিয়ামের মতো কয়েকটি দেশের সেনাবাহিনী সৈন্যদের দাড়ি রাখার অনুমতি দেয়।

যুক্তরাজ্যের সশস্ত্র বাহিনীগুলোর মধ্যে সেনাবাহিনীই সবার পরে দাড়ি রাখার অনুমতি দিয়েছে। দীর্ঘদিন ধরেই দেশটির নৌবাহিনীতে দাড়ি রাখার অনুমতি দিয়েছে এবং বিমান বাহিনী ২০১৯ সালে দাড়ির ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়। কিন্তু সেনাবাহিনী এ বিষয় কঠোর নীতি বজায় রেখেছিল।

তেহরান সফরে হামাস নেতা হানিয়েহ
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে অবিলম্বে গাজায় যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব পাস হওয়ার পরদিনই ইরান সফরে যাচ্ছেন হামাস নেতা ইসমাইল হানিয়েহ। মঙ্গলবার ইরানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে তাঁর বৈঠকের কথা রয়েছে।

ইরানের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যম প্রেস টিভির বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

প্রায় ছয় মাস ধরে চলমান ইসরায়েলের সঙ্গে যুদ্ধে হামাসকে সমর্থন জানিয়ে আসছে ইরান। এ যুদ্ধে গাজায় এখন পর্যন্ত ৩২ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। গত ৭ অক্টোবর হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এটি হানিয়েহর দ্বিতীয় ইরান সফর।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসের কানানি গতকাল সোমবারের প্রস্তাব পাসকে ‘ইতিবাচক পদক্ষেপ’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘প্রস্তাবের বাস্তবায়নের জন্য কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া আরও গুরুত্বপূর্ণ।’

হামাস জাতিসংঘের প্রস্তাবকে স্বাগত জানালেও বলেছে, যুদ্ধবিরতি স্থায়ী হতে হবে।

এই সফরে হানিয়ে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হুসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ানসহ দেশটির পদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাতের কথা রয়েছে।

রাশিয়ায় হামলা, নিন্দা জানালো তুরস্ক
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

রাশিয়ার কনসার্ট হলের হামলায় নিন্দা জানিয়েছে তুরস্ক। দেশটির একটি কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাকান ফিদান তার রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভকে ফোন করে বলেছেন, মস্কো অঞ্চলে ‘জঘন্য সন্ত্রাসী হামলার’ নিন্দা জানাচ্ছে আঙ্কারা।

ফিদান রুশ জনগণ ও সরকারের প্রতি সমবেদনা জানানোর সময় ল্যাভরভের কাছে এ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। খবর আনাদোলু এজেন্সি।

পৃথক এক বিবৃতিতে তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও এ হামলায় নিহতদের পরিবার ও আহতদের প্রতি দুঃখ প্রকাশ করেছে।

তুরস্কের ভাইস প্রেসিডেন্ট সেভদেত ইলমাজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে দেওয়া একটি পোস্টে লিখেছেন, ‘রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় একটি কনসার্ট হলে সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানাই।’

এক্সের পোস্টে ‘নিরপরাধ মানুষকে টার্গেট করা সন্ত্রাসবাদ মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

তুর্কি পার্লামেন্টের স্পিকার নুমান কুরতুলমুসও বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে ‘জঘন্য সন্ত্রাসী হামলার’ নিন্দা জানিয়েছেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের প্রধান উপদেষ্টা আকিফ কাগাতে কিলিকও এক্সের একটি পোস্টে বলেছেন, ‘বিশ্বের যেখানেই এটি ঘটুক না কেন, আমরা নিরপরাধ বেসামরিকদের লক্ষ্য করে সন্ত্রাসী হামলার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াব।’

মস্কোয় নিযুক্ত তুরস্কের রাষ্ট্রদূত তানজু বিলজিক ‘কঠোরভাবে’ এ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। রাশিয়া ও সে দেশের জনগণের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে আল-আকসায় ৫০ হাজার মুসল্লির তারাবি আদায়
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

বর্বর ইসরাইলি কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞাকে পাত্তা না দিয়ে অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদে তারাবি নামাজ আদায় করেছেন প্রায় ৫০ হাজার ফিলিস্তিন মুসল্লি। বৃহস্পতিবার তারা মসজিদটিতে তারাবি নামাজ আদায় করেছেন বলে এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে জানিয়েছে জেরুজালেমের ইসলামিক এনডাউমেন্টস বিভাগ। খবর আনাদোলু এজেন্সির।

বিবৃতিতে তারা বলেছে, রমজান মাসের দ্বিতীয় শুক্রবারের আগের রাতে আল-আকসা মসজিদে প্রায় ৫০ হাজার মুসল্লি তারাবি নামাজে অংশ নিয়েছেন।

ফিলিস্তিন বার্তা সংস্থা ওয়াফা জানিয়েছে, ইসরাইলি বাহিনী জেরুজালেমের ওল্ড সিটির আল-ওয়াদ স্ট্রিট বন্ধ করে দিয়েছে। মসজিদে ফিলিস্তিনিদের প্রবেশে বাধা দিচ্ছে তারা।

গত ৭ অক্টোবর গাজায় যুদ্ধ শুরুর পর থেকে অধিকৃত পশ্চিমতীরেও হামলা বাড়িয়েছে ইসরাইল। পাশাপাশি আল-আকসা মসজিদে ফিলিস্তিন মুসল্লিদের প্রবেশাধিকারও সীমাবদ্ধ করেছে তারা।

আল-আকসা মসজিদ মুসলিমদের জন্য বিশ্বের তৃতীয় পবিত্র স্থান। ইহুদিরা এলাকাটিকে টেম্পল মাউন্ট বলে দাবি করে। এখানে প্রাচীনকালে দুটি ইহুদি মন্দিরের অবস্থান ছিল বলেও দাবি তাদের।

১৯৬৭ সালের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের সময় ইসরাইল পূর্ব জেরুজালেম দখল করে নিয়েছিল।

নিষেধাজ্ঞা উপক্ষে করে আল-আকসায় ৫০ হাজার মুসল্লির তারাবি আদায়
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

বর্বর ইসরাইলি কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞাকে পাত্তা না দিয়ে অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদে তারাবি নামাজ আদায় করেছেন প্রায় ৫০ হাজার ফিলিস্তিন মুসল্লি। বৃহস্পতিবার তারা মসজিদটিতে তারাবি নামাজ আদায় করেছেন বলে এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে জানিয়েছে জেরুজালেমের ইসলামিক এনডাউমেন্টস বিভাগ। খবর আনাদোলু এজেন্সির।

বিবৃতিতে তারা বলেছে, রমজান মাসের দ্বিতীয় শুক্রবারের আগের রাতে আল-আকসা মসজিদে প্রায় ৫০ হাজার মুসল্লি তারাবি নামাজে অংশ নিয়েছেন।

ফিলিস্তিন বার্তা সংস্থা ওয়াফা জানিয়েছে, ইসরাইলি বাহিনী জেরুজালেমের ওল্ড সিটির আল-ওয়াদ স্ট্রিট বন্ধ করে দিয়েছে। মসজিদে ফিলিস্তিনিদের প্রবেশে বাধা দিচ্ছে তারা।

গত ৭ অক্টোবর গাজায় যুদ্ধ শুরুর পর থেকে অধিকৃত পশ্চিমতীরেও হামলা বাড়িয়েছে ইসরাইল। পাশাপাশি আল-আকসা মসজিদে ফিলিস্তিন মুসল্লিদের প্রবেশাধিকারও সীমাবদ্ধ করেছে তারা।

আল-আকসা মসজিদ মুসলিমদের জন্য বিশ্বের তৃতীয় পবিত্র স্থান। ইহুদিরা এলাকাটিকে টেম্পল মাউন্ট বলে দাবি করে। এখানে প্রাচীনকালে দুটি ইহুদি মন্দিরের অবস্থান ছিল বলেও দাবি তাদের।

১৯৬৭ সালের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের সময় ইসরাইল পূর্ব জেরুজালেম দখল করে নিয়েছিল।

রাফায় বিমান হামলায় ২০ জন নিহত
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপ্যতকা ও মিশরীয় সীমান্তবর্তী রাফাহ শহরে মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) ভোরে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। এতে ২০ ফিলিস্তিনি নিহত ও অনেকে আহত হয়েছেন। গাজার স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের বরাতে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানায়।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাফাহ শহর ও গাজা উপত্যকার কেন্দ্রীয় অংশে বিমান হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। এর মধ্যে রাফাহ শহরে চালানো হামলায় ১৪ জন নিহত হন। অন্যদিকে, মধ্য গাজার আল-নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরের একটি অংশে পৃথক বিমান হামলায় আরও ছয়জন প্রাণ হারান। উভয় ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অনেকে।

এদিকে, গাজা শহর থেকে প্রায় ১৪ কিলোমিটার দক্ষিণে মধ্য গাজার দেইর আল-বালাহ শহরেও বোমা হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। সেখানকার শরণার্থী শিবিরে অবস্থানরত বাসিন্দারা দাবি করেছেন, সোমবার (১৮ মার্চ) দিনগত বজ্রপাতের সঙ্গে বিস্ফোরণের শব্দও শুনতে পেয়েছেন।

শাবান আবদেল-রউফ নামক এক বাসিন্দা বলেছেন, আমরা এখন বজ্রপাত ও বোমা হামলার শব্দের মধ্যে পার্থক্য করতে পারছি না। আগে আমরা বৃষ্টির জন্য অপেক্ষা করতাম। বৃষ্টি হতে দেরি হলে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করতাম। অথচ এখন আমরা বৃষ্টি না হওয়ার জন্য প্রার্থনা করি, কারণ বাস্তুচ্যুত মানুষ নিদারুণ দুর্দশার মধ্যে রয়েছে।

দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানালেন পুতিন
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

অনেক পূর্বনির্ধারিত ফলাফল। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচেন নিশ্চিত জয় পেতে যাচ্ছেন ভ্লাদিমির পুতিন। চারদিক থেকে নির্বাচনে জয়ের খবর আসার পর ভোটকেন্দ্রে আসা নাগরিকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। খবর বিবিসি, এএফপির।

সোমবার তার প্রচারাভিযানের সদর দপ্তরে দেওয়া বক্তৃতায় পুতিন বলেন, ‘নির্বাচনে আমার জয় রাশিয়াকে আরও শক্তিশালী ও কার্যকর হতে দেবে। প্রতিটি কণ্ঠস্বর থেকে আমরা রাশিয়ার জনগণের একটি সাধারণ ইচ্ছা তৈরি করছি।’

পুতিন তার বক্তৃতায় ইউক্রেনে রাশিয়ার প্রথম সারির যোদ্ধাদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। তিনি আরও বলেন, ‘তারা যতই আমাদের ভয় দেখানোর চেষ্টা করুক না কেন, আমাদের ইচ্ছা, আমাদের বিবেককে দমন করার চেষ্টা করুক না কেন, ইতিহাসে কেউই সফল হতে পারেনি। তারা বর্তমানে ব্যর্থ হচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও তারা ব্যর্থ হবে।’

উল্লেখ্য, রাশিয়ায় শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী চলেছে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আরআইএ অনুসারে, মোট ভোটের ৮৭.৩৩ শতাংশ ভোট পেয়ে এগিয়ে আছেন পুতিন।

ফোন-ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন মিয়ানমারের ৮০ শহর
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:

মিয়ানমারের জান্তা সরকার দেশটির ৮০ শহরের ইন্টারনেট ও ফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। ৮০ শহরের মধ্যে ১৭টি শহর হলো রাখাইন রাজ্যে। দেশটির মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা সংগঠন আথান এ তথ্য জানিয়েছে। খবর দ্য ইরাবতীর।

রাখাইন ছাড়াও সাগাইং অঞ্চলের ৩৪ শহরের মধ্যে ২৭টি ও কায়াহ রাজ্যের সাতটি শহরের মধ্যে পাঁচটি শহর এই তালিকা রয়েছে বলে সংগঠনটি জানিয়েছে।

শান, চিন, কাচিন ও মোন রাজ্য এবং তানিনথারি, ম্যাগওয়ে, বাগো ও আইয়ারওয়াদি অঞ্চলের শহরগুলোতেও যোগাযোগ ব্যবস্থা বিঘ্নিত হয়েছে।

বেশিরভাগ শহরে ইন্টারনেট ও ফোন দুটিরই লাইন কেটে দেওয়া হয়েছে। আবার কিছু শহরে শুধু ইন্টারনেট বন্ধ কিংবা গতি কমিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আরাকান আর্মি গত বছরের নভেম্বর থেকে উত্তর রাখাইন রাজ্যজুড়ে জান্তার বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছে। তারা প্রায় ১৮০টি জান্তা ঘাঁটি, ৯টি শহর ও দক্ষিণ চিন রাজ্যের শহর পালেতওয়ার পুরোটা দখল করেছে।

আথান বলেছে, রাখাইনের রাজধানী সিতওয়েতে সব ধরনের ওয়াই-ফাই ও ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধের পরেও ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সামরিক মালিকানাধীন টেলিকম সরবরাহকারী মাইটেলের সেবা কাজ করছিল।

তবে দুই রাখাইন বাসিন্দা বলেছেন, জান্তা মালিকানাধীন টেলিকম অপারেশন মাইটেল ও এমপিটি বৃহস্পতিবার সিতওয়েতে কাজ করেছে। আরেক বাসিন্দা বলেন, কিছু এলাকায় ফোনের লাইন ঠিক করা হয়েছে কিন্তু ইন্টারনেট সংযোগ নেই।

আথান জানিয়েছে, ব্যাংকিং পরিষেবা ও অনলাইন লেনদেন বন্ধ হয়ে গেছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ করে দেওয়া মানে শাসক-বিরোধী শক্তিকে দমন করার একটি জান্তা কৌশল। এটা স্পষ্ট যে জান্তা তথ্যের প্রবাহ গোপন করতে ও বিদ্রোহ দমন করতে ইচ্ছাকৃতভাবে জনগণের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা করছে।

বেতন নেবেন না পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
                                  

স্বাধীন বাংলা ডেস্ক:
চরম অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যদিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। দেশের দীর্ঘ এই অর্থনৈতিক সংকট বিবেচনা করে রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে কোনো ধরনের বেতনভাতা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তানের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সৈয়দ মহসিন নকভি। খবর ডনের।

মঙ্গলবার প্রেসিডেন্টের সচিবালয় থেকে প্রকাশ করা এক বিবৃতিতে বেতন না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন জারদারি।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘প্রেসিডেন্ট জারদারি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, রাষ্ট্রপ্রধানের পদে থাকা অবস্থায় তিনি বেতন নেবেন না। অর্থনৈতিক সংকটকালে দেশের দূরদর্শী আর্থিক ব্যবস্থাপনাকে উৎসাহিত করার জন্য তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহসিন নকভি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্সে দেওয়া এক পোস্টে তার বেতন না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এই চ্যালেঞ্জিং সময়ে আমি প্রতিটি সম্ভাব্য উপায়ে জাতিকে সমর্থন ও সেবা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

এর আগে গত সোমবার পাকিস্তানে নতুন মন্ত্রিসভা গঠন করেন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। ১৯ সদস্যের মন্ত্রিসভাকে শপথ পড়ান প্রেসিডেন্ট জারদারি। পরে মহসিন নাকভিকে স্বরাষ্ট্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) কো–চেয়ারম্যান আসিফ আলী জারদারি দেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন গত শনিবার। তিনি পাকিস্তান তেহরিক–ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত সুন্নি ইত্তিহাদ কাউন্সিলের প্রার্থী মাহমুদ খান আচাকজাইকে হারিয়ে প্রেসিডেন্ট হন।


   Page 1 of 251
     আন্তর্জাতিক
আবারো ক্ষমতায় আসতে পারেন মোদি, বলছে সমীক্ষা
.............................................................................................
৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ইসরাইলে হামলা চালাতে পারে ইরান!
.............................................................................................
মার্কিন যুদ্ধজাহাজে হুথিদের ড্রোন হামলা
.............................................................................................
ইরানের হুংকার: ইসরাইলের কোনো দূতাবাস নিরাপদ নয়
.............................................................................................
মিয়ানমারের মায়াবতী শহরের দখল নিলো বিদ্রোহীরা
.............................................................................................
ফিলিপাইনে সুনামি সতর্কতা জারি
.............................................................................................
শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো তাইওয়ান, নি হ ত ৪
.............................................................................................
দাঁড়ির ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল ব্রিটিশ সেনাবাহিনী
.............................................................................................
তেহরান সফরে হামাস নেতা হানিয়েহ
.............................................................................................
রাশিয়ায় হামলা, নিন্দা জানালো তুরস্ক
.............................................................................................
নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে আল-আকসায় ৫০ হাজার মুসল্লির তারাবি আদায়
.............................................................................................
নিষেধাজ্ঞা উপক্ষে করে আল-আকসায় ৫০ হাজার মুসল্লির তারাবি আদায়
.............................................................................................
রাফায় বিমান হামলায় ২০ জন নিহত
.............................................................................................
দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানালেন পুতিন
.............................................................................................
ফোন-ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন মিয়ানমারের ৮০ শহর
.............................................................................................
বেতন নেবেন না পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
রমজানে মুসলিম উম্মাহকে এরদোগানের বার্তা
.............................................................................................
পাসপোর্ট ছাড়াই যাওয়া যাবে সৌদি আরব
.............................................................................................
ন্যাটোতে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দিলো সুইডেন
.............................................................................................
হুথিদের হামলার শিকার হলো মার্কিন জাহাজ, নি হ ত ৩
.............................................................................................
রমজানে ফিলিস্তিনিরা নামাজ পড়তে পারবে আল-আকসায়
.............................................................................................
বিমান থেকে গাজায় ত্রাণ ফেললো যুক্তরাষ্ট্র
.............................................................................................
আফগানিস্তানে প্রচণ্ড তুষারপাত, ১৫ জনের প্রাণহানি
.............................................................................................
পাকিস্তানের ইতিহাসে প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী মরিয়ম নওয়াজ
.............................................................................................
জ্ঞানবাপী মসজিদে চলবে পূজা
.............................................................................................
গায়ে আগুন দিয়ে প্রতিবাদ মার্কিন বিমানসেনার
.............................................................................................
গাজা যুদ্ধপরবর্তী নেতানিয়াহুর পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান ফিলিস্তিনের
.............................................................................................
অবশেষে নাভালনির লাশ দেখানো হয়েছে মাকে, তবে...
.............................................................................................
এবার লেবাননে ইসরাইলের হামলা, নিহত ৯
.............................................................................................
পাকিস্তান জোট সরকার: প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন শাহবাজ
.............................................................................................
পাকিস্তানে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে গু লি করে হ ত্যা
.............................................................................................
ভারতে মাদ্রাসা-মসজিদ ভাঙা নিয়ে উত্তেজনা, নি/হ/ত ৪
.............................................................................................
ভিসানীতি পরিবর্তন হয়নি: যুক্তরাষ্ট্র
.............................................................................................
হামাসের হাতে ১৫ ইসরাইলি সেনার প্রাণহানি
.............................................................................................
করাচিতে নির্বাচন কমিশনে বোমা হামলা
.............................................................................................
জর্ডানে ড্রোন হামলা: ৩ মার্কিন সেনা নিহত, আহত ৩৪
.............................................................................................
ইসরাইলে হা*মলা করল হিজবুল্লাহ, ভিডিও প্রকাশ
.............................................................................................
চীনে দোকানে আ-গুন, নি-হ-ত ৩৯
.............................................................................................
৭.১ মাত্রার ভূমিকম্পে কাঁপল চীন, নি-হ-ত ৪৭
.............................................................................................
আফগানিস্তানে বিধ্বস্ত বিমান থেকে ৪ যাত্রী জীবিত উদ্ধার
.............................................................................................
হামাস নির্মূল সম্ভব নয়, বললেন ইসরাইলি কমান্ডাররা
.............................................................................................
এমপির বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ, অতপর. . .
.............................................................................................
ইসরাইলি গোয়েন্দা দপ্তরে ইরানের মিসাইল হামলা
.............................................................................................
বিমান ছাড়তে দেরি করায় পাইলটকে পেটালেন যাত্রী
.............................................................................................
রাশিয়ার জন্য যে ড্রোন তৈরি করল ইরান
.............................................................................................
জাপানে ১৫৫ বার ভূমিকম্পের আঘাত, নিহত ২৪
.............................................................................................
লোহিত সাগরে যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করল ইরান
.............................................................................................
কুয়েতে আত্ম-হ-ত্যার শীর্ষে ভারতীয়রা
.............................................................................................
সিরিয়ায় ইসরাইলি বিমান হামলায় ১১ ইরানি সেনা নি*হ*ত
.............................................................................................
দামেস্কে ইসরাইলি বিমান হামলা, ইরানের শীর্ষ সামরিক উপদেষ্টা নি*হত
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT