শুক্রবার, ২৬ জুলাই 2024 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   এক্সক্লুসিভ
  নিষিদ্ধ ঘোষিত ওষুধ অবাধে বিক্রি হচ্ছে বাজারে
 

মাহবুবুল আম্বিয়া : জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হওয়ায় ইতিমধ্যে যেসব ওষুধকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে সেগুলো এখনো অবাধে বিক্রি হচ্ছে বাজারে। ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর গত মাসে ৫১ ওষুধ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। পাশাপাশি ওসব ওষুধ উৎপাদনকারী কোম্পানিগুলোকে বাজার থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত ওষুধগুলো তুলে নেয়ারও প্রত্যাহার করে তা অধিদফতরকে জানাতে বলেছে। কিন্তু ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের ওই নির্দেশ বাজারে কোনো প্রভাবই ফেলেনি। বরং প্রশাসনের ওই নির্দেশনা অমান্য করে রাজধানীসহ সারাদেশেই নিষিদ্ধ ওষুধগুলো বিক্রি হচ্ছে। এমনকি অনেক চিকিৎসকও ব্যবস্থাপত্র এখনো ওসব ওষুধ লিখছেন। ফলে গ্রাহকরা কিনতে বাধ্য হচ্ছে। যদিও অনেক দোকানেই নিষিদ্ধ ওষুধের তালিকা টানানো আছে কিন্তু তারপরও বিক্রি হচ্ছে। ওষুধ প্রশাসন সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, ওষুধ প্রশাসন  অধিদফতর থেকে রেজিস্ট্রেশন বাতিল হওয়া ওষুধগুলো সেবনের ফলে মানবদেহে মারাত্মক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। ওসব ওষুধ সেবন করে অনেকেই ক্যান্সার, হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, লিভার, যকৃৎ, কিডনি জটিলতাসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু বাজারে নিষিদ্ধ করা ওষুধগুলোর চাহিদা থাকায় ফার্মেসিগুলো তা বিক্রি করছে। ফার্মেসী মালিকরা বলছেন- নিষিদ্ধ হওয়া ওষুধগুলো খুব তাড়াতাড়ি  কাজ করে বিধায় রোগীরা তা বেশি পছন্দ করেন। আর এ কারইে প্রতিটি ফার্মেসিতেই ওই ওষুধগুলো বেশি রাখা হয়।
সূত্র জানায়, গত ১৩ আগস্ট ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের এক বিজ্ঞপ্তিতে ৫১টি ওষুধ নিষিদ্ধের কথা জানানো হয়। বিভিন্ন কোম্পানির উৎপাদিত প্যারাসিটামল কম্বিনেশন জাতীয় ১৬টি ওষুধ ছাড়া আরো ৩৫ ধরনের ওষুধের নিবন্ধনও বাতিল করে অধিদফতর। বিজ্ঞপ্তিতে ওসব ওষুধের উৎপাদন, বিপণন, মজুদ, ক্রয়-বিক্রয় ও প্রদর্শন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পাশাপাশি জনসাধারণকেও ওসব ওষুধ ব্যবহার না করার জন্যও বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে এর কোনো প্রভাব পড়ছে না।
এদিকে ওষুধ শিল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর থেকে নিবন্ধন বাতিল হওয়া ওষুধগুলো রাজধানী থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চলের বিভিন্ন ওষুধের দোকানে ছড়িয়ে পড়েছে। তাই ওসব ওষুধ প্রত্যাহার করা সময়সাপেক্ষ বিষয়। তবে বাতিল হওয়া ওষুধগুলো আর কোনো কোম্পানি তৈরি করবে না। আর প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে- যেসব ওষুধ নিষিদ্ধ করা হয়েছে তা অবশ্যই বন্ধ করা হবে। তবে এ ব্যাপারে এখনো অনেক জেলাতেই কোনো নির্দেশনা পৌঁছায়নি। তবে ড্রাগ সুপাররা যদি এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালতের জন্য ম্যাজিস্ট্রেট চান তাহলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা করা হবে।
অন্যদিকে ওষুধ দোকানিরা বলছেন- প্রশাসন যেসব ওষুধের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে তার কোনো নোটিশ এখনো অনেক স্থানেই ফার্মেসি মালিকরা পাননি। ফলে তারা আগের কেনা ওষুধগুলো বিক্রি করছে। তাছাড়া চিকিৎসকরাও ব্যবস্থাপত্রে ওসব ওষুধ লিখছেন। এজন্য রোগীরা দোকানে এসে ওসব ওষুধ চাচ্ছেন। এ কারণেই অনেক জায়গায় নিষিদ্ধ হওয়া সত্ত্বেও ওসব ওষুধ বিক্রি বন্ধ হচ্ছে না।
এ বিষয়ে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান জানান, রেজিস্ট্রেশন বাতিল করা ওষুধগুলোর উৎপাদন, ক্রয়-বিক্রয়, বিতরণ, মজুদ ও প্রদর্শন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এর মধ্যে পত্রিকায় এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে অবিলম্বে এসব ওষুধ বাজার থেকে প্রত্যাহার করতেও বলা হয়েছে। সম্প্রতি নিষিদ্ধ ঘোষিত ৫১টি ওষুধ কোনো ফার্মেসিতে পাওয়া গেলে ওই ফার্মেসি বন্ধ করে দেয়া হবে।


 
 



   শেয়ার করুন
   আপনার মতামত দিন
     এক্সক্লুসিভ
সিলেটে আওয়ামী লীগের প্রমিথিউস সুলতান মনসুর
.............................................................................................
চাকরি না পেয়ে হতাশায় আত্মহত্যা জাবি শিক্ষার্থীর!
.............................................................................................
শোকের নদী ‘বিত্তিপাড়া’, এখনও নাম ওঠেনি বধ্যভূমির তালিকায়
.............................................................................................
রাহু গ্রাসে সাংবাদিক সমাজ, বানানো হচ্ছে শ্রমদাস
.............................................................................................
মধু সর্ব রোগের শেফা
.............................................................................................
পিছিয়ে পড়া নারী সমাজকে নিয়ে ‌`ভয়েস অব ওমেন`
.............................................................................................
যুক্তরাজ্যের অবৈধ নাগরিকদের ঠাঁই হবে রুয়ান্ডায়
.............................................................................................
করোনাকালে ভোলায় ২২ হাজার শিক্ষার্থী বাল্যবিয়ের শিকার
.............................................................................................
নিরাপত্তা ঝুঁকিতে অস্ট্রেলিয়া
.............................................................................................
যুদ্ধের প্রভাব: লন্ডনে ডিজেলের লিটার ২০০ টাকা
.............................................................................................
তনু হত্যার ৬ বছর: চোরাবালিতে আটকে আছে তদন্ত, শনাক্ত হয়নি আসামি
.............................................................................................
সৌন্দর্যের লীলাভূমি ‘আশুরার বিল’
.............................................................................................
আতঙ্ক বাড়াচ্ছে করোনা
.............................................................................................
বাংলাদেশে কী ধরণের সমরাস্ত্র বিক্রি করতে চায় তুরস্ক
.............................................................................................
কুষ্টিয়ার যতীন্দ্রনাথ যেভাবে হলেন ‘বাঘা যতীন’
.............................................................................................
বেকার যুবকদের ভাগ্য বদলে বিশেষ ঋণ
.............................................................................................
খাদ্য নিরাপত্তায় এখনও অনেক পিছিয়ে বাংলাদেশ
.............................................................................................
খুলনায় মাদক সম্রাট শাহজাহান আটক
.............................................................................................
স্থানীয় নির্বাচন: ক্ষমতাসীন দলে তীব্র অভ্যন্তরীণ কোন্দলের আশঙ্কা
.............................................................................................
নাশকতার আশঙ্কায় দেশে সর্বোচ্চ সতর্কতা
.............................................................................................
গম উঠাচ্ছে না মিলাররা
.............................................................................................
বর্জ্য পরিশোধনের নামে বিদেশী প্রতিষ্ঠানের প্রতারণা
.............................................................................................
নিষিদ্ধ ঘোষিত ওষুধ অবাধে বিক্রি হচ্ছে বাজারে
.............................................................................................
কোরবানির গরু ফুলানো হচ্ছে ভিটামিন দিয়ে
.............................................................................................
‘ফাঁসির মঞ্চে দাঁড়িয়ে স্ত্রীর উদ্দেশে যা বলেছিলেন এরশাদ শিকদার’
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT