শুক্রবার, ২৬ জুলাই 2024 বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|

   এক্সক্লুসিভ
  নাশকতার আশঙ্কায় দেশে সর্বোচ্চ সতর্কতা
  4, November, 2015, 5:25:56:AM

শরীফুল ইসলাম: ধর্মীয় উগ্রপন্থীরা দেশের বিশিষ্ট নাগরিকসহ বিদেশীদের হত্যার পরিকল্পনা করছে। একই সাথে তারা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ করতে বিমান ছিনতাই, কারাগারে আক্রমণসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় হামলার পরিকল্পনাও করছে। আর পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সংগ্রহ করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক ও অস্ত্র। তাছাড়া আফগান ফেরত শতাধিক অভিজ্ঞ যোদ্ধা উগ্রপন্থীদের দলে ভিড়েছে। তাদেরকে পেছন থেকে অর্থের যোগান দিচ্ছে প্রকাশ্য রাজনীতিতে প্রায় নিষ্ক্রিয় জামায়াত-শিবির। এ পরিস্থিতিতে সব ধরনের ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, সরকারের একটি বিশেষ গোয়েন্দা সংস্থা ধর্মীয় উগ্রপন্থীদের বিষয়ে সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি প্রতিবেদন দাখিল করেছে। তাতে সরকারকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়। গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয়, ইতিমধ্যেই সারাদেশে আত্মগোপনে থাকা সমরযুদ্ধে অভিজ্ঞ আফগান ফেরত শতাধিক যোদ্ধাকে দলে ভিড়িয়েছে জামায়াত-শিবির। তাছাড়া পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈয়্যবা, আনসারুল্লাহ বাংলা টিম, তেহরকি তালেবান, কাশ্মীরি মুজাহিদ, হামজা ব্রিগেড ও আরাকানের রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের একটি অংশকেও জামায়াত-শিবির দলে নিতে সক্ষম হয়েছে। আগামী দু’এক মাসের মধ্যেই ওই চক্রটি দেশে বড় ধরনের হামলার পরিকল্পনা করছে। গোয়েন্দা সংস্থার ওই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে সরকারের উচ্চপর্যায় থেকে সারাদেশে চার শতাধিক গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার নিরাপত্তা জোরদারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তারমধ্যে বঙ্গভবন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন, সংসদ ভবন, সুপ্রিমকোর্ট, সচিবালয়, বেতার ও টেলিভিশন ভবন, দেশের ৬৮টি কারাগার, শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ দেশের সবকটি বিমান ও সমুদ্রবন্দরকে কঠোর নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে আনার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে প্রতিটি জেলার পুলিশ সুপারকে এ ব্যাপারে ই-মেইল বার্তা দেয়া হয়েছে। পুলিশ সদর দফতর থেকে এ বার্তা পাঠানো হয়।
সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা আরো এক ধাপ বাড়ানো হয়। পুলিশের পাশাপাশি ঢাকায় মোতায়েন করা হয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। তল্লাশিতে নামানো হয়েছে ডগ স্কোয়াড। একই সাথে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটসহ দেশের সব অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দর্শনার্থীদের প্রবেশেও কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। তাছাড়া কারাগারগুলোর সামনে অতিরিক্ত পাহারা জোরদার করা হয়েছে। বর্তমানে সারাদেশে ৪১৮টি অতি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা রয়েছে। ওই স্থাপনাগুলো চারটি ক্যাটাগরিতে বিভক্ত। তারমধ্যে প্রায় ২০০ স্থাপনাই হচ্ছে প্রথম শ্রেণীর।
সূত্র আরো জানায়, সরকারের উচ্চপর্যায়ের নির্দেশের পর প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থার সদস্য সংখ্যা ইতিমধ্যে কয়েকগুণ বাড়ানো হয়েছে।জোরদার করা হয়েছে দেশব্যাপী ৬৮টি কারাগারের নিরাপত্তাও। বাড়ানো হয়েছে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য সংখ্যা। তাছাড়া কারাগার ঘিরে মাঠে নেমেছে পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)। সাথে রয়েছেন কারা গোয়েন্দা সদস্যরাও। নিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোর মধ্যে রাজধানীতে রমনা টেলিকমিউনিকেশন ভবনে ৩০ জন, মগবাজার টেলিফোন এক্সচেঞ্জ ভবনে ১৮ জন, শাহবাগ ব্রডকাস্টিং হাউসে ২১ জন, বাংলাদেশ টেলিভিশন ভবনে ৫৩ জন, হযরত শাহজালাল (রা.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৯৮ জন, তেজগাঁও পুরনো বিমানবন্দরে ৪৮ জন, সার্ভে অব বাংলাদেশে ১২ জন, তেজগাঁওয়ের বাংলাদেশ গভঃপ্রেস ১৪ জন, সিকিউরিটি প্রিন্টিং প্রেস ১৮ জন, প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় রেড টেলিফোন এক্সচেঞ্জে ১৪ জন, শেরেবাংলা নগর ন্যাশনাল ব্রডকাস্টিং হাউসে ৩৮ জন, মহাখালী ভূ-উপকেন্দ্রে ১১ জন, শেরেবাংলা নগর টেলিফোন এক্সচেঞ্জে ১৪ জন, গুলশান টেলিফোন এক্সচেঞ্জে ১৫ জন, কম্বাইন্ড অবজারভেটরি অ্যান্ড হাইড্রোজেন ফ্রাক্টরি বিল্ডিংয়ে ১২ জন, মিরপুরে বাংলাদেশ বেতারের ট্রান্সমিটিং স্টেশনে ১০ জন, কাকরাইলে ফিল্ম ডেভেলপমেন্ট করপোরেশনের ফিল্ম প্রসেসিং ল্যাব অ্যান্ড স্টুডিওতে ২১ জন, তেজগাঁও সেন্ট্রাল মেডিকেল স্টোরে ১১ জন, নীলক্ষেত অটোমেটিক টেলিফোন এক্সচেঞ্জে ১৫ জন, ধানম-ি বিদ্যুৎ স্টেশনে ১১ জন ও জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা অফিসে ১২ জন ফোর্সের মঞ্জুরী রয়েছে।
এ প্রসঙ্গে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক জাবেদ পাটোয়ারী জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বিশেষ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।  সব ধরনের হামলার আশংকা মাথায় রেখেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিরাপত্তা ছক তৈরি করেছে। দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা, বিমানবন্দর, জনসমাগমস্থল, বাস, রেল নৌ-টার্মিনাল, বিদ্যুৎ কেন্দ্র, গ্যাস বিতরণ কেন্দ্র, বিনোদন কেন্দ্র, বিদেশী নাগরিকদের অফিস ও বাসভবনে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ সুপারদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাছাড়া প্রতিটি মেট্রোপলিটন এলাকার পুলিশ কমিশনার, রেঞ্জ ডিআইজি ও পুলিশ সুপারকেও সরেজমিন ওসব স্থাপনা প্রতিদিন পরিদর্শন করে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি নিরাপত্তা ঝুঁকিগুলো চিহ্নিত করে তা সমাধানে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ সদর দফতর। তাছাড়া গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোর চারপাশে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা, গমনাগমন নিয়ন্ত্রণ ও ওয়াচ টাওয়ার স্থাপন ছাড়াও সিসিটিভি মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।



   শেয়ার করুন
   আপনার মতামত দিন
     এক্সক্লুসিভ
সিলেটে আওয়ামী লীগের প্রমিথিউস সুলতান মনসুর
.............................................................................................
চাকরি না পেয়ে হতাশায় আত্মহত্যা জাবি শিক্ষার্থীর!
.............................................................................................
শোকের নদী ‘বিত্তিপাড়া’, এখনও নাম ওঠেনি বধ্যভূমির তালিকায়
.............................................................................................
রাহু গ্রাসে সাংবাদিক সমাজ, বানানো হচ্ছে শ্রমদাস
.............................................................................................
মধু সর্ব রোগের শেফা
.............................................................................................
পিছিয়ে পড়া নারী সমাজকে নিয়ে ‌`ভয়েস অব ওমেন`
.............................................................................................
যুক্তরাজ্যের অবৈধ নাগরিকদের ঠাঁই হবে রুয়ান্ডায়
.............................................................................................
করোনাকালে ভোলায় ২২ হাজার শিক্ষার্থী বাল্যবিয়ের শিকার
.............................................................................................
নিরাপত্তা ঝুঁকিতে অস্ট্রেলিয়া
.............................................................................................
যুদ্ধের প্রভাব: লন্ডনে ডিজেলের লিটার ২০০ টাকা
.............................................................................................
তনু হত্যার ৬ বছর: চোরাবালিতে আটকে আছে তদন্ত, শনাক্ত হয়নি আসামি
.............................................................................................
সৌন্দর্যের লীলাভূমি ‘আশুরার বিল’
.............................................................................................
আতঙ্ক বাড়াচ্ছে করোনা
.............................................................................................
বাংলাদেশে কী ধরণের সমরাস্ত্র বিক্রি করতে চায় তুরস্ক
.............................................................................................
কুষ্টিয়ার যতীন্দ্রনাথ যেভাবে হলেন ‘বাঘা যতীন’
.............................................................................................
বেকার যুবকদের ভাগ্য বদলে বিশেষ ঋণ
.............................................................................................
খাদ্য নিরাপত্তায় এখনও অনেক পিছিয়ে বাংলাদেশ
.............................................................................................
খুলনায় মাদক সম্রাট শাহজাহান আটক
.............................................................................................
স্থানীয় নির্বাচন: ক্ষমতাসীন দলে তীব্র অভ্যন্তরীণ কোন্দলের আশঙ্কা
.............................................................................................
নাশকতার আশঙ্কায় দেশে সর্বোচ্চ সতর্কতা
.............................................................................................
গম উঠাচ্ছে না মিলাররা
.............................................................................................
বর্জ্য পরিশোধনের নামে বিদেশী প্রতিষ্ঠানের প্রতারণা
.............................................................................................
নিষিদ্ধ ঘোষিত ওষুধ অবাধে বিক্রি হচ্ছে বাজারে
.............................................................................................
কোরবানির গরু ফুলানো হচ্ছে ভিটামিন দিয়ে
.............................................................................................
‘ফাঁসির মঞ্চে দাঁড়িয়ে স্ত্রীর উদ্দেশে যা বলেছিলেন এরশাদ শিকদার’
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
    2015 @ All Right Reserved By dailyswadhinbangla.com

Developed By: Dynamic Solution IT