সোমবার, ৫ ডিসেম্বর 2022 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   কৃষি
  শীতকালীন আগাম সবজি চাষে উৎপাদন খচর বেশি; আগ্রহ হারাচ্ছেন কৃষক
  6, November, 2022, 5:36:7:PM

আকরামুজ্জামান আরিফ:

অধিক লাভের আশায় জাত ভেদে ফসলের মৌসুমকে অগ্রাহ্য করে সময়ের ফসল অসময়ে চাষে একদিকে যেমন খচর বাড়ছে লাফিয়ে অন্যদিকে ফলন কমছে মারাত্মকভাবে এতে করে লোকসানের মুখে পড়ে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের আর্থিক নিরাপত্তাও দিন দিন ঝুঁকির মধ্যে পড়ছে। ক্রমাগত বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সময়ের ফসল অসময়ে চাষে কৃষকের পাশাপাশি কৃষিতে সরকারের ভর্তুকিরও সঠিকভাবে ব্যবহার না হওয়ায় ক্ষুদ্র আয়তনের দেশের বিশাল জনগোষ্ঠীর খাদ্য ও পুষ্টির নিরাপত্তা অনেকটাই অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়তে পারে। একটা সময় কৃষকেরা মৌসুমকে গুরুত্ব দিয়েই ফসলের চাষাবাদ করে আসতেন এতে ফসল চাষে ঝুঁকি ও খরচ অনেকাংশে কম হতো সাথে ফলনও পেতেন আশানুরুপ।

সূত্রে জানা যায়, কৃষিতে আধুনিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ব্যবহার যুক্ত হওয়ায় কৃষকেরা সময়ের ফসল অসময়ে চাষ করে একটা সময় বেশ লাভবান হওয়ায় ফসলের মৌসুমকে গুরুত্ব না দিয়েই আগাম চাষে ঝুঁকে পড়েন। সময়ের আগেই বাজারে আসা ঐসকল সবজির চাহিদাও ভোক্তাদের কাছে বেশ কদর পেতে শুরু করেন।

মাঠপর্যায়ে কৃষকদের সাথে আলাপকালে জানা যায়, বছর পাঁচেক আগেও শীতকালিন ফুলকপি বাঁধাকপির ফলন বেশ ভালো হতো সাথে খরচও কম হতো। কিন্তু কয়েক বছর ধরে দেখা যাচ্ছে শীতকালিন এসব সবজি গ্রীষ্মকালে আগাম চাষে খরচ বাড়ছে সাথে ফলন কমছে আবার প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঝুঁকিও বেড়ে চলেছে।

এক সবজি চাষী বলেন, আমি অনেক বছর ধরেই শীতকালিন সবজি বাঁধাকপি আগাম গ্রীষ্মকালে চাষ করে আসছি, এতে বেশ লাভবানও হয়েছি। কিন্তু গত কয়েক বছর ধরেই বিগত বছরের তুলনায় অনেক বেশিই গরম পড়ছে সাথে সূর্যের তাপও খুব বেশি হওয়ায় এবছর আমার ফসলের ফলন তেমন একটা ভালো হয়নি। আমি এবছর এক বিঘা জমিতে ৬ হাজার বাঁধাকপির চারা রোপণ করেছিলাম। বাঁধাকপির গড় ফলন হয়েছে ৬০০ থেকে ৭০০ গ্রাম। প্রচন্ড গমর সাথে বৃষ্টি হওয়ায় জমির প্রায় ৩০ থেকে ৪০ ভাগ কপি পঁচে নষ্ট হয়ে গিয়েছিলো। যদি পঁচে নষ্ট না হতো তাহলে আমি প্রায় ৪২০০ কেজি কপি পেতাম। কিন্ত পঁচে নষ্ট হওয়ায় সেখানে ২ হাজার কেজির মত কপি সংগ্রহ করতে পেরেছি এতে করে কোনমতে আমার খরচটা ফিরে পেয়েছি। এক বিঘা আগাম এই বাঁধাকপির চাষ করতে আমার প্রায় ৩৫ হাজার টাকার মত খরচ হয়েছে।

অপর এক কৃষকের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, এ বছর আমি তিন বিঘা জমিতে আগাম বাঁধাকপির চাষ করেছিলাম। এতে আমার প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকার মত খরচ হয়েছিলো। প্রচন্ড গরম আর বৃষ্টিতে আমার প্রায় অর্ধেকেরও বেশি কপি পঁচে নষ্ট হয়ে গিয়েছিলো যা ছিলো তারও ওজন তেমন একটা না হওয়ায় লাভ তো দুরের কথা আমার লোকসান হয়েছে। তিনি আরও বলেন, আগামিতে আমি আর আগাম কপির চাষ করবো না। কারন জানতে চাইলে তিনি বলেন, আগাম চাষে খরচ অনেক বেশি আর প্রাকৃতিক দূর্যোগেরও ঝুঁকি বাড়ছে। শীতকালে যদি বাঁধাকপির চাষ করা হয় তাহলে বিঘা প্রতি খুব বেশি হলেও ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকার মত খরচ হয় সাথে এক একটি বাঁধাকপির ওজন হয়ে থাকে প্রায় ২ হাজার ৫ শ গ্রামের মত। আর প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঝুঁকি না থাকায় গাছ পঁচে মরে যাওয়ার কোন ভয় থাকে না। চাষের হিসেবের সূত্র ধরে এক বিঘা জমিতে ৬ হাজার চারায় গ্রীষ্মকালে যেখানে প্রায় ৪০ হাজার টাকা ব্যয়ে ২ হাজার কেজি বাঁধাকপির ফলন পাওয়া যায় সেখানে মৌসুমকে গুরুত্ব দিয়ে যদি শীতকালে বাঁধাকপির চাষ করা হয় তাহলে মাত্র ১৪ হাজার টাকা খরচে প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঝুঁকি ছাড়াই নিরাপদে প্রায় ১৫ হাজার কেজি বাঁধাকপির ফলন পাওয়া সম্ভব। গরমের সময় বাঁধাকপিতে পোকার ও পঁচন রোগে তীব্র আক্রান্ত হয় আবার সার সেচও লাগে বেশি কিন্তু শীতকালে বাঁধাকপিতে তেমন একটা রোগবালাই হয় না বললেই চলে, তাই খরচ খুবই কম হয় সাথে ফলনও পাওয়া যায় অনেক বেশি।

অন্য এক কৃষকের সথে কথা হলে তিনি জানান, আামর গত কয়েক বছর ধরে আগাম কপি চাষে লোকসান হওয়ায় এবছর থেকে আগাম কপির চাষ ছেড়ে দিয়েছি। এলাকার সচেতন মহলের দাবী কৃষিতে যদি সরকারের নজরদারী না বাড়ে তাহলে সময়ের ফসল অসময়ে চাষে কৃষকেরা পড়বে আর্থিক ক্ষতির মুখে আর দেশ পড়তে পারে খাদ্য সংকটে। অন্যদিকে কৃষিতে ভর্তুকির হার বাড়বে লাগামহীন। তারা আশার করেন কৃষিতে সরকারের ভর্তুকির যেন সঠিক ব্যবহার হয়।



   শেয়ার করুন
   আপনার মতামত দিন
     কৃষি
জয়পুরহাটে কমলা চাষে দম্পতির সাফল্য
.............................................................................................
কাঁচা মরিচের বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে আনন্দের ঝলকানি
.............................................................................................
আলুর উৎপাদন খরচ বেড়ে যাওয়ায় দাম নিয়ে আশঙ্কায় কৃষকরা
.............................................................................................
সফল সবজি চাষি বিরামপুরের ইব্রাহিম
.............................................................................................
বিশ্বনাথে পোকা দমনে ‘পার্চিং’ পদ্ধতি ব্যবহারে সুফল পাচ্ছেন কৃষক
.............................................................................................
জয়পুরহাটে সবজির চারায় কৃষকের ভাগ্য বদল
.............................................................................................
শীতকালীন আগাম সবজি চাষে উৎপাদন খচর বেশি; আগ্রহ হারাচ্ছেন কৃষক
.............................................................................................
আমনের দাম নিয়ে দুশ্চিন্তায় ফুলবাড়ীর কৃষক
.............................................................................................
হবিগঞ্জে ৭৬৪ কোটি টাকার আমন ধান উৎপাদনের আশা
.............................................................................................
রৌমারীতে আমনের বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি
.............................................................................................
রৌমারীর জমিতে সেচ পাম্প স্থাপনে সুবিধা পাবে ১২০ পরিবার
.............................................................................................
জগন্নাথপুরে আমন ধান কাটা শুরু, বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে হাসি
.............................................................................................
সাতক্ষীরায় গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষে কৃষকের সাফল্য
.............................................................................................
পেঁপের বাগান করে স্বাবলম্বী সাকিনুর ইসলাম
.............................................................................................
ব্রি-৭৫ ধান আগাম রোপণে সফল কৃষক রফিকুল
.............................................................................................
শাহজাদপুরে বীজ উৎপাদনে মরিয়মের সাফল্য
.............................................................................................
আমন ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখছেন রায়গঞ্জের কৃষকেরা
.............................................................................................
গ্রীষ্মকালীন পিয়াজ চাষে ব্যস্ত কৃষক
.............................................................................................
বৃষ্টি নেই, দুশ্চিন্তায় পাটচাষীরা
.............................................................................................
ভেড়ামারায় জি-কে সেচ প্রকল্পের ৩ পাম্পের দু’টিই বিকল, চাষিরা বিপাকে
.............................................................................................
বকুল বেগমকে সাবলম্বীর পথ দেখালো তার অদম্য শ্রম
.............................................................................................
আলু নিয়ে বিপাকে জয়পুরহাটের কৃষক ও ব্যবসায়ীরা
.............................................................................................
আগাম সবজি চাষ লাভজনক
.............................................................................................
গম ও ভুট্টা চাষে কৃষকরা পাবেন হাজার কোটির ঋণ
.............................................................................................
শাহজাদপুরে আউশ ধানের বাম্পার ফলনে চাষীদের মুখে হাসি
.............................................................................................
মধুখালীতে কাঁচামরিচ ৮হাজার টাকা মণ
.............................................................................................
দেশীয় জাতের ওল চাষে ঝুকছেন সাতক্ষীরার কৃষকরা
.............................................................................................
আমন চারা রোপনে মাঠে ব্যস্ত রায়গঞ্জের কৃষকরা
.............................................................................................
গ্রিনল্যান্ড নার্সারীর বনসাই বট গাছের মূল্য এক লাখ আশি হাজার টাকা
.............................................................................................
সারের বদলে মানুষের প্রস্রাব দিয়ে চাষে ৩০ শতাংশ ফলন বাড়ে: গবেষণা
.............................................................................................
বিরোধীরা আন্দোলনে নামলে পাল্টা আন্দোলন হবে: কৃষিমন্ত্রী
.............................................................................................
তপ্ত দিনে বিরামপুরে উঠেছে রসালো তালশাঁস
.............................................................................................
যশোরে লিচুর বাম্পার ফলন হলেও দাম পাচ্ছে না চাষিরা
.............................................................................................
বোরো ধানের ফলনে হাসলেও দামে হতাশ আনোয়ারার কৃষকেরা
.............................................................................................
মিঠাপুকুরে বোরো ধান পানিতে, শ্রমিক সংকট চরমে
.............................................................................................
আম উৎপাদনে শীর্ষে নওগাঁ
.............................................................................................
ধান ও সয়াবিন নিয়ে শঙ্কায় লক্ষ্মীপুরের কৃষকরা
.............................................................................................
কুমিল্লার লালমাইয়ে কচুর বাম্পার ফলনে স্বস্তিতে কৃষকরা
.............................................................................................
গোলায় ধান তোলার অপেক্ষায় চৌহালীর কৃষক
.............................................................................................
এক মণ ধানের দামেও মিলছে না একজন শ্রমিক
.............................................................................................
কালবৈশাখীর প্রভাব: বোরোধান ঘরে তুলতে ব্যয় দ্বিগুণ
.............................................................................................
কুমিল্লার হলুদ তরমুজ দেখতে সুন্দর ও খেতে মিষ্টি
.............................................................................................
ভালুকায় কৃষকদের মাথায় হাত
.............................................................................................
বগুড়ায় বোরো ধান কাটা ও মাড়াই শুরু
.............................................................................................
কৃষক থেকে ২৭ টাকা কেজি দরে ধান সংগ্রহ শুরু
.............................................................................................
তরুণদের কৃষিতে টানতে গঠন হচ্ছে ‘উদ্যোক্তা ফাউন্ডেশন’
.............................................................................................
জয়পুরহাটে সবজি চাষ করে সফল মনোয়ারা বেগম
.............................................................................................
লোকসানের মুখে চাষিরা, সড়কে আলু ফেলে প্রতিবাদ
.............................................................................................
কৃষি ও খাদ্য পণ্য উৎপাদনে প্রধানমন্ত্রী গুরুত্ব
.............................................................................................
জোয়ারের পানিতে ভাসছে কৃষকের স্বপ্ন!
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT