রবিবার, ২৯ মে 2022 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   জাতীয়
  শিশুদের খেলাধূলায় উৎসাহিত করুন : প্রধানমন্ত্রী
  12, May, 2022, 1:23:30:PM

স্বাধীন বাংলা প্রতিবেদক
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংশ্লিষ্ট সকলকে বিশেষ করে অভিভাবকদেরকে তাদের শিশুদের বাইরে খেলাধূলা করতে উৎসাহিত করার আহবান জানিয়েছেন। যা তাদের যে কোন ধরনের ভুল পথে যাওয়া বন্ধ হওয়ার পাশাপাশি শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য বিকাশে সহায়ক হবে। কারণ, জাতি গঠনে এগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
তিনি বলেন, ‘আমাদের বেশিরভাগ শিশু প্রায় সময় ফ্ল্যাটে মোবাইল, ল্যাপটপ এবং আইপ্যাড নিয়ে সময় কাটাচ্ছে। যা তাদের শারিরীক ও মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য খুবই অমঙ্গলজনক।’
প্রধানমন্ত্রী শিশুদেরকে কিছু সময়ের জন্য হলেও বাহিরে গিয়ে মাঠে খেলাধূলা করা এবং দৌড়ঝাপ দেয়ার সুযোগদানে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান। এতে শিশুদের সব ধরনের শারিরীক ও মানসিক বিকাশ ঘটবে।


সরকার প্রধান আরও বলেন, ‘আমি সকল অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি, আপনারা আপনাদের শিশুদের লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধূলার প্রতিও মনোযোগী হবেন। তাহলে শিশুরা আর ভূল পথে যাবে না।’ শেখ হাসিনা আজ সকালে দেশের ক্রীড়াঙ্গনে গৌরবোজ্জল অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ৮৫ ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব ও সংগঠককে ‘জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার’ ‘২০১৩-২০২১’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র ভাষণে এ সব কথা বলেন।
তিনি তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের মূল অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।
শেখ হাসিনা বলেন, খেলাধূলা শরীরচর্চা এবং সাংস্কৃতিকচর্চা একটি জাতির জন্য অপরিহার্য। এ কথা সবাইকে মনে রাখতে হবে আমাদের একেবারে ছোট শিশু থেকে সকলকে উৎসাহিত করতে হবে এবং সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে হবে। তাহলেই আমাদের ছেলে-মেয়েরা মানুষের মত মানুষ হতে পারবে। তাদের মনটাও ভালো থাকবে, তারা ভালভাবে লেখাপড়া শিখবে এবং বিপথে যাবেনা- এটাই আমার বিশ^াস।


প্রধানমন্ত্রী বলেন, খেলাধূলা এক ধরনের শরীর চর্চা। এতে আমাদের ছেলে-মেয়েরা শারীরিক এবং মানসিকভাবেও যথেষ্ট উপকৃত হয়। সেই সাথে আমাদের দেশের গ্রামাঞ্চলে অনেক ধরনের খেলাধূলা ছিল, সেগুলো আবার সচল করতে হবে। এ জন্য আন্তঃস্কুল প্রতিযোগিতা, আন্তঃকলেজ প্রতিযোগিতা এবং আন্তঃবিশ^বিদ্যালয় প্রতিযোগিতাগুলো যেন ব্যাপকভাবে চলে সে ব্যবস্থা নিতে হবে।
তিনি বলেন, আমাদের জেলা-উপজেলা পর্যায়ে ফুটবল, ক্রিকেট, ভলিবল, সাঁতার, হকিসহ বিভিন্ন খেলার সাথে সাথে দেশিয় খেলাগুলো যেমন: ডাংগুলি, সাত চারা গোল্লাছুট থেকে শুরু করে হাডুডুসহ যে সব খেলাগুলো প্রচলিত ছিল, সেগুলো আবার চালু করতে হবে। আন্তঃস্কুল প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে হবে। যেটা আমরা ফুটবলের ক্ষেত্রে প্রাথমিক পর্যায় থেকেই আন্তঃস্কুল প্রতিযোগিতা শুরু করেছি। ফলে আমাদের অনেক নতুন নতুন খেলোয়াড় সৃষ্টি হচ্ছে এবং তারা জাতীয় পর্যায়েও বিশেষ অবদান রাখছে। কাজেই এদিকে সকলে বিশেষভাবে দৃষ্টি দেবেন।
এ ব্যাপারে যে ধরনের সহযোগিতা দরকার তাঁর সরকার তা করে যাচ্ছে উল্লেখ করে সরকার প্রধান বলেন, আমরা চাই এ খেলাধূলার বিষয়ে আমাদের আরো উদ্যোগী হতে হবে।
রাজধানী ঢাকায় খেলাধূলার জায়গা কম উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা কিছুটা উদ্যোগ নিয়েছি প্রত্যেক এলাকাতেই যেন খেলার মাঠ থাকে। যেখানে খালি জায়গা পাচ্ছি খেলার মাঠ করে দিচ্ছি। কারণ, প্রত্যেকটা এলাকাতেই খেলার মাঠ থাকা একান্তভাবে প্রয়োজন। সে ক্ষেত্রে সংসদ ভবনের পাশে বিশেষ চাহিদা সম্পন্নদের খেলাধূলার জন্য একটা একাডেমীও নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।
’৯৬ সালে তিনি প্রথম সরকার গঠনের পর বিশেষ চাহিদা সম্পন্নদের অলিম্পিকে আমেরিকা থেকে ৭২টি পদক জয় করে আনার প্রসঙ্গ টেনে প্রধানমন্ত্রী তাঁদের আরো পৃষ্ঠপোষকতা প্রদানের আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল পুরস্কার প্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন এবং অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।
ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব উপস্থিত ছিলেন এবং স্বাগত বক্তব্য দেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মেসবাহ উদ্দিন।
অনুষ্ঠানে খেলাধুলার উন্নয়নের ওপর একটি প্রমাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।
এর আগে, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ২০১৩ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত দেশের ক্রীড়াঙ্গনে তাদের অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ৮৫ জন ক্রীড়া ব্যক্তি ও সংগঠককে এই মর্যাদাপূর্ণ জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের জন্য মনোনীত করে।


পুরস্কার হিসেবে প্রত্যেকে পাবেন একটি আঠারো ক্যারেট মানের ২৫ গ্রাম ওজনের স্বর্ণ পদক, এক লাখ টাকার চেক এবং একটি সনদপত্র।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দ্বিতীয় পুত্র শহীদ লে. শেখ জামালকে ২০২০ সালের খেলোয়াড় ও সংগঠক হিসেবে (মরণোত্তর) পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। তাঁর পক্ষে পরিবারের সদস্য এবং খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল পুরস্কার গ্রহণ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় অটিস্টিক ও শারীরিক প্রতিবন্ধী খেলোয়াড়রা বিভিন্ন সময়ে স্পেশাল আলিম্পিকে অংশগ্রহণ করে ২১৬টি স্বর্ণ, ১০৯টি রৌপ্য ও ৮৪টি ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে দেশের জন্য সম্মান বযে এনেছে। এ বছরের মার্চে কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত ‘বঙ্গবন্ধু চার-জাতি শারিরীক প্রতিবন্ধী টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট টুর্ণামেন্টে বাংলাদেশ ভারতকে ৯ উইকেটে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।


ক্রিকেট ফুটবলসহ সব ক্রীড়াক্ষেত্রেই আমাদের নারীদের সাফল্য উল্লেখ করে তিনি নারীদের জন্য আরো সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে নির্দেশ দেন। এ প্রসঙ্গে বঙ্গবন্ধুর বড় ছেলে শেখ কামালের স্ত্রী সুলতানা কামাল দেশের একজন চ্যাম্পিয়ন ক্রীড়াবিদ এবং ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের ‘ব্লু’ ছিলেন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
খেলাধূলার মানোন্নয়নে তাঁর সরকার প্রত্যেক উপজেলা পর্যায়ে যে মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করে দিচ্ছে সে কাজ আরো দ্রুত সম্পন্ন করার জন্যও প্রধানমন্ত্রী এ সময় যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়কে তাগিদ দেন।


তিনি বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে খেলাধুলার সুবিধাদির উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রথম পর্যায়ে দেশের ১২৫টি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে আরও ১৮৬টি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়েছে। তৃতীয় পর্যায়ে দেশের অবশিষ্ট ১৭১টি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের লক্ষে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ চলমান রয়েছে। তবে আমি মনে করি এ ব্যাপারে যাতে আর সময় না নেয়া হয় সেটা দেখতে হবে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার পর্যটন জেলা কক্সবাজারের দৃষ্টি নন্দন আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়াম ও ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণ করে দিচ্ছে উল্লেখ করে, সিলেটেও আন্তর্জাতিক মানের ষ্টেডিয়াম নির্মাণ করা হচ্ছে এবং দু’টি জায়গাতেই পাহাড়ের নৈসর্গিক দৃশ্য এবং সমুদ্রের পাশটি উন্মুক্ত রেখেই তা করা হচ্ছে।


পাশাপাশি তাঁর সরকার প্রতি জেলায় জেলায় যে স্টেডিয়াম করে দিচ্ছে তা যেন সারাবছর ব্যবহার হয়, সকল খেলার জন্য তা উন্মুক্ত করে দেয়ারও প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দেন। সে সব জায়গায় যদি ক্রিকেট পিচ থাকে তাহলে সেগুলো যাতে সংরক্ষণ করা হয় সেদিকেও তিনি দৃষ্টি দেয়ার আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ১৪৮টি এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে ৬৮টি ক্রীড়া কর্মসূচি বাস্তবায়ন করায় এবং ‘মুজিববষর্’ উপলক্ষে বাংলাদেশ অলিম্পিক এ্যাসোসিয়েশন দেশের সর্ববৃহৎ ক্রীড়া উৎসব ‘বঙ্গবন্ধু নবম বাংলাদেশ গেমস-২০২০’ আয়োজন করায় তাঁদেরকে ধন্যবাদ জানান ।


তিনি খেলাধূলার উন্নয়নে তাঁর সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের উল্লেখ করে বলেন, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ২০১৮ সাল থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট বালক অনূর্ধ্ব ১৭ এবং ২০১৯ সাল থেকে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালিকা অনূর্ধ্ব ১৭ আয়োজন করছে। এর মাধ্যমে দেশের ক্রীড়াঙ্গন অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড় পাচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। এ সময় খেলোয়াড়দের উন্নত প্রশিক্ষণে ফুটবলের দেশ ব্্রাজিল এবং ইউরোপে প্রেরণেরও উল্লেখ করেন তিনি।
এর বাইরেও ক্রীড়া ক্ষেত্রে দক্ষতা প্রদর্শনকারী ক্রীড়াবিদকে তাঁর সরকার তাৎক্ষণিক পৃষ্ঠপোষকতার উদ্যোগ নিচ্ছে। খেলাধুলার উন্নয়নে সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপ এবং সফলতার কথা তুলে ধরে টানা তিন বারের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির পিতার পদাংক অনুসরণ করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে আওয়ামী লীগ সরকার ২০০৯ হতে ক্রীড়া ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন করে যাচ্ছে। ফলে ২০০৯ হতে ২০২১ সময়ে ক্রীড়াঙ্গনে বাংলাদেশের সফলতার পরিসংখ্যান উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে।


ক্রীড়াক্ষেত্রে অবদান রাখা ক্রীড়াবিদদের জন্য জাতির পিতা ১৯৭৫ সালের ৬ আগষ্ট ‘বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন’ প্রস্তাব অনুমোদন করে যান উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, এর পর আর সেটা সেভাবে কার্যকর না হলেও তাঁর সরকার ‘বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন আইন-২০১১’ প্রণয়নের মাধ্যমে সীডমানি দিয়ে এই ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছে। এখানে সমাজের বিত্তশালীদেরকে দুঃস্থ এবং অসুস্থ খেলোয়াড়দের সহায়তায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।


তিনি যতক্ষণ সরকারে রয়েছেন দুঃস্থ এবং অসুস্থ খেলেয়াড়দের সহযোগিতা প্রদান অব্যাহত রাখবেন। তবে এই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে একটি প্রতিষ্ঠানিক সহযোগিতার ব্যবস্থা তাঁর সরকার করতে চায়।



   শেয়ার করুন
   আপনার মতামত দিন
     জাতীয়
জালালাবাদ এসোসিয়েশনের নির্বাচনে এহছানে এলাহী
.............................................................................................
সড়ক ও নৌবন্দরে ইজারাদাররা চাঁদাবাজি করে : শাহজাহান খান
.............................................................................................
নয়াদিল্লিতে বাংলাদেশ-ভারত পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক স্থগিত
.............................................................................................
আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরীর লাশ দেশে পৌঁছেছে
.............................................................................................
এসডিজি অর্জনে অগ্রাধিকারমূলক সুবিধা অব্যাহত রাখার আহ্বান
.............................................................................................
কুমিল্লায় লাইনচ্যুত হল তেলবাহী ট্রেন
.............................................................................................
আজ ৪৪তম বিসিএস প্রিলি
.............................................................................................
ক্ষমার আওতায় আসছে টাকা পাচারকারীরা
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাতে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টাকারী মুফতি আব্দুল হাই গ্রেপ্তার
.............................................................................................
ফায়ার সার্ভিসের নতুন ডিজি হলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাইন উদ্দিন
.............................................................................................
ভূমি সেবায় কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ‘ভূমিসেবা পুরস্কার’
.............................................................................................
সেনাবাহিনীর চাকরি মেলার আয়োজন
.............................................................................................
পরিবার হলো মানুষের সংঘবদ্ধ জীবনের বিশ্বজনীন রূপ
.............................................................................................
এশীয় দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম ঋণ বাংলাদেশের : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী
.............................................................................................
২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
.............................................................................................
বাংলাদেশের বন্যায় ১৫ লাখের বেশি শিশু ঝুঁকিতে
.............................................................................................
রেলপথে যুক্ত হচ্ছে ৩ পার্বত্য জেলা
.............................................................................................
ঈদুল আজহার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা আমিরাতে
.............................................................................................
বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাসকে সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়েছে
.............................................................................................
১০ বছরের সাজার বিরুদ্ধে হাজী সেলিমের আপিল, জামিন আবেদন
.............................................................................................
ড. ইউনূস ৪`শ কোটি টাকা দিলেন শ্রমিকদের, মামলা প্রত্যাহার
.............................................................................................
জলরাশিকে কাজে লাগাতে হবে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
দুই দশকে ভয়াবহ বন্যায় বাংলাদেশ
.............................................................................................
সার্টিফিকেট অর্জন না করে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী
.............................................................................................
যেখানেই হাত দিচ্ছি সেখানেই অনিয়ম : ভোক্তা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক
.............................................................................................
জমিদারি শেষ, ৬০ বিঘার বেশি ব্যক্তিগত জমি রাখার সুযোগ নেই
.............................................................................................
চা-শ্রমিক জনগোষ্ঠীর ইতিহাসে একটি রক্তস্নাত দিন আজ
.............................................................................................
সুনামগঞ্জের অবহেলিত আড়তপট্টি: ১৫ বছরেও লাগেনি উন্নয়নের ছুঁয়া
.............................................................................................
প্রখ্যাত সাংবাদিক আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীর মৃত্যুতে পরিবেশমন্ত্রীর শোক
.............................................................................................
ধামরাইয়ে কলেজ ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু
.............................................................................................
গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে পরিকল্পনামন্ত্রীর শোক
.............................................................................................
চলে গেলেন সাংবাদিক ও সাহিত্যিক আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী
.............................................................................................
মালয়েশিয়াগামী ট্রলার থেকে ৩৩ রোহিঙ্গা উদ্ধার
.............................................................................................
নৌ নিরাপত্তা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর বাণী
.............................................................................................
র‌্যাব-পুলিশের মারামারির ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন
.............................................................................................
বাংলাদেশ জলবায়ুগত মারাত্মক পরিণতির সম্মুখীন হতে পারে
.............................................................................................
বাংলাদেশ এগিয়ে গেলে তাদের ভালো লাগে না : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
কক্সবাজারে সরকার বহুমুখী উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে
.............................................................................................
এবার বিদ্যুতের দাম ৫৮ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ
.............................................................................................
বন্যায় বিপর্যস্ত সিলেট
.............................................................................................
টিসিবির পণ্য আর ট্রাকে বিক্রি নয়
.............................................................................................
ড. এনায়েত উল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে মামলা
.............................................................................................
পদ্মা সেতুর দুইপ্রান্তে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ম্যুরালের কাজ চলছে
.............................................................................................
পি কে হালদার কোন কোন দেশে টাকা রেখেছে, হাইকোর্ট জানতে চায়
.............................................................................................
এতো অধৈর্য হবেন না, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের তারিখ দেবেন শেখ হাসিনা
.............................................................................................
৫০ কিলোমিটার বেগে ৮ বিভাগে ঝড়ের আভাস
.............................................................................................
শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন গণতন্ত্রের ইতিহাসে মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি
.............................................................................................
জেলেদের জন্য ১৬হাজার ৭`শ ৫২টন ভিজিএফ বরাদ্দ
.............................................................................................
সাগরে ইলিশের আকাল, হতাশ জেলেরা
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আখলাকুল আম্বিয়া
নির্বাহী সম্পাদক: মাে: মাহবুবুল আম্বিয়া
যুগ্ম সম্পাদক: প্রদ্যুৎ কুমার তালুকদার

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: স্বাধীনতা ভবন (৩য় তলা), ৮৮ মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০। Editorial & Commercial Office: Swadhinota Bhaban (2nd Floor), 88 Motijheel, Dhaka-1000.
সম্পাদক কর্তৃক রঙতুলি প্রিন্টার্স ১৯৩/ডি, মমতাজ ম্যানশন, ফকিরাপুল কালভার্ট রোড, মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত ।
ফোন : ০২-৯৫৫২২৯১ মোবাইল: ০১৬৭০৬৬১৩৭৭

Phone: 02-9552291 Mobile: +8801670 661377
ই-মেইল : dailyswadhinbangla@gmail.com , editor@dailyswadhinbangla.com, news@dailyswadhinbangla.com

 

    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT